Main Menu
শিরোনাম
সিলেটে আরো ১৩ জনের করোনা শনাক্ত, সুস্থ ২০         সুনামগঞ্জে উদ্বোধনের আগেই ভেঙে পড়লো সেতু!         হবিগঞ্জে আ.লীগ প্রার্থী সেলিম বিজয়ী         সিলেটে দুর্ঘটনাস্থলে কাফনের কাপড় পড়ে অবরোধ, ৫ দাবি         সিলেটে দুই বাসের সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৮         সিলেটে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ৭         মাধবপুরে গার্মেন্টসকর্মীকে ধর্ষণ         শপথ নিলেন গোলাপগঞ্জ পৌর মেয়রসহ নির্বাচিত কাউন্সিলররা         রাজনগরে ৪০০ আ.লীগ নেতাকর্মীর নামে মামলা         কানাইঘাটে আ.লীগের লুৎফুর রহমান মেয়র নির্বাচিত         চুনারুঘাটে আ.লীগের রুবেল মেয়র নির্বাচিত         বিশ্বনাথে প্রতারণা মামলায় প্রবাসী কারাগারে        

মেয়ের নগ্ন ছবি পাঠাতো যুবককে, অতঃপর…

বিচিত্র ডেস্ক: তিনি জন্মদাত্রী মা। একজন মা হিসেবে মেয়ের দেখভাল, ভালোমন্দ এমনকি যেকোনও আপদে-বিপদেও মেয়েকে আগলে রাখাই তো মায়ের স্বভাবজাত বৈশিষ্ট্য। কিন্তু তিনি এক্ষেত্রে আলাদা। মায়েরা যেখানে মেয়েদের সম্ভ্রম রক্ষায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন সেখানে এই নারী নিজের মেয়ের বিবস্ত্র ছবি একজন যুককে পাঠাতেন।

মেয়ের নগ্ন ছবি পাঠিয়ে সেই যুবককে উত্তেজিত করতে চাইতেন ওই পাষণ্ড মা। বিষয়টি জানাজানি হলে সেই মায়ের ৩৫ বছরের কারাদণ্ড হয়।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলের খবরে বলা হয়েছে, লিন্ডা পাওলিনি (৪৫) নামে ওই নারী যুক্তরাষ্ট্রের ফিলাডেলফিয়ার বাসিন্দা। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি নিজের মেয়ের নগ্ন ছবি পাঠিয়ে যুবককে বোঝানোর চেষ্টা করতেন, বিবস্ত্র ছবিটি আসলে তারই।

এক পর্যায়ে সেই যুবককে প্রলোভন দেখিয়ে পর্নোগ্রাফি তৈরি করেছিলেন ওই নারী। যুবকটির ধারণা ছিল, ১৬ বছরের কোনও মেয়ের সাথে কথা বলছে সে। নিজের মেয়ের ছবি পাঠিয়ে লিন্ডা ওই যুবককে বোঝাতে চেয়েছিলেন, যুবকের প্রতি তার আকর্ষণ রয়েছে।

কিন্তু লিন্ডার মেয়ে বিষয়গুলোর কোনও কিছুই টের পাননি। এছাড়া অনলাইনে চ্যাট করার মিথ্যা আত্মহত্যার ভয় দেখায় ওই যুবককে। তাতে যুবকটি আত্মহত্যার চেষ্টা করে।

লিন্ডাকে সাজা দেয়া আদালতের বিচারক বলছিলেন, পরিকল্পিতভাবে এমন জঘন্য অপরাধ করেছেন ওই নারী। ওই যুবককে নগ্ন ছবি পাঠাতে বাধ্য করেছিলেন। শেষ কয়েক মাস তাদের মধ্যে প্রায় ৫০ হাজার বার্তা আদান-প্রদান হয়েছে। ইনস্টাগ্রামের মাধ্যমে এসব নগ্ন ছবি যুবককে পাঠাতেন লিন্ডা।

তবে পুলিশের দাবি, লিন্ডা মানসিকভাবে অসুস্থ। ওই যুবক ছাড়াও আরও দুজন পুরুষের সঙ্গে এমন মেসেজ আদান-প্রদান করতেন এ নারী।

 

0Shares





Related News

Comments are Closed