Main Menu
শিরোনাম
শ্রীমঙ্গলে বার্ড পার্ক থেকে চারটি বন্যপ্রাণী উদ্ধার         গোলাপগঞ্জে ৩৩ কেন্দ্রে দেয়া হবে করোনার টিকা         শাহজালাল সার কারখানার ৩৯ কোটি টাকা আত্মসাত, দুদকের মামলা         সিলেটে জেলা-ব্র্যান্ডিং নিয়ে অনলাইন প্রশিক্ষণ কর্মশালা         গোলাপগঞ্জে ফ্রি অক্সিজেন সার্ভিসের উদ্বোধন         সেই প্রবাসী নারী লন্ডনের উদ্দেশ্যে সিলেট ছেড়েছেন         জগন্নাথপুরে স্বামীর মৃত্যুর কয়েক ঘন্টার মধ্যে স্ত্রীর মৃত্যু         গোলাপগঞ্জের শায়খ আব্দুল কুদ্দুছ আর নেই         সিলেটে করোনায় রেকর্ড ২০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৭১৫         ভোলাগঞ্জ দিয়ে ফের ভারত থেকে আসবে পাথর         বিশ্বনাথে বাঁশের সাঁকো আর সেতু হয় না         জকিগঞ্জে জুয়ার আসর থেকে গ্রেফতার ১২        

দেশে কারফিউ নিয়ে যা বললেন মির্জা ফখরুল

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: করোনায় সংক্রমণ ও মৃত্যুর প্রকৃত সংখ্যা সরকার গোপন করছে বলে মন্তব্য করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকারের পক্ষ থেকে প্রকাশিত সংখ্যার চেয়ে অনেক বেশি মানুষ প্রতিদিন আক্রান্ত হচ্ছে ও মারা যাচ্ছে।

রোববার (১১ জুলাই) দুপুরে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল এ মন্তব্য করেন।

এর আগে, শনিবার (১০ জুলাই) বিকেলে বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির ভার্চুয়াল বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ওই বৈঠকের সিদ্ধান্তের বিষয়গুলোই সংবাদ সম্মেলনে তুলে ধরেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সম্প্রতি ঢাকা জেলার সিভিল সার্জন ঢাকার সব হাসপাতালে সার্কুলার জারি করেছেন যে, কোনো চিকিৎসক করোনা সংক্রান্ত কোনো তথ্য কোনো সাংবাদিক, কোনো ব্যক্তি কিংবা সংস্থাকে অনুমতি ব্যাতিরেকে প্রদান করতে পারবে না। অর্থাৎ তারা যা প্রকাশ করতে চান তা-ই গণমাধ্যম বা ব্যক্তি জানতে পারবেন। এ সিদ্ধান্ত মুক্ত তথ্য নীতির বিরোধী। এই নির্দেশ প্রমাণ করে সরকার প্রকৃত তথ্য গোপন করতে চায়।’

সংবাদ সম্মেলন থেকেই এই নির্দেশ প্রত্যাহার করার আহ্বান জানান মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

করোনা নিয়ন্ত্রণে কারফিউ জারির প্রস্তাবনার বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিবের মন্তব্য জানতে চাইলে তিনি বলেন, করোনা মোকাবিলায় কারফিউ কোনো সমাধান নয়। এমনকি চলমান লকডাউনও সমাধান নয়। দরিদ্র মানুষদের নগদ অর্থ ও খাদ্য সহায়তা না দিলে লকডাউন দিলে তা কাজে আসবে না। তিনি বলেন, ধমক দিয়ে গরিব মানুষকে জেলে পুরলেই তো সমস্যার সমাধান হবে না।

মির্জা ফখরুল বলেন, ঠাকুরগাঁও সরকারি হাসপাতালে করোনা রোগীদের খাবার সরবরাহে অনিয়মের বিষয়ে সংবাদ পরিবেশন করায় ইনডিপেনডেন্ট টিভির স্থানীয় প্রতিনিধি তানভীরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। অভিযুক্ত ঠিকাদার স্থানীয় সংসদ সদস্য রমেশ চন্দ্র সেনের আত্মীয়। সাংবাদিককে গ্রেপ্তারের বিষয়টিকে গণমাধ্যমের তথ্য প্রচারের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ বলে মন্তব্য করে অবিলম্বে তার মুক্তি দাবি করেন ফখরুল।

মির্জা ফখরুল বলেন, সারা দেশে হাসপাতালগুলোতে পর্যাপ্ত আইসিইউ নেই, বেড নেই। সীমাহীন অনিয়ম, দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনার কারণেই করোনা পরিস্থিতি চরম আকার ধারণ করেছে।

 

0Shares





Related News

Comments are Closed