Main Menu
শিরোনাম
সিলেটে করোনায় আক্রান্ত বেড়ে ৮২৯৭, মৃত্যু ১৫১         সিলেটে দুই ল্যাবে আরো ৮৫ জনের করোনা শনাক্ত         সুনামগঞ্জে করোনায় আক্রান্ত ব্যবসায়ীর মৃত্যু         শাবির ল্যাবে আরও ৪৬ জনের করোনা শনাক্ত         নবীগঞ্জে দুলাভাই-শ্যালিকার পরকীয়ার বলী হলেন মা         শায়েস্তাগঞ্জে মোটরসাইকেল দূর্ঘটনায় নিহত ১         জাফলংয়ে আসা পর্যটকদের ফিরিয়ে দিচ্ছে প্রশাসন         বিশ্বনাথে দুই ছেলের হামলায় পিতা আহত         ধর্মপাশায় নৌকা ডুবে মা-ছেলেসহ ৩জনের মৃত্যু         ছাতকে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মাদ্রাসা ছাত্রের মৃত্যু         দলই চা বাগান খুলে দেয়ার দাবিতে মানববন্ধন         পল্লী বিদ্যুতের লোডশেডিং ও ভুতুড়ে বিল বন্ধের দাবি        

সিলেটে কারাতে প্রতিযোগিতা ৫-৬ সেপ্টেম্বর

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: সিলেট জেলা কারাতে এসোসিয়েশন দ্বিতীয়বারের মতো জেলাভিত্তিক কারাতে প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে।

আগামী ৫ ও ৬ সেপ্টেম্বর সিলেট জেলা স্টেডিয়ামের মোহাম্মদ আলী জিমনেসিয়ামে এই কারাতে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে।

শনিবার বিকাল ৪টায় সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এমন তথ্য জানায় সিলেট জেলা কারাতে এসোসিয়েশন।

সংবাদ সম্মেলনে সিলেট জেলা কারাতে এসোসিয়েশনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তারেক আহমদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহিদুল ইসলাম সৌমিকের পরিচালনায় লিখিত বক্তব্য পড়েন বাংলাদেশ কারাতে ফেডারেশনের কাউন্সিলর ও সিলেট জেলা কারাতে এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এম এম এ মাসুদ রানা।

তিনি বলেন, ‘২০১৭ সালের জানুয়ারি মাসে সিলেট জেলা কারাতে এসোসিয়েশনের নতুন পরিষদ দায়িত্ব পায়। এই দায়িত্বপ্রাপ্তির ৯ মাসের মধ্যে ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে প্রথমবারের মতো জেলাভিত্তিক কারাতে প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। এবার দ্বিতীয়বারের মতো এই প্রতিযোগিতা শুরু হবে ৫ সেপ্টেম্বর। এই ধারাবাহিকতা সিলেট তথা বাংলাদেশের কারাতেকে এগিয়ে নিতে ও আন্তর্জাতিকমানের প্রতিযোগি তৈরিতে অগ্রণী ভূমিকা রাখবে।’

মাসুদ রানা বলেন, ‘‘এবারের প্রতিযোগিতায় টাইটেল স্পন্সর খেলাধুলাভিত্তিক আন্তর্জাতিক অনলাইন সংবাদমাধ্যম ‘ক্রিকেট সকার’। আমাদের কমিটির সকল দায়িত্বশীলদের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফসল হচ্ছে ‘ক্রিকেট সকার ২য় সিলেট জেলা কারাতে প্রতিযোগিতা-২০১৯’। প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ কারাতে ফেডারেশন ও সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থা সহযোগিতা করছে।

সিলেট জেলা স্টেডিয়ামের মোহাম্মদ আলী জিমনেসিয়াম আগামী ৫ সেপ্টেম্বর বিকাল ৩টা থেকে রাত ৮টা এবং ৬ সেপ্টেম্বর সকাল ৯টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য জেলা স্টেডিয়ামের ক্রীড়া ভবনে আগামী ৩ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত নাম তালিকাভূক্ত করতে পারবেন আগ্রহী একাডেমি, ক্লাব ও প্রতিযোগিরা।

অংশগ্রহণকারী দলে ফরওয়ার্ডিং পত্রসহ এন্ট্রি ফরম এবং এন্ট্রি ফরমে কর্মকর্তা ও খেলোয়াড়দের ২ কপি করে সম্প্রতি তোলা স্টাম্প সাইজ ও পাসপোর্ট সাইজ ছবি সংযুক্ত করতে হবে। প্রতিযোগিতার পুরস্কার হিসেবে বিজয়ীদের ১টি স্বর্ণ, ১টি রৌপ্য, ১টি তাম্র এবং দলগত খেলায় ৩টি পদক ও সনদপত্র প্রদান করা হবে। এছাড়া অংশগ্রহণকারী প্রত্যেক খেলোয়াড়কে সনদপত্র দেওয়া হবে।
প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য দল হিসেবে আগ্রহী সকল ক্লাব, একাডেমি ও স্কুল দলসমূহ বিবেচিত হবে।’’

তিনি আরো বলেন, ‘প্রতিযোগিতার শর্তাবলিগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য শর্তগুলো হলো পুরষ কুমিতে (-২৫) (-৩০), (-৩৫), (-৪০), (-৪৫), (৫০), (-৫৫), (-৬০), (-৭০), (-৭৫), (+৭৫) কেজি ওজনের প্রতিযোগিরা অংশ নিতে পারবেন। পুরুষ কাতা জুনিয়র শ্রেণিতে অনূর্ধ্ব ১৪ বা (-৪০) কেজি একক কাতা এবং পুরষ কাতা সিনিয়র ১৪ বছরের উপরে উন্মুক্ত একক কাতা অংশ নিতে পারবেন। মহিলা কুমিতে (-৩০) (-৩৫) (-৪০) (-৪৫), (-৫৫) (-৬৫) (+৬৫) ও মহিলা কাতা জুনিয়র অনূর্ধ্ব ১৫ বা (-৪০) কেজি একক কাতা অংশ নিতে পারবেন। মহিলা কাতা সিনিয়র ১৫ বছরের উপরে উন্মুক্ত একক কাতা এবং দলগত কাতা ছেলে ও মেয়ে উন্মুক্তভাবে একটি ইভেন্টে অংশ নিতে পারবেন। প্রতিযোগিদের অতিরিক্ত ওজন বা বয়স গ্রহণযোগ্য হবে না। প্রতিযোগিতায় প্রত্যেক দলে ম্যানেজার ও প্রশিক্ষক থাকতে হবে। ডব্লিউকেএফ (ডকঋ) ৯.১.২০১৯ এবং বিকেএফ (ইকঋ) এর বিধি ও উপ-বিধি মোতাবেক প্রতিযোগিতার বিচার ব্যবস্থা পরিচালিত হবে। মেডেল প্রতিযোগিতায় (ফাইনালে) দলগত কাতা ইভেন্টে বুনকাই প্রদর্শন করতে হবে।’

তিনি জানান, প্রতিযোগিতার জন্য আগামী ৪ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা ৬টায় সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার ক্রীড়া ভবনে লটারি ও ম্যানেজার সভা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া অংশগ্রহণকারী সকল প্রতিযোগি ও কর্মকর্তাকে পরিচয়পত্র প্রদান করা হবে। রেজিস্ট্রেশনকালীন সময়ে কোন ইভেন্টে সর্বনিম্ন ৫ জন বা ৫ দল প্রতিযোগি তালিকাভূক্ত না হলে সেই ইভেন্টটি বাতিল হবে।

সংবাদ সম্মেলনে ‘ক্রিকেট সকার ২য় সিলেট জেলা কারাতে প্রতিযোগিতা-২০১৯’ এর আয়োজক কমিটির আহবায়ক অনুপ কান্তি দাস, সদস্য কবির আহমদ, সালেহ আহমদ, তানুন খাঁন, মো. মাহবুব হোসাইন, মো. মকবুল হোসাইন, সাইফুল ইসলাম চৌধুরী, ওয়াহিদ মিয়া, সারওয়ার আহমেদ সাইফ, আবির আল আজাদ মুন্না, ইমরান আহমদ, নুরুজ্জামান রনি, মো. নজরুল ইসলাম, সৈয়দ শিব্বির আহমদ শিবলী, রাহিদ তাপাদার, ফাহিম আহমেদ, ইমরান আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

0Shares





Related News

Comments are Closed