Main Menu

সিলেটে লেবার সর্দার আজিজ হত্যায় একজনের যাবজ্জীবন

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলায় লেবার সর্দার আব্দুল আজিজ উরফে আজিজ হত্যার ২৪ বছর পর আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি দণ্ডপ্রাপ্ত আসামীকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (২৯ জানুয়ারি) দুপুরে সিলেট বিভাগীয় বিশেষ জজ (জেলা ও দায়রা জজ) আদালতের বিচারক মো. শাহাদৎ হোসেন প্রামানিক এ রায় ঘোষণা করেন।

ওই আদালতের বেঞ্চ সহকারী (পেশকার) মো. আহম্মদ আলী রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হলেন- এমই (৫৫)। তিনি সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলার হাতিডহর গ্রামের জমির আলীর ছেলে। রায় ঘোষণার সময় তিনি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ১৯৯৯ সালের জুলাই মাসে আব্দুল আজিজ গোলাপগঞ্জ উপজেলার রানাপিং-ফাজিলপুর রাস্তায় পাকাকরণ কাজে লেবার সর্দার হিসেবে কাজ করছিলেন। ওই বছরের ১৪ জুলাই বেলা আড়াইটার দিকে আজিজ এবং এমই ছাড়া অন্যান্য লেবার দুপুরে খাবার খেতে চলে যান। তখন এমইর সাথে আজিজের রাস্তার কাজ করা নিয়ে কথাকাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে এমই উত্তেজিত হয়ে তার হাতে থাকা কোদাল দিয়ে আজিজকে মাথায় আঘাত করলে তিনি গুরুতর আহত হন।

এসময় অন্যান্য লেবার তাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে দুই দিন চিকিৎসা নেওয়ার পর ১৬ জুলাই রাতে আব্দুল আজিজ মারা যান।

এ ঘটনায় নিহত আজিজের পিতা আব্দুর রহিম নুনু মিয়া বাদি হয়ে এমইকে আসামি করে গোলাপগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার দীর্ঘ প্রক্রিয়া শেষে সোমবার আদালত আসামি এমই-কে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড, ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন।

রাষ্ট্রপক্ষে স্পেশাল পিপি অ্যাডভোকেট মোঃ ফখরুল ইসলাম ও আসামীপক্ষে অ্যাডভোকেট মোঃ আব্দুর রকিব মামলাটি পরিচালনা করেন।

Share





Related News

Comments are Closed