Main Menu
শিরোনাম
শাবির ল্যাবে আরো ২২ জনের করোনা শনাক্ত         কমলগঞ্জে এক বৃদ্ধের মৃত্যু নিয়ে ধুম্রজাল         জৈন্তাপুরে ভারতীয় পাতার বিড়িসহ গ্রেফতার ১         গোয়াইনঘাটে ধর্ষণ চেষ্টার প্রতিবাদে মানববন্ধন         শ্রীমঙ্গলে স্ত্রীকে হত্যা করে স্বামীর আত্মহত্যা!         সিলেট এমসি কলেজের ছাত্রী পপির আত্মহত্যা         ধর্ষণ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান কারাগারে         বিশ্বনাথে বৃদ্ধ ও এক গৃহবধুর লাশ উদ্ধার          সিলেটে করোনায় আক্রান্ত বেড়ে ৮৫৮২, মৃত্যু ১৫৩          ওসমানীর ল্যাবে আরো ৬১ জনের করোনা পজিটিভ         বিশ্বম্ভরপুরে বজ্রপাতে কৃষক নিহত         শ্রীমঙ্গলে ঘরে বসে সততা পরীক্ষার আয়োজন        

সিলেটে বানরের আক্রমনে ৩ শিক্ষার্থী আহত

বৈশাখী নিউজ ২৪ ডটকম: সিলেট নগরীর জামতলা এলাকায় বানরের অত্যাচার ও আক্রমনে বাসা-বাড়ির লোকজন ও শিক্ষার্থীরা ঘর থেকে বের হতে পারছেন না। বাসা থেকে বের হলেই বানরের আক্রমনের শিকার হতে হয় সবাইকে। বানরের ভয়ে অনেক শিক্ষার্থী স্কুল-কলেজে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে। ইতিমধ্যে ৩ জন শিক্ষার্থীকে আক্রমণ করে কামড় দিয়েছে বানর।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মাস দুয়েক ধরে জামতলা মহল্লায় ২টি বানরের আনা-গোনা দেখা যায়। এর পর থেকে দিন দিন বানরের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রতিদিন বানরগুলো বাসাবাড়ির ছাদে, আঙ্গিনায় ও বারান্দায় ঘুরাফেরা করে। প্রথম দিকে বানরগুলো শিশু বচ্চাদের ভয় দেখালেও ইদানিং বড় মানুষদেরকেও আক্রমনের চেষ্টা করে। গত ২০ দিন আগে জামতলার বাসিন্দা এডভোকেট রকিব আলীর মেয়ে, স্টুডেন্ট হোম স্কুলের নার্সারির ছাত্রী তাসনিয়া তাব্বাছুমকে স্কুলে যাওয়ার জন্য বাসা থেকে বের হলে বাসার আঙ্গিনাতে থাকা বানর কামড় দেয়। ওই দিন একই স্কুলের ছাত্র জারিফকেও বানর কামড় দেয়। ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ইনজেকশন দেয়া অবস্থায় আবারও গত সপ্তাহে তাসনিয়া তাব্বাছুমকে বানর কামড় দেয়। গত মাসে সিলেট পাইলট স্কুলের ছাত্র মাহফুজুর রহমানকে কামড় দেয় বানর। এতে আক্রান্ত শিক্ষার্থীরা গুরুত্বর আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছে।

বানরের অত্যাচার ও আক্রমন থেকে জামতলাবাসী বাঁচতে ৯৯৯ নাম্বারে ফোন করলে সিলেট বন বিভাগের জিএম আবু বকরের নির্দেশে গত ২ ডিসেম্বর ৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল জামতলায় আসেন। তারা মহল্লাবাসীকে বলেন, বানরকে আপনারা কোন ধরনের খাবার দিবেন না। আমাদের পক্ষ থেকে একটি খাচা দেবো। নিজ দায়িত্বে আপনাদেরকে বানর ধরতে হবে। ধরে আমাদেরকে খবর দিলে বানর নিয়ে যাবো। তবে আপনাদেরকে সতর্ক থাকতে হবে যাতে বানরগুলো দলবদ্ধ হয়ে আক্রমন না করে। মহল্লাবাসী বানর ধরার জন্য বন বিভাগের সহযোগিতা চাইলে, প্রতিনিধিদল বলেন, বন অফিসে জনবল সঙ্কট রয়েছে।

এ ব্যাপারে জামতলার বাসিন্দা বায়েজিদ খান বলেন, দীর্ঘদিন যাবৎ বানরের আক্রমন ও অত্যাচারে আতঙ্কের মধ্যে আমরা দিন কাটাচ্ছি। ইতিমধ্যে ৩ স্কুল শিক্ষার্থীকে বানর কামড়িয়েছে। বড়দেরকেও কামড় দেয়ার চেষ্টা করছে। এই অবস্থায় বানর আতঙ্ক থেকে মুক্তি পেতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আহবান জানান।

আলাপকালে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ১৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সান্তুনু দত্ত সন্তু বলেন, জামতলায় শিক্ষার্থীকে বানর কামড় দিয়েছে বলে শুনেছি। ওয়ার্ডবাসীর জানমালের নিরাপত্তা দেয়া আমার নৈতিক দায়িত্ব। কারণ আমি তাদের জনপ্রতিনিধি। কিন্তু সিসিকে বানর ধরার কোন যন্ত্রপাতি নেই। থাকলে সাথে সাথে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতাম। বিষয়টি বন বিভাগকে জানাতে মহল্লাবাসীকে বলেছি।

0Shares





Related News

Comments are Closed