Main Menu
শিরোনাম
শাবির ঘটনা তদন্তে কমিটি গঠন, ভিসির পদত্যাগ দাবি         মধ্যরাতেও ভিসির পদত্যাগের দাবিতে উত্তাল শাবি         শাবিপ্রবি অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা         তাহিরপুরে অবৈধ কোয়ারীর মাটি চাপায় শ্রমিককের মৃত্যু         শাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থি-পুলিশ সংঘর্ষ, আহত ৩০         বিয়ানীবাজারে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় ১জনের মৃত্যু         ‘সম্পত্তির লোভে ছেলে-পুত্রবধূর ষড়যন্ত্রে দিশেহারা সৌদিফেরত জমসেদ আলী’         কানাইঘাটে সাংবাদিকের হাত-পায়ে কুপিয়েছে সন্ত্রাসীরা         শাবির উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থিরা         সিলেটে একদিনে আরো ১৪৮ জনের করোনা শনাক্ত         ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা শাবি শিক্ষার্থীদের         বিয়ের প্রলোভনে গৃহবধূকে ‘ধর্ষণ’, গ্রেপ্তার ১        

ভুটানের জালে বাংলাদেশের ৬ গোল

স্পোর্টস ডেস্ক: সাফ অনূর্ধ্ব-১৯ নারী চ্যাম্পিয়নশিপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে নেপালের বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করেছিল বাংলাদেশের মেয়েরা। তবে সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ভুটানকে নিয়ে রীতিমতো ছেলেখেলা করল মারিয়া-তহুরারা।

ভুটানের বিপক্ষে ৬-০ গোলের বড় জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। প্রথমার্ধের তিন গোলের পর দ্বিতীয়ার্ধে আরও তিন গোল করে মারিয়ারা।

অনেকদিন পর উদযাপনের দারুণ উপলক্ষ্য পেল কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে আসা দর্শকরা। ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটেই লিড পায় বাংলাদেশ। তহুরার দারুণ শর্ট প্রতিপক্ষের জাল ভেদ করে। এগিয়ে যায় বাংলাদেশ।

এরপর ম্যাচের ৪১তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে বাংলাদেশ। মারিয়া মান্ডার লং পাস থেকে ব্যবধান বাড়ায় শাহেদা রিপা। প্রথম গোলের পর তৃতীয় গোলটিও করেন তহুরা। শাহেদা রিপার দুর্দান্ত এক হেড থেকে গোল করেন তহুরা খাতুন। ৩-০ গোলের ব্যবধানে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় বাংলাদেশ।

বিরতি থেকে ফিরে আরও প্রাণবন্ত ফুটবল উপহার দেয় বাংলার মেয়েরা। ৪৭ মিনিটে দলের চতুর্থ গোল আসে। রিপা গোলমুখ বরাবর শট ভুটানের গোলকিপারের হাত ফসকে জালে চলে যায়। এরপর দলের অবস্থা ফেরাতে গোলরক্ষক পরিবর্তন করেও কাজের কাজ কিছুই হয়নি।

ম্যাচের ৬৯ মিনিটে দুর্দান্ত গোল করে ব্যবধান আরও বাড়ায় ঋতু পর্ণা চাকমা। এরপর শেষ মুহূর্তে অর্থাৎ ৯২ মিনিটে ভুটানের জালে ছয় নাম্বার গোলটি লাল-সবুজের অধিনায়ক মারিয়া মান্ডা।

আগামী ১৭ ডিসেম্বর শুক্রবার ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ।

সাফ অনূর্ধ্ব-১৯ নারী চ্যাম্পিয়নশিপকে সামনে রেখে গেল অক্টোবর থেকে প্রস্তুতি নেয় বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন ও টেকনিক্যাল ডিরেক্টর পল স্মলির অধীনে দুই মাস অনুশীলন করেছে মারিয়া মান্ডা-আঁখি খাতুনরা।

যদিও করোনায় প্রায় দুই বছর বয়সভিত্তিক কোনো আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে খেলা হয়নি নারী ফুটবলারদের। এবার ঘরের মাঠে সাফ অনুর্ধ্ব-১৯ চ্যাম্পিয়নশিপ।

টুর্নামেন্টটা অনূর্ধ্ব ১৯ হলেও বাংলাদেশ দলে আছে জাতীয় দলের ১৫ জন খেলোয়াড়। তাই দলের কম্বিনেশনটাও বেশ মজবুত।

0Shares





Related News

Comments are Closed