Main Menu

৯ বছরের তাওহিদা ক্যান্সার থেকে বাঁচতে চায়

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক : প্রতি সপ্তাহে একবার ক্লিনিকে ভর্তি হতে হয় ৯ বছরের শিশু তাওহিদা আক্তারকে। প্রতি মাসেই তার শরীরের রক্ত পরিবর্তন করতে হয়। এই ছোট্ট শিশুর শরীরে বাসা বেঁধেছে ঘাতকব্যাধি ক্যান্সার। সেটি সারাতে প্রতি মাসে রক্ত বদল করাতে হচ্ছে, এমন যন্ত্রণা নিয়ে প্রায় তিন বছর ধরে জীবন কাটাচ্ছে সে। আরও কতদিন এভাবে থাকতে হবে, তা জানে না কেউ।

তাওহিদা আক্তারের বাড়ি সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলার রাধানগর গ্রামে। তার বাবা আলী হোসেন একজন মধ্যপ্রাচ্য প্রবাসী । মধ্যপ্রাচ্যে কাজ করে জীবন নির্বাহ ও মেয়ের চিকিৎসা করানোয় আলী হোসেন এখন সর্বস্বান্ত। ছোট্ট মেয়ের চিকিৎসা করাতে ধার-কর্জ আর বসতভিটা বিক্রি করে এবং অনেকের সহায়তায় অন্তত ৯ লাখ টাকা খরচ করেছেন তিনি।

তাওহিদার মা মাশকুরা বেগম জানান, মেয়ের চিকিৎসার অনেক টাকার দরকার। আত্মীয়-স্বজন শুভাকাঙ্খিরা বিভিন্নভাবে সহায়তা করছেন। না হলে চিকিৎসা বন্ধ হয়ে যেত। তার চিকিৎসা চালাতে আরও অর্থের দরকার। তাই যদি হৃদয়বানরা তাওহিদার চিকিৎসায় এগিয়ে আসেন তাহলে হয়তো বাঁচতে পারে ফুটফুটে এই শিশুটি।

সিলেটের জালালাবাদ রাগীব রাবেয়া মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক ক্যান্সার ও টিউমার বিশেষজ্ঞ ডাঃ মোঃ ইশতিয়াক আলম (রাসেল) বলেন, শিশুটির বনমেরু ট্রান্সফার না করলে শিশুটিকে বাঁচানো অসম্ভব।

তাওহিদার মা মাশকুরা বেগম বলেন, সরকারিভাবে বনমেরু ট্রান্সফার করতে হলে ৮ লক্ষ টাকার প্রয়োজন। যোগাযোগ ও সহায়তা পাঠানোর ঠিকানা: মাশকুরা বেগম, একাউন্ট নং ২০১১৫১০১৩৪৩৯০, ডাচ্ বাংলা ব্যাংক, আম্বরখানা শাখা, সিলেট। ০১৭১০-৪৪৫ ৮৯৮ (বিকাশ)।-বিজ্ঞপ্তি

0Shares





Related News

Comments are Closed