Main Menu

টানা বৃস্টিতে সিলেটে জলাবদ্ধতা, দুর্ভোগে মানুষ

বৈশাখী নিউজ ২৪ ডটকম: সোমবার দিবাগত রাত থেকে থেমে থেমে টানা বৃষ্টিতে সিলেট নগরীর বিভিন্ন স্থানে জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে। অনেক স্থানে ড্রেনের উন্নয়ন কাজ চলমান থাকায় পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। যার ফলে নগরীর বিভিন রাস্তার মধ্যে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হতে দেখা গেছে।

মঙ্গলবার বিকেলে নগরীর বিভিন্ন স্থানে ঘুরে দেখা গেছে, মদিনা মার্কেট, হাওয়াপাড়া, খাসদবির, উপশহর, শিবগঞ্জ, টিলাগড়, লন্ডনী রোড, সুবিদবাজার, পাঠানটুলা, দাড়িয়াপাড়া, জামতলা, চৌহাট্টার সড়ক ও জনপদ অফিসের সামনে, নয়াসড়ক, ছড়ারপাড়, পুরানলেন, শেখঘাট, ঘাসিটুলা, কলাপাড়া, ভাতালিয়া, উপশহর, জিন্দাবাজার সিটি মার্কেটের সম্মুখসহ নগরীর বেশকিছু এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হযেছে।

বৃষ্টিতে নগরীর লন্ডনি রোড থেকে মদিনা মার্কেট এলাকা একেবারে জলমগ্ন হয়ে পড়ে। পানিতে ডুবে যায় সড়ক।

এদিকে বৃষ্টির কারণে জনজীবনও স্থবির হয়ে পড়েছে। বৃষ্টির কারণে স্কুল-কলেজে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিও ছিল কম। নগরীর বিপনীবিতানগুলোতে ক্রেতার সমাগম কম ছিল। বিভিন্ন অফিস আদালতে অন্যান্য দিনের তুলনায় মানুষের উপস্থিতি ততোটা ছিল না।

এছাড়া, বৃষ্টির কারনে বিপাকে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। অন্যদিনের চেয়ে আজ যানবাহনের পরিমাণ তুলনামূলকভাবে কম। গন্তব্যে যেতে অনেক কষ্টে জায়গা হচ্ছে রিকশা কিংবা সিএনজি অটোরিকশাতে। এতে অন্যদিনের চেয়ে ভাড়া দিতে হচ্ছে বেশি।

সিলেট সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিধায়ক রায় চৌধুরী বলেন, ‘সিলেট নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসনে ছড়া ও খাল উদ্ধার করা হয়েছে। এর পাশাপাশি নতুন ড্রেন নির্মাণের কাজ চলছে। এতে জলাবদ্ধতা অনেকটাই নিরসন হবে।’

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, আগামী কয়েকদিনই সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হতে পারে। পুরো সপ্তাহজুড়েই থেমে থেমে বৃষ্টি থাকবে। বৃষ্টি হবে কোথাও ভারী আবার কোথাও হালকা।

মৌসুমী বায়ুর প্রভাবেই এমনটা ঘটবে বলে আবহাওয়া অধিদফতরের খবরে বলা হয়েছে।

দেশের উপকূলীয় অঞ্চলে মৌসুমী বায়ু অবস্থান করছে জানিয়ে আবহাওয়াবিদ আবুল কালাম মল্লিক বলেন, মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে আগামী কয়েকদিন বৃষ্টি হবে। অক্টোবর মাসের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত এই বৃষ্টি থাকতে পারে।

আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, মৌসুমী বায়ুর অক্ষের বর্ধিতাংশ বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তরপূর্ব বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল থেকে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

0Shares





Related News

Comments are Closed