Main Menu

স্কুলছাত্রীকে বিয়ে করতে সিলেটের মাদ্রাসাছাত্রী নাটোরে!

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: ফেসবুকে পরিচয়ের পর সিলেটে থেকে দশম শ্রেণির এক মাদ্রাসাছাত্রী নাটোরে এসেছে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ে করতে। শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারী) ওই মাদ্রাসাছাত্রী সিলেট থেকে নাটোরে পৌঁছায়।

সিলেট কোতোয়ালি থানাধীন এলাকার একটি মাদ্রাসার দশম শ্রেণীর ছাত্রীর সঙ্গে গত ৭ মাস ধরে নাটোর সদর উপজেলার একটি হাইস্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। সম্পর্কের সূত্র ধরে সিলেটের ওই মাদ্রাসাছাত্রী শুক্রবার বিয়ে করতে নাটোরে চলে আসে। বিষয়টি জানাজানি হলে শুক্রবার সন্ধ্যায় নাটোর থানা পুলিশ এসে দুই ছাত্রীকে তাদের হেফাজতে নেয়। এ নিয়ে জেলা জুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

নাটোরের স্কুলছাত্রীর মামা বলেন, ফেসবুকের মাধ্যমে তার ভাগ্নির সঙ্গে একটি ছেলের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছে বলে তারা শুনেছেন। এসব নিয়ে পারিবারিকভাবে বকাঝকাও করা হয়েছিল। কিন্তু আজ তার ভাগ্নির কাছে একটি মেয়ে চলে এসেছে। তারা দুইজন বলছে- ‘বিয়ে করবে’। এটা কি মেনে নেওয়ার মতো কোনো বিষয়।

তিনি বলেন, নাটোর থানার পুলিশ এসে সিলেট থেকে আসা ওই মেয়েকে থানায় নিয়ে গেছে। আর তার ভাগ্নিকে তাদের হেফাজতে দিয়েছে।

সিলেট থেকে আসা মাদ্রাসাছাত্রী জানায়, গত ৭ মাস আগে তাদের ফেসবুকে পরিচয় হয়। এরপর ধীরে ধীরে ঘনিষ্ঠ বন্ধু ও পরে তারা সমকামিতার সিদ্ধান্ত নেয়। এ জন্য বিয়ে করতে নাটোরে এসেছে।

নাটোরের ছাত্রী জানায়, তারা উভয়ে বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তারা একসঙ্গে থাকতে চায়।

নাটোর সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান বলেন, স্থানীয়রা সন্ধ্যায় খবর দিলে পুলিশ তাদের থানায় নিয়ে আসে। তাদের উভয় পরিবারের অভিভাবকদের হাতে তুলে দেওয়ার প্রস্তুতি চলছে। উভয়ে অপ্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ায় তাদের অভিভাবকদের জিম্মায় দেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

Share





Related News

Comments are Closed