Main Menu
শিরোনাম
সিলেটে করোনায় আক্রান্ত বেড়ে ৮২৯৭, মৃত্যু ১৫১         সিলেটে দুই ল্যাবে আরো ৮৫ জনের করোনা শনাক্ত         সুনামগঞ্জে করোনায় আক্রান্ত ব্যবসায়ীর মৃত্যু         শাবির ল্যাবে আরও ৪৬ জনের করোনা শনাক্ত         নবীগঞ্জে দুলাভাই-শ্যালিকার পরকীয়ার বলী হলেন মা         শায়েস্তাগঞ্জে মোটরসাইকেল দূর্ঘটনায় নিহত ১         জাফলংয়ে আসা পর্যটকদের ফিরিয়ে দিচ্ছে প্রশাসন         বিশ্বনাথে দুই ছেলের হামলায় পিতা আহত         ধর্মপাশায় নৌকা ডুবে মা-ছেলেসহ ৩জনের মৃত্যু         ছাতকে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মাদ্রাসা ছাত্রের মৃত্যু         দলই চা বাগান খুলে দেয়ার দাবিতে মানববন্ধন         পল্লী বিদ্যুতের লোডশেডিং ও ভুতুড়ে বিল বন্ধের দাবি        

নিউইয়র্কে ইমিগ্র্যান্ট রাইট বিষয়ক ওয়ার্কশপ

প্রবাস ডেস্ক : নিউইয়র্কের ব্রঙ্কসে আয়োজিত এক ওয়ার্কশপে প্রবাসীদের ইমিগ্র্যান্ট রাইট বিষয়ক নানা পরামর্শ দেয়া হয়েছে। ওয়ার্কশপে নাগরিক সুবিধা, ইমিগ্রেশন অ্যান্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্ট- আইস এর সঙ্গে ইমিগ্রেন্টদের অধিকারসহ ইমিগ্রেশন বেনিফিট বিষয়ক নানা তথ্য তুলে ধরা হয়। ওয়ার্কশপে নাগরিক জীবন যাপন যেন সুন্দর, সহজ, শান্তিময় ও ঝামেলা মুক্ত হয় এমন কিছু গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শও দিয়েছে নিউইয়র্ক মেয়র অফিসের ইমিগ্রেন্ট এ্যাফিয়ার্স। নাগরিক জীবনে বাংলাদেশীদের নানা চ্যালেঞ্জ বা সমস্যা সমাধানের পথও বাতলে দেয়া হয় ওয়ার্কশপে।

ব্রঙ্কস বাংলাদেশী ইমিগ্র্যান্ট রাইটস ফোরামের আয়োজনে এবং নিউইয়র্ক সিটি মেয়র অফিসের ইমিগ্রেন্ট এ্যাফিয়ার্স ও বাংলাদেশ একাডেমি অব ফাইন আর্ট (বাফা) এর তত্তাবধানে গত ৩০ ডিসেম্বর সোমবার সন্ধ্যায় ব্রঙ্কসের স্টার্লিং এভিনিউতে বাফার কার্যালয়ে এ গুরুত্বপূর্ণ ওয়ার্কশপটি অনুষ্ঠিত হয়।

ওয়ার্কশপে ইমিগ্রেশন আইন, হাউজিং, সেন্সাস সহ ইমিগ্র্যান্ট রাইটের ওপর গুরুত্বপূর্ণ ও তথ্যবহুল আলোচনা করেন বিষয়গুলো সম্পর্কে অভিজ্ঞরা। প্যানেলিস্টদের মধ্যে ছিলেন নিউইয়র্ক সিটি মেয়র অফিসের ইমিগ্রেন্ট এ্যাফিয়ার্স’র বাংলাদেশী কর্মকর্তা তাহিতুন মারিয়াম, সেতুর তীর্থ দত্ত প্রমুখ। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বাফার প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন।

ওয়ার্কশপে ডকুমেন্টেড-আনডকুমেন্টেড অভিবাসীরা নিউইয়র্ক সিটি আইডি কিভাবে পাবেন এবং তা দিয়ে কি কি সুযোগ সুবিধা ভোগ করতে পারবেন, আনডকুমেন্টেডদের কেউ আইস’র হাতে গ্রেফতার হলে বা গ্রেফতার এড়াতে কি করবেন এবং ভাড়াটিয়াদের নিউইয়র্কে কি কি আইনগত অধিকার রয়েছে ইত্যাদি বিষয়ে অবহিত করা হয়।

তাহিতুন মারিয়াম বলেন, ইমিগ্রান্ট কান্ট্রি আমেরিকায় সবার সমানাধিকার। অবৈধ অভিবাসী বিতাড়নে ট্রাম্প প্রশাসনের নানাবিধ অভিযানে ভীত-সন্ত্রস্ত প্রবাসীদের উদ্দেশ্যে বলেন, অভিবাসনের এজেন্টরা দরজায় নক করলেও তা খোলা যাবে না। ভেতর থেকেই কথা বলতে হবে এবং নিযুক্ত এটর্নীর পরামর্শ ব্যতিত দরজা খোলা হবে না বলে এজেন্টদের জানিয়ে দিতে হবে। আর যদি রাস্তায় কাউকে আইস আটক করে কোন প্রশ্ন করে তাহলে তাদের কোন প্রশ্নের উত্তর দেয়া যাবে না। ইমিগ্রেশন আইনে বিশেষভাবে অভিজ্ঞ এটর্নীর পরামর্শ মত প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে হবে সংশ্লিষ্টদের।

এছাড়া ওয়ার্কশপে আইডি এনওআইসি নামে মেয়র অফিস থেকে যে আইডি ইস্যু করা হচ্ছে সবাইকে সেই আইডি গ্রহণ করার পরামর্শ দেয়া হয়। স্টেট আইডি থাকলেও এটা নিতে কোন সমস্যা নেই। ডকুমেন্টেড-আনডকুমেন্টেড সবাই এই এই আইডি নিতে পারে। এর কিছু সুবিধার কথা উল্লেখ করে বরা হয়, ফুড বাজার সুপার মার্কেটে ১০ শতাংশ ডিসকাউন্ট পাওয়া যাবে। এছাড়া ব্রঙ্কস জু-তে এ আইডি দেখালে ৪৫ ডলার টিকেট লাগবে না।

ওয়ার্কশপে ভাড়াটিয়াদের অধিকার সম্পর্কে বিস্তারিত জানিয়ে বলা হয়, এ্যাপার্টমেন্টে প্রতিবছর বাড়িওয়ালা শতকরা ৪ ভাগ বাড়িভাড়া বাড়াতে পারবে। এ্যাপার্টমেন্টে কোন কিছু ভেঙ্গে গেলে, দেয়ালে পানি চুয়ালে, বাথরুমে পানি না সরলে, হিট ঠিকমতো কাজ না করলে, গরম পানির ব্যবস্থা তা থাকলে, অগ্নি নির্বাপক ব্যবস্থা সক্রিয় না থাকলে, তেলাপোকা, ছারপোকা থাকলে প্রথমে তা সুপারকে জানাতে হবে। সুপার এসব সমস্যা সমাধান না করলে বাড়ির মালিক কে জানাতে হবে। তাতেও কাজ না হলে ৩১১ এ কল করে জানাতে হবে।

ওয়ার্কশপে তীর্থ দত্ত সেন্সাসের গুরুত্ব তুলে ধরে সকল বাংলাদেশীকে ২০২০ সালের সেন্সাসে অংশ নেয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, সকলে গণনার আওতায় আসলে রাষ্ট্র কতৃক প্রদেয় সকল সুযোগ-সুবিধা ভোগের সুযোগ পাবেন।

বাফার প্রতিষ্ঠাতা ফরিদা ইয়াসমিন আগত সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, এ ওয়ার্কশপের প্রধান উদ্দেশ্য হচ্ছে বাংলাদেশী অভিবাসীদের ইমিগ্র্যান্ট রাইট বিষয়ক তথ্য তুলে ধরা। যাতে কমিউনিটির মানুষ প্রচলিত আইন এবং বিধানের আওতায় সর্বোচ্চ নাগরিক সুবিধা ভোগ করতে পারেন। উপকৃত হতে পারেন। ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, কমিউনিটির সহায়তার জন্য এ ধরনের ওয়ার্কশপের গুরুত্ব অপরিসীম। ইমিগ্রান্টদের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধার কথা বিবেচনা করে ভবিষ্যতেও এ ধরনের ওয়ার্কশপের আয়োজন করা হবে।

পরে বিশেষজ্ঞরা দর্শকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। সকলের জন্য উম্মুক্ত এ ওয়ার্কশপে কমিউনিটি এক্টিভিস্টসহ বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি অংশগ্রহণ করেন।

0Shares





Related News

Comments are Closed