Main Menu

বিয়ে করতে বরের বাড়িতে ‘কনেযাত্রী’

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: বিয়ে সাধারণত হয় কনের বাড়িতে। বরযাত্রী নানা বর্ণাঢ্য আড়ম্বরে কনের বাড়িতে যায় বিয়ের আনুষ্ঠানিকতার জন্য। কিন্তু বরের বাড়িতে যাত্রী নিয়ে বিয়ে করতে গেলেন কনে; এমনটা সম্ভবত আগে শোনা যায়নি। প্রথা ভেঙে বিয়ের এমন ঘটনাই ঘটলো ভারতের মধ্যপ্রদেশে।

মধ্যপ্রদেশের সাতনা জেলার এক তরুণী এমন করেই বিয়ে করেছেন। যুগের হাওয়া বদল আর নারী স্বাধীনতার এই সময়ে বিয়ের প্রথাতেও যে পরিবর্তন আসছে এটাই তার উদাহরণ। তবে শুধু বর-কনে নয় বিয়ের এমন সিদ্ধান্তে সম্মতি ছিল উভয় পরিবারের।

ঘটনাটি গত ১৯ এপ্রিলের। বিয়ের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, ঢাক-ঢোল পিটিয়ে ছাদ খোলা গাড়িতে ঢোলের তালে নেচে বরের বাড়িতে গিয়ে বিয়ে করেছেন ওই তরুণী।

স্থানীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, কনের নাম গরিমা গুপ্ত। গরিমা তার পরিবারের সবচেয়ে ছোট মেয়ে। তাই তার আবদার মতো বিয়েতে চমক হিসেবে অভিনব এই আয়োজন। তাতে বর ও কনে উভয় পক্ষের পরিবারও খুশি।

গরিমা গুপ্ত তার পরিবারের সবাইকে নিয়েই বিয়ে করতে যান। বরের বাড়ির উদ্দেশে ‘কনেযাত্রীর’ সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করতেই তুমুল আলোচনা শুরু হয়। ভিডিওটি খুব অল্প সময়ের মধ্যেই ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে।

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, নানা রকমের ফলু দিয়ে সজ্জিত একটি জিপ গাড়িতে করে যাচ্ছেন কনে। তার পেছনে বসে আছেন কনের বান্ধবী ও বোনেরা। কনে বসেছেন জিপের বনেটে। সানগ্লাস ঢোলের তালে কোমর দোলাচ্ছেন। সঙ্গে আছেন তার আত্মীয়স্বজন ও বন্ধু-বান্ধবরা।

ভিডিও দেখুন-

बोनट पर सवार होकर बारात लेकर आई दिलवाली दुल्हनिया

बोनट पर सवार होकर बारात लेकर आई दिलवाली दुल्हनियासतना। कुछ अलग और पूरी जिंदगी याद को संजोकर रखने की तमन्ना में शहर की एक लडकी ने वह कर दिया जो विंध्य के लिए अचंभा हो गया। अब तक टिकटॉक पर वीडियो को देखते आ रहे शहर के लोगों के लिए यह वीडियो भी किसी फिल्मी सीन से कम नहीं है।

Posted by Satna patrika on Saturday, 20 April 2019
0Shares





Related News

Comments are Closed