Main Menu

বিশ্বনাথে প্রস্তুত ‘পুষনী গুচ্ছগ্রাম’

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি : ‘কোনো মানুষ গৃহহীন থাকবে না’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই ঘোষণানুযায়ী গৃহহীনদের বরণ করতে প্রস্তুত সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার ‘পুষণী গুচ্ছগ্রাম’।

সরকারের অর্থায়নে গুচ্ছগ্রাম-২য় পর্যায় (ক্লাইমেট ভিকটিম রিহ্যাবিলিনেশন) প্রকল্পের আওতায় ৪৬ লক্ষ্য ৬৬ হাজার ৫শত টাকা ব্যয়ে তৈরি করা হয়েছে এ গুচ্ছগ্রাম। উপজেলার খাজাঞ্চি ইউনিয়নের গোবিন্দ নগর গ্রামে এক একর খাস জমিতে ২৫টি গৃহহীন পরিবার বসবাসের উপযোগী করে প্রস্তুত করা এটি।

সরেজমিন গুচ্ছগ্রামে গিয়ে দেখা যায়, গুচ্ছগ্রামে গৃহহীনদের বরণ করতে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। এক একর ভূমিতে সারিবদ্ধ ভাবে রয়েছে টিন শেডের তৈরি ২৫টি ঘর ও একটি মাল্টিপারপাস হল। প্রত্যেক ঘরে রয়েছে দু’টি করে কামরা। আছে স্যানিটেশন ব্যবস্থা, রান্নাঘর, সুপেয় পানি ও গোসলখানা। গ্রামের মধ্যখানে রাখা হয়েছে শিশুদের খোলার মাঠ।

সূত্র জানায়, ২০১৭ সালের নভেম্বরের শেষের দিকে ‘পুষণী গুচ্ছগ্রাম’ প্রকল্পের কাজ শুরু হয়। কাজের ধীর গতির কারণে সম্প্রতি এটি নির্মাণ কাজ শেষ হয়। এর সাথে সাথেই নেয়া হয় গৃহহীনদের তালিকা। ২৫টি পরিবারের তালিকা যাচাই-বাচাই করে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে প্রেরণ করা হয়েছে। অনুমোদন পেলেই মনোনীত পরিবারদের হস্তান্তর করা হবে ঘর।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান তালুকদার মো. গিয়াস উদ্দিন বলেন, সরকারের এ প্রকল্প হাসি ফুটিয়েছে গৃহহীনদের মধ্যে।

প্রকল্পের সদস্য সচিব উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফাতেমা তুজ জোহরা বলেন, আমরা আশাবাদী ‘পুষণী গুচ্ছগ্রামে’ হতদরিদ্র পরিবারগুলো তাদের সন্তানাদি নিয়ে সুখে-শান্তিতে বসবাস করতে পারবে।

বিশ্বনাথ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বর্ণালী পাল বলেন, এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা। ডিসি স্যারের অনুমতি পেলে এ মাসেই ঘর হস্তান্তর করা হবে।

0Shares





Related News

Comments are Closed