Main Menu

যুবলীগ নেতার হামলায় আহত ফটোসাংবাদিক মামুন, হাসপাতালে ভর্তি

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: জাতীয় দৈনিক খবরের কাগজের সিলেট অফিসের ফটোসাংবাদিক মামুন হোসেনের ওপর হামলা করেছে সিলেট জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল ইসলাম রেজা।

মঙ্গলবার (১২ মার্চ) বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে নগরীর মদিনা মার্কেট এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।

মামুনের অভিযোগ, হামলার পাশাপাশি যুবলীগ নেতা রেজাউল ইসলাম রেজা সাংবাদিক মামুন হোসেন ও তার পরিবারকে এলাকা থেকে বিতাড়িত করার হুমকি দেন।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার প্রথম রমজানের ইফতার কিনতে মদিনা মার্কেট এলাকার একটি দোকানে যান মামুন হোসেন। দোকানে অনেক মানুষের ভিড় ছিল। এসময় সিলেট জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউর রহমান রেজা ও তার সঙ্গীরা এসে অতর্কিত হামলা চালায় সাংবাদিক মামুন হোসেনের ওপর। এসময় অন্যরা সাংবাদিক মামুন হোসেনকে রক্ষার চেষ্টা করলে রেজা আরও ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে, এবং সঙ্গীদের নিয়ে মামুন হোসেনকে আঘাত করে।

মামুন হোসেনের পরিবার সূত্রে জানা যায়, রমজানের ইফতারের ছবি তোলার জন্য মামুন হোসেন বিকাল চারটায় বাসা থেকে বের হন। এরপর জিন্দাবাজার, বন্দরবাজারসহ বেশ কয়েকটি এলাকার ইফতারের ছবি তুলে মদিনা মার্কেট এলাকায় এসে ছবি তুলেন। তার বাসা মদিনা মার্কেট এলাকায় হওয়ায় এরপর তিনি ভিড় থাকা একটি দোকানে ইফতারি কিনতে যান। হঠাৎ সেখানে থাকা সিলেট জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল ইসলাম রেজা এসে তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন।

ঘটনায় হতবাক মামুন হোসেন তাকে ধাক্কা দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে যুবলীগ নেতা ও তার সঙ্গীয়রা ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে শারীরিকভাবে আঘাত করেন। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে বাসায় নিয়ে আসেন। বর্তমানে তিনি সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ ব্যাপারে মামুন হোসেনের স্ত্রী সাংবাদিক শাকিলা ববি বলেন, এটা বিচ্ছিন্ন কোনো ঘটনা বলে মনে হচ্ছে না। কারণ এখানে অন্য মানুষজনও ছিলেন। তাদের রেখে কেন মামুন হোসেনের ওপর হামলা করবে ওই যুবলীগ নেতা ও তার সঙ্গীরা?

শাকিলা ববি আরও বলেন, সাংবাদিক শোনার পর হামলাকারী আরও ক্ষিপ্ত হয়। এই হামলা ইচ্ছাকৃতভাবে হয়েছে বলে ধারণা করছি। কারণ আমরা বিভিন্নসময় চোরাকারবারি, চাঁদাবাজ রাজনৈতিক নেতাসহ তাদের নানা অপকর্ম নিয়ে নিউজ করি। এটাও আগের কোনো নিউজের রেশের কারণে ঘটতে পারে। রেজা হুমকি দিয়েছে আমাদের এই এলাকায় থাকতে দেবে না। বাসায় এসে হামলা করবে। এখন আমি আমার ছোট মেয়ে নিয়ে বাসায় থাকি। এমন অবস্থায় আমরা নিরাপত্তাহীনতায় আছি।

সাংবাদিক সংগঠনের নিন্দা
দৈনিক খোলা কাগজ সিলেট অফিসের আলোকচিত্রী ও বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন (বিপিজেএ) সিলেট বিভাগীয় কমিটির সদস্য মামুন হোসেনের উপর সিলেট জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল ইসলাম রেজা কর্তৃক হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন (বিপিজেএ) সিলেট বিভাগীয় কমিটির নেতৃবৃন্দ।

এক বিবৃতিতে অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আব্দুল বাতিন ফয়সল ও সাধারণ সম্পাদক মো. নুরুল ইসলাম বলেন, মামুন হোসেন সিলেটের একজন কর্মদক্ষ মেধাবী পরিশ্রমী ফটো সাংবাদিক। তিনি পেশাগত দায়িত্ব অত্যন্ত গুরুতের সাথে পালন করে থাকেন। তার মতো একজন পরিচ্ছন্ন মেধাবী ফটোসাংবাদিকের উপর হামলা অত্যন্ত ন্যাক্কারজনক। হামলার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে হামলাকারী সিলেট জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল ইসলাম রেজার বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানাচ্ছি।

Share





Related News

Comments are Closed