Main Menu

সুনামগঞ্জে ‘বিএসএফের গুলিতে’ যুবকের মৃত্যু

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারাবাজার উপজেলার সোনালীচেলা সীমান্তে বৃহস্পতিবার ভোর রাতে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের গুলিতে এক বাংলাদেশি নাগরিক নিহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

নিহত যুবকের নাম- দোয়ারাবাজার উপজেলার নরসিংপুর ইউনিয়নের রগারপাড় গ্রামের আসক আলীর পুত্র কামরুল ইসলাম (২৩)।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে কয়েকজন রাখাল গরু আনার জন্য লাফার্স সীমান্তের শ্যামারগাও গ্রাম দিয়ে ভারতে ঢোকে। ভারতের কালারটেক পাথরঘাট বিএসএফের ক্যাম্পের পাশ দিয়ে গরু নিয়ে আসার পথে বিএসএফ ক্যাম্পের সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এতে কামরুল ইসলাম ঘটনাস্থলেই মারা যান। এ সময় অন্য রাখালরা দৌড়ে বাংলাদেশে চলে আসে। নিহত কামরুল ইসলামের লাশ ভারতের সীমান্তের প্রায় ১৫ শত মিটার ভেতরে পড়ে আছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

সিলেট ব্যাটালিয়ন (৪৮ বিজিবি) এর অধিনায়ক লে. কর্নেল আহমেদ ইউসুফ জামিল পিএসসি জানান, দোয়ারাবাজার সীমান্তে নরসিংপুর ইউনিয়নের সোনালী চেলা সীমান্তে নিহতের ঘটনা শুনেছি। তবে বিএসএফের গুলিতে মারা গেছে এটা নিশ্চিত বলা যাচ্ছেনা। বিএসএফের সাথে কথা চলমান আছে লাশের ময়না তদন্ত শেষে শুক্রবার বাংলাদেশ পুলিশের নিকট লাশ হস্তান্তর করার কথা রয়েছে। লাশ পেয়ে ময়না তদন্তের প্রতিবেদন দেখলে বুঝা যাবে সে কিভাবে মারা গেছে। খোঁজ-খবর নেওয়ার পর এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানাতে পারবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

এব্যাপারে দোয়ারাবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল হাসেম বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুরে কামরুলের বাবা তার ছেলেকে খুঁজে পাও যাচ্ছেনা মর্মে একটি জিডি করে গেছেন। শুক্রবার পতাকা বৈঠকের মধ্য দিয়ে লাশ হস্তান্তরের কথা রয়েছে। লাশ পাওয়ার পর বুঝা যাবে তার মৃত্যুর কারণ।

0Shares





Related News

Comments are Closed