Main Menu

গোলাপগঞ্জে চেয়ারম্যান প্রার্থী জাবেদের গাড়ি ভাঙচুর, শারীরিকভাবে লাঞ্ছনার অভিযোগ

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহিদুর রহমান চৌধুরী জাবেদের গাড়িতে হামলা ও তাঁকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছনার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার (৭ মে) দিবাগত মধ্যরাতে এ ঘটনা ঘটে।

তিনি তাঁর ফুফুশাশুড়ির বাড়ি থেকে স্ত্রীকে নিয়ে নিজের বাড়ি ফিরছিলেন। পথিমধ্যে রাত সাড়ে ১২টার দিকে গোলাপগঞ্জের ফুলবাড়ি এলাকায় ১০-১৫ জন জাবেদের গাড়ি থামিয়ে তাঁকে এবং তাঁর গাড়িচালককে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন। পরে তিনি স্ত্রীকে নিয়ে পাশের একটি বাড়িতে গিয়ে হামলাকারীদের হাত থেকে রেহাই পান।

এসময় হামলাকারীরা জাবেদের গাড়ি ভাঙচুর করে। পরে তিনি থানায় গিয়ে মৌখিক অভিযোগ দিয়ে আসেন। বুধবার (৮ মে) দিনে তিনি লিখিত অভিযোগ দিবেন বলে জানিয়েছেন।

সিলেট জেলার ৪ উপজেলায় আজ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য শাহিদুর রহমান চৌধুরী জাবেদ ঘোড়া প্রতীক নিয়ে গোলাপগঞ্জ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

হামলার পর জাবেদ সাংবাদিকদের বলেন- হামলাকারীদের কয়েকজনকে তিনি চিনতে পেরেছেন। তারা সবাই বর্তমান গোলাপগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মঞ্জুর কাদির শাফি এলিমের কর্মী-সমর্থক। বর্তমান চেয়ারম্যান এলিম এবারও চেয়ারম্যান প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তিনি লড়ছেন দোয়াত-কলম প্রতীক নিয়ে।

জাবেদ বলেন- বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মঞ্জুর কাদির শাফি এলিমের কর্মী-সমর্থকরাই আমার গাড়িতে হামলা করে ভাঙচুর করেছে। আমাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেছে, আমার গাড়িচালককে মারধর করেছে। আমি একটি বাড়িতে দৌঁড়ে গিয়ে প্রাণে বেঁচেছি। আমি উপজেলাবাসীর কাছে এর বিচার দিলাম। তারা যেন আজ ব্যালটের মাধ্যমে এর রায় দেন।

তিনি আরও বলেন- দু-তিন আগে আমাদের আরেক প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আবু সুফিয়ান উজ্জ্বলের (আনারস প্রতীক নিয়ে লড়ছেন) উপরও হামলা হয়েছে। এভাবে প্রকাশ্যে বর্তমান চেয়ারম্যানের কর্মীসমর্থকরা একের পর এক সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করে যাচ্ছেন। আমার উপর হামলার ঘটনায় আমি বুধবার দিনে থানায় লিখিত অভিযোগ দিবো।

এদিকে, খবর পেয়ে শাহিদুর রহমান চৌধুরী জাবেদের কয়েক শ কর্মী-সমর্থক রাতে তার বাড়িতে জড়ো হন। তবে তিনি তাদের শান্ত থাকতে এবং কোনো বিশৃঙ্খলা না ঘটাতে পরামর্শ দেন।

Share





Related News

Comments are Closed