Main Menu
শিরোনাম

সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন

বৈশাখী নিউজ ২৪ ডটকম: উৎসবমুখর পরিবেশে সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (১২ ডিসেম্বর) দুপুর দুইটা থেকে বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত নগরীর জিন্দাবাজারস্থ ক্লাব কার্যালয়ে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ক্লাবের সদস্যরা উৎসাহ উদ্দীপনায় গোপন ব্যালটের মাধ্যমে আগামী দুই বছরের জন্য তাদের নেতৃত্ব নির্ধারণ করেছেন।

নির্বাচনে ১৫টি পদের মধ্যে আজাদ-ছামির পরিষদ থেকে ১২ প্রার্থী এবং অপূর্ব-নাসির পরিষদ থেকে ৩ প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন।

সভাপতি পদে আল আজাদ ৬১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী অপূর্ব শর্মা পেয়েছেন ৩৭ ভোট। সহ-সভাপতি (১ম) পদে মঈন উদ্দিন ৫১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী মনোয়ার জাহান চৌধুরী পেয়েছেন ৪৪ ভোট। সহ-সভাপতি (২য়) পদে এস সুটন সিংহ পেয়েছেন ৫২ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী ফয়ছল আহমদ মুন্না পেয়েছেন ৪১ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে ছামির মাহমুদ ৫৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী নাসির উদ্দিন পেয়েছেন ৩৩ ভোট। সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে সৈয়দ রাসেল পেয়েছেন ৫৩ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী আজমল খান পেয়েছেন ৪৬ ভোট। কোষাধ্যক্ষ পদে মিসবাহ উদ্দিন আহমদ পেয়েছেন ৩৬ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী সাদিকুর রহমান সাকি পেয়েছেন ৩০ ভোট। অপর দুই প্রতিদ্ব›দ্বী রবি কিরণ সিংহ (মাই¯œাম রাজেশ) পেয়েছেন ২৪ এবং ইমরান আহমদ পেয়েছেন ৮ ভোট। ক্রীড়া ও সংস্কৃতি সম্পাদক পদে শংকর দাস ৫৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী আবু বকর পেয়েছেন ৪১ ভোট। প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নুরুল হক শিপু পেয়েছেন ৫০ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী রাহুল তালুকদার পাপ্পু পেয়েছেন ৪৫ ভোট। তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক পদে সুলতান আহমদ পেয়েচেন ৬১ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী এমএ মালেক পেয়েছেন ৩১ ভোট। পাঠাগার সম্পাদক পদে মঞ্জুর হোসেন খান পেয়েছেন ৪১ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী নুরুল ইসলাম পেয়েছেন ৩৩ ভোট। অপর প্রার্থী আলী আকবর চৌধুরী কূহিনুর পেয়েছেন ২০ ভোট। দপ্তর সম্পাদক পদে এসএম রফিকুল ইসলাম সুজন পেয়েছেন ৬৩ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী শেখ মো. লূৎফুর রহমান পেয়েছেন ৩১ ভোট।

নির্বাহী সদস্য পদে ইউসুফ আলী ৬৮ ভোট, মাহমুদ হোসেন ৫৪ ভোট, মিঠু দাস জয় ৪৫ ও আমিনুল ইসলাম রোকন ৩৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। সদস্য পদে আমিনুল ইসলাম রোকন ৩৯ এবং আব্দুল আহাদ সমান ৩৯ ভোট পেয়েছিলেন। পরে লটারীর মাধ্যমে নির্বাচিত হন আমিনুল ইসলাম রোকন।
অপর প্রার্থীদের মধ্যে শফিকুল ইসলাম শফি পেয়েছেন ২৯ ভোট, রায়হান উদ্দিন ২৮ এবং একরাম হোসেন ১৮ ভোট পেয়েছেন।

এদিকে দুপুর থেকে শুরু হওয়া নির্বাচন কার্যক্রম পরিদর্শন করেন সিলেটের বিভিন্ন শ্রেণিপেশার প্রতিনিধিরা। সিলেট সিটি করপোরেশন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন খান, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন, মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা বিজিত চৌধুরী, আরমান আহমদ শিপলু, মহানগর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এমদাদ হোসেন চৌধুরী, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাহি উদ্দিন আহমদ সেলিম, সিলেট বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি আব্দুল জব্বার জলিল, জ্বালানি ও পেট্রোলিয়াম ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় মহাসচিব জুবায়ের আহমদ চৌধুরী, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার আজবাহার আলী শেখ, রেঞ্জ পুলিশের সুপারিটেন্ডেন্ট জেদান আল মুসা, এসএমপির অতিরিক্ত উপ-কমিশনার সুদীপ দাস, জেলা পুলিশের অতিরিক্ত সুপার লুৎফুর রহমান, সাইফুল ইসলাম, উইমেন্স চেম্বারের সভাপতি স্বর্ণলতা রায়, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, সিলেট’র সভাপতি মিশফাক আহমদ চৌধুরী মিশু, কোতয়ালি থানার সহকারী পুলিশ কমিশনার শামসুল ইসলাম, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সেলিম মিয়া, বিএনপি নেতা লোকমান আহমদ, জেলা যুবলীগের সভাপতি শামীম আহমদ, সাধারণ সম্পাদক মো. শামীম আহমদ, মহানগর যুবলীগের সভাপতি আলম খান মুক্তি, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক দেবাংশু দাস মিঠু, রোজভিউ হোটেলের সেলস প্রধান ডাল্টন জাহির।

মিডিয়া ব্যক্তিত্বদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- দৈনিক একাত্তরের কথার প্রকাশক ও জেলা প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা নজরুল ইসলাম বাবুল, সম্পাদক চৌধুরী মোহাম্মদ মমতাজ, ইমজা সিলেট’র সভাপতি মাহবুবুর রহমান রিপন, সাধারণ সম্পাদক সজল ছত্রী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আলিম শাহ, অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহিত চৌধুরী, ক্রীড়ালেখক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আহবাব মোস্তফা খান প্রমুখ।

0Shares





Related News

Comments are Closed