Main Menu
শিরোনাম
সিলেটে করোনায় কমেছে আক্রান্ত, সুস্থ আরো ১৮         সিলেটে নিখোঁজের ৩দিন পর উবার চালকের লাশ উদ্ধার         গোয়াইনঘাটে প্রতিপক্ষের হামলায় ১জন নিহত, আটক ৩         হবিগঞ্জে পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের অবস্থান কর্মসূচি         সিলেটে করোনায় আরো ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৫০         বড়লেখায় ‘পাগলা’ কুকুরের কামড়ে আহত ৫০         বিশ্বনাথে দুই খুনের মামলার আসামি গ্রেফতার         বিশ্বনাথে ঈদের জামাত হবে মসজিদে মসজিদে         সিলেটে করোনায় আরো ২ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ৫৩         সিলেটে শ্বশুড় বাড়িতে বেড়াতে এসে স্ত্রীকে খুন, স্বামী গ্রেপ্তার         সুনামগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১, আহত ৬         ওসমানীনগরে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার        

মায়ের মৃতদেহ ১০ বছর ধরে ফ্রিজে রেখেছিলেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মৃত মায়ের দেহ ১০ বছর ধরে ফ্রিজে রেখে দেওয়ার অভিযোগে জাপানে এক নারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রাজধানী টোকিওর এক অ্যাপার্টমেন্টের ফ্রিজ থেকে এক নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়। এর দুই দিন পর শুক্রবার ৪৮ বছর বয়সী ইয়ুমি ইয়োশিনোকে গ্রেফতার করে পুলিশ। খবর কিয়োদো নিউজ।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই লাশটি ১০ বছর আগে ফ্রিজের ভেতরে লুকিয়ে রেখেছিলেন বলে স্বীকার করেছেন ইয়োশিনো। ওই সময় বাইরে থেকে বাড়িতে ফিরে মাকে মৃত অবস্থায় পেয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন তিনি। এ ‍মৃত্যুর কথা জানাজানি হলে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ হতে পারেন আশঙ্কায় মায়ের লাশ লুকিয়ে ফেলেন বলে দাবি করেছেন ইয়োশিনো।

পৌরসভার হাউজিং কমপ্লেক্সের অ্যাপার্টমেন্টটি তার মায়ের নামে লিজ নেওয়া ছিল। ঋণের কিস্তি শোধ করতে না পারায় চলতি মাসের মাঝামাঝি ইয়োশিনোকে টোকিওর কাতুশিকা ওয়ার্ডের ওই অ্যাপার্টমেন্ট থেকে উচ্ছেদ করা হয়। তিনি বাড়ি ছেড়ে চলে যাওয়ার পর একজন ক্লিনার স্টোর রুমের একটি ফ্রিজের ভেতরে লাশটি দেখতে পান।

ধারণা করা হচ্ছে ওই সময় তার মায়ের বয়স ৬০ এর মতো ছিল বলে। ময়নাতদন্তে ওই নারীর মৃত্যুর কারণ ও সময় বের করা যায়নি। তার শরীরের কিছু অংশ জমাট বাঁধা অবস্থায় পাওয়া গেছে। পুলিশ জানিয়েছে, ফ্রিজের ভেতরে ঠিকমতো রাখার জন্য লাশটি বাঁকানো হয়েছিল, তবে এতে দৃশ্যমান কোনো আঘাতের চিহ্ন ছিল না।

গত ২৭ জানুয়ারী বুধবার লাশটি পাওয়ার পর ইয়োশিনোর কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে ২৯ জানুয়ারী শুক্রবার স্থানীয় সময় সকালে তদন্তকারীরা টোকিরও নিকটবর্তী চিবা শহরের একটি হোটেল থেকে তাকে গ্রেপ্তার করেন।

0Shares





Related News

Comments are Closed