Main Menu

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় বার্তার মোড়ক উন্মোচন

শাহাব উদ্দীন ওয়াসিম, ইবি প্রতিনিধি: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) প্রশাসনের তিন বছর পূর্তি ও বর্তমান প্রশাসনের অগ্রযাত্রা তুলে ধরে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় বার্তা’র মোড়ক উন্মোচিত হয়েছে। শনিবার বেলা ১২ টায় প্রশাসন ভবনের সভাকক্ষে এ মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

জানা গেছে, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় বার্তা প্রকাশনা কমিটির আহবায়ক প্রফেসর ড. মোহা: সাইদুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে ভিসি প্রফেসর ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসেবে প্রো-ভিসি ড. শাহিনুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত সহকারী রেজিস্ট্রার নওয়াব আলী খানের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ।

এছাড়াও বক্তব্য রাখেন কলা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. সরওয়ার মোর্শেদ, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. নাসিম বানু, লালন শাহ হলের প্রভোস্ট প্রফেসর ড. মোতালেব হোসেন, লোক প্রশাসন বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. জুলফিকার হোসেন এবং শারীরিক শিক্ষা বিভাগের পরিচালক ড. মোহাম্মদ সোহেল এবং কর্মকর্তা সমিতির সাবেক সভাপতি ও সহকারী প্রধান প্রকৌশলী এ কে শরিফ উদ্দীন প্রমুখ।

আরো উপস্থিত ছিলেন প্রক্টর (দায়িত্বপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. পরেশ চন্দ্র বর্ম্মন, আইন বিভাগের প্রফেসর ড. আনিসুর রহমান, আইন অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. রেবা মন্ডলসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্চারীরা।

জানা যায়, ‘ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় বার্তা’ বর্তমান প্রশাসনের তিন বছর পূর্তি উপলক্ষে প্রকাশ করা হয়েছে। এটি ১০০০ কপি ছাপানো হয়েছে। যাতে স্থান পেয়েছে ২২২টি ছবি ও ২২৪টি সংবাদ। বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে এটিই প্রথম প্রকাশনা। এর পর ৩ মাস অন্তর বাংলা ও ইংরেজিতে এই বার্তা প্রকাশ করা হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভিসি ড. রাশিদ আসকারী বলেন, ‘বর্তমান সরকারের উচশিক্ষানীতি অনুসারে আমাদের জনসম্পদকে জনশক্তিতে রুপান্তরিত করতে হবে। আমাদের দায়িত্ব হলো স্বছতা, জবাবদিহিতার মধ্য দিয়ে ইনোভেশন করা। যা সৃষ্টি হয়েছে তা আমাদের সময়-সমাজের উপযোগী করে সঠিক কাস্টামাইজ করতে হবে। বাংলাদেশ একমাত্র দেশ যেখানে উচশিক্ষায় মাথাপিছু শিক্ষার্থীদর পিছনে সর্বোচ্চ ব্যয় হয়। আমরা প্রায় ৯৯ শতাংশই সরকারের থেকেই নেই।’

0Shares





Related News

Comments are Closed