Main Menu
শিরোনাম

ধান-চালের দর বেঁধে দেয়ার সুফল পাচ্ছে মানুষ: খাদ্যমন্ত্রী

মাহমুদুল হাসান, সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধি: সরকারী ভাবে ধান-চালের দর বেঁধে দেয়ার সুফল পাচ্ছে কৃষক, ভোক্তা সবাই, এমন মন্তব্য করেছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।

রোববার সকালে নওগাঁর সাপাহারে আমন ধান সংগ্রহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন- মওসুমের শুরুতে অনেকে সিন্ডিকেট করে কম দামে ধান কিনে কৃষকদের ঠকায়। এজন্য সরকারী ভাবে দর বেঁধে দিয়ে সংগ্রহ করা হয়। এবার নতুন আমন ধানে ভাল দাম পেয়ে খুশি কৃষক। এই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে বাজার দর ও মজুত পরিস্থিতির উপড় তীক্ষ্ন দৃষ্টি রাখা হয়েছে। প্রয়োজনে লক্ষ্য মাত্রার অতিরিক্ত ধান সংগ্রহ করবে সরকার।

মন্ত্রী আরো বলেন- সরকারী মুজুতের জন্য চাল আমদানি করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে তার পরিমান নির্ভর করছে বাজার দর স্থিতিশীলতার উপর। ধান-চালের বাজারে কাউকে সিন্ডিকেট করতে দেয়া হবে না। বেসরকারী ভাবে কেউ আমদানীর সুযোগ পাবেনা বলেও জানান মন্ত্রী।

চলতি মওসুমে সরকারী ভাবে মিলারদের কাছ থেকে ৬ লাখ মেট্রিক টন চাল ও কৃষকদের কাছ থেকে ২ লাখ মেট্রিক টন ধান সংগ্রহের লক্ষমাত্রা নির্ধারন করেছে সরকার। ৭ নভেম্বর ধান ও ১৫ নভেম্বর থেকে চাল সংগ্রহ শুরু হয়েছে।

অনুষ্ঠানে খাদ্য বিভাগ ও স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তা, জন প্রতিনিধি, কৃষক ও অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পরবর্তী সময়ে উপজেলা পরিষদ চত্বরে ৪২ তম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহের স্টল পরিদর্শন শেষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খাদ্য মন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি। ওই অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কল্যাণ চৌধুরী। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ¦ শাহজাহান হোসেন মন্ডল, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ¦ শামসুল আলম শাহ চৌধুরী, থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ তারেকুর রহমান সরকার প্রমূখ। অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি উপজেলার সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে ৬কোটি ২৫লক্ষ টাকা ব্যায় স্বাপেক্ষে একটি ৬তলা বিশিষ্ট অ্যাকাডেমিক ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন এবং উপজেলার তিলনা ইউনিয়নে ভুমিহীনদের জন্য বরাদ্দকৃত প্রধান মন্ত্রীর দেয়া নির্মানাধীন গৃহগুলি পরিদর্শন শেষে দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত দলীয় সভায় বক্তব্য প্রদান করেন।

 

0Shares





Related News

Comments are Closed