Main Menu

বরিশালে প্রবাসীর বাড়ি থেকে ৩ জনের লাশ উদ্ধার

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক : বরিশালের বানারীপাড়ায় কুয়েত প্রবাসী হাফেজ আব্দুর রবের বাড়ি থেকে তিনজনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এর মধ্যে ঘরের বারান্দায় তার মা, অন্য ঘরে ভগ্নিপতি এবং পুকুরে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় তার খালাতো ভাইয়ের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার সকালে উপজেলার সলিয়াবাকপুর গ্রাম থেকে নিহতদের লাশগুলো উদ্ধার করা হয়। নিহতরা হলেন- কুয়েত প্রবাসী হাফেজ আব্দুর রবের বৃদ্ধ মা মারিয়াম বেগম (৭০), ভগ্নিপতি মো. সফিকুল আলম (৭৫) ও খালাতো ভাই মো. ইউসুফ (১৮)।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বানারীপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শিশির কুমার পাল জানান, কুয়েতের একটি মসজিদের ইমাম হাফেজ আব্দুর রবের বৃদ্ধ মা মরিয়মসহ ওই তিনজন রাতের খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। শুক্রবার গভীর রাতে দুর্বৃত্তরা প্রবাসীর একতলা বাড়িতে ঢুকে তাদের হত্যা করে মরদেহ ফেলে রেখে যায়।

পরে ঘরের বেলকনি থেকে আব্দুর রবের বৃদ্ধ মায়ের মরদেহ এবং একটি কক্ষ থেকে তার ভগ্নিপতির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ছাড়া রবের খালাতো ভাইয়ের ‌মরদেহ হাত-পা বাঁধা অবস্থায় বাড়ির পিছনের পুকুর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

ওসি বলেন, ওই বাড়ির সব ঘরের দরজা জানালা বন্ধ ছিল, শুধু ছাদের দরজা খোলা পাওয়া যায়। ধারণা করা হচ্ছে, দুর্বৃত্তরা আগে থেকেই সেখানে উপস্থিত ছিলেন। হত্যাকাণ্ডের পর তারা ছাদ দিয়ে পালিয়ে গেছেন। নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, ‌‘কোনো লাশের শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন দেখা যায়নি। এটা কোনো ডাকাতির ঘটনা নয়, পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড হিসেবেই দেখা হচ্ছে।’

রাতে ওই বাড়িতে সাতজন ছিলেন জানিয়ে পুলিশ সুপার বলেন, মরিয়মের সঙ্গে তার কলেজ পড়ুয়া এক নাতনি ঘুমিয়েছিলেন। রাতে তার ঘুম ভাঙলে ‘দাদিকে পাশে না দেখে’ খুঁজতে গিয়ে অন্য ঘরের বারান্দায় তাকে পড়ে থাকতে দেখেন। এ সময় তিনি পরিবারের অন্য সদস্যদের বিষয়টি জানান। পরিবারের সদস্যরা অন্য ঘরে সফিকুলের লাশ পান। এ ছাড়া বাড়ির পাশের পুকুরে পানির মধ্যে ইউসুফের লাশ পাওয়া যায়।

জমিজমার বিরোধ বা পারিবারিক কোনো বিরোধে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে থাকতে পারে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর কীভাবে এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে তা বোঝা যাবে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

0Shares





Related News

Comments are Closed