Main Menu
শিরোনাম
শাবির ল্যাবে আরও ৪০ জনের করোনা শনাক্ত         গোয়াইনঘাটে মোহাজিরদের মানববন্ধন         সিলেটে ৬১ বোতল ফেন্সিডিলসহ যুবক গ্রেপ্তার         ওসমানীনগরে বাস চাপায় নিহত ৬জনের দাফন সম্পন্ন         শমশেরনগরে বেসরকারী হাসপাতাল স্থাপনের উদ্যোগ         সিলেটে করোনায় আক্রান্ত বেড়ে ৯১৭৫, মৃত্যু ১৬৫         ওসমানীনগরে বাসচাপায় নিহত বেড়ে ৬         সিলেটে পারিবারিক কলহের জেরে ১ জন খুন         শাবির ল্যাবে আরও ৭৯ জনের করোনা শনাক্ত         ওসমানীনগরে বাস চাপায় অটোরিকশার ৪ যাত্রী নিহত         ছাতকে অ্যাম্বুলেন্সের ধাক্কায় অটোরিক্সা খাদে, নিহত ১         বিশ্বনাথে দেড় বছরের শিশু পানিতে ডুবে মৃত্যু        

গাড়ি স্বর্ণ রেখে না ফেরার দেশে ‘গোল্ডেন বাবা’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : আসল নাম সুধীর কুমার মক্কড়। কিন্তু ভক্তরা তাকে চিনতেন গোল্ডেন বাবা নামে। ভারতের গাজিয়াবাদের বাসিন্দা ছিলেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন।

বুধবার (১ জুলাই) দিল্লির এইমসে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন গোল্ডেন বাবা।

সন্ন্যাসী হওয়ার আগে সুধীর কুমার মক্কড়ের কাপড়ের ব্যবসা ছিল। পাপের প্রায়শ্চিত্ত করার জন্য তিনি সন্ন্যাস গ্রহণ করেন বলে জানিয়েছিলেন।

গোল্ডেন বাবা নামের পেছনে কারণ রয়েছে। ২০১৩ সাল থেকে তিনি সারা শরীরে কয়েক কোটি টাকার সোনার গয়না পরে থাকতেন। প্রতি বছর বিলাসবহুল গাড়ির শোভাযাত্রা করতেন তিনি। ভক্তদের ঢল নামত গোল্ডেন বাবার সেই শোভাযাত্রায়।

এক সময় কাপড়ের ব্যবসা ছেড়ে হরিদ্বারে হর কি পৌড়িতে ফুল, মালার ব্যবসা শুরু করেন গোল্ডেন বাবা। কিন্তু সেই ব্যবসায় দাঁড়াতে পারেননি। এরপর প্রপার্টি ক্রয়-বিক্রয়ের ব্যবসা শুরু করেন। তাতে প্রচুর অর্থ উপার্জন করেন। ২০১৩ সালে দিল্লির গান্ধীনগরে একটি আশ্রম প্রতিষ্ঠা করেন তিনি। তার পর থেকেই তিনি গোল্ডেন বাবা নামে পরিচিত।

গোল্ডেন বাবা প্রতি বছর ২০ কেজি সোনা শরীরে চাপিয়ে শোভাযাত্রা করতেন। কিন্তু গতবার ১৬ কেজি সোনা পরেছিলেন। শারীরিক অসুস্থতার জন্য। গোল্ডেন বাবার সুরক্ষায় সব সময় ২৫-৩০ জন রক্ষী থাকত।

0Shares





Related News

Comments are Closed