Main Menu

একাত্তরের কথা’র প্রকাশকসহ ৩ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: দৈনিক একাত্তরের কথার প্রকাশক নজরুল ইসলাম বাবুল, উপসম্পাদক মঈন উদ্দিন, বার্তা সম্পাদক সাঈদ চৌধুরী টিপু, স্টাফ ফটোজার্নালিস্ট মিঠু দাস জয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন সিলেট জেলা অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি জাকারিয়া আহমদ। গত ২৭ অক্টোবর সিলেটের সাইবার ট্রাইব্যুানালে এ অভিযোগ দায়ের করেন তিনি।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়েরকৃত অভিযোগে বিবাদি হিসেবে আরো ৪ জনের নামোল্লেখ করা হয়। এছাড়া একটি ফেসবুক আইডির নামোল্লেখের পাশাপাশি অভিযোগে অজ্ঞাত আরও ৩/৪ জনকে বিবাদি করা হয়।

নজরুল ইসলাম বাবুল দৈনিক একাত্তরের কথা পত্রিকার প্রকাশনার পাশাপাশি সিলেটের একজন প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী। তিনি দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ড্রাস্ট্রির পরিচালক ও ফিজা এন্ড কোং-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক।

একাত্তরের কথার উপসম্পাদক মঈন উদ্দিন সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহসভাপতি, তিনি দীর্ঘ দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে পেশাদারি সাংবাদিকতার সাথে জড়িত।

একাত্তরের কথার বার্তা সম্পাদক সাঈদ চৌধুরী টিপু সিলেটের একজন সিনিয়র সাংবাদিক এবং দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

একাত্তরের কথার স্টাফ ফটোজার্নালিস্ট মিঠু দাস জয় সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের ভারপ্রাপ্ত প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদকের দায়িত্বে আছেন; পাশাপাশি তিনি দৈনিক মানবকণ্ঠ পত্রিকার সিলেট ব্যুরো প্রধানের দায়িত্বেও রয়েছেন।

তাদের এ সকল পরিচয়কে অবজ্ঞা করে অভিযোগে- বলা হয়েছে তাদের নির্দিষ্ট কোনো পেশা নেই।

প্রসঙ্গত, গত ৪ অক্টোবর থেকে দৈনিক একাত্তরের কথা’য় সিলেটের পরিবহন সেক্টরে নৈরাজ্য, অনিয়ম, পরিবহন ধর্মঘটের নামে জনভোগান্তির কারণ অনুসন্ধানে ৫ পর্বের ধারাবাহিক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

৫ অক্টোবর ‘সিলেটের পরিবহন সেক্টরের ভেতর-বাহির’ শীর্ষক অনুসন্ধানের দ্বিতীয় পর্বে ‘জাকারিয়া : তিন চাকার মাফিয়া’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। ওই প্রতিবেদনে উঠে আসে সিলেট জেলা অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের অনিয়মের নানা বৃত্তান্ত।

এরই প্রেক্ষিতে আদালতে মামলা দায়ের করেন জাকারিয়া আহমদ। আদালত তার অভিযোগ আমলে নিয়ে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগকে (সিআইডি) তদন্তের নির্দেশ দেন।

0Shares





Related News

Comments are Closed