Main Menu
শিরোনাম
মামলা প্রত্যাহার না হলে কঠোর কর্মসূচির ঘোষণা শিক্ষার্থীদের         ওসমানীনগরে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ জনের মৃত্যু         শান্তিগঞ্জে মাস্ক পরিধান সম্পর্কে থানা পুলিশের প্রচারণা         সিলেট জেলা মহিলা দলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন         শান্তিগঞ্জে কার খাদে পড়ে চালক নিহত, আহত ৪         গোলাপগঞ্জ উপজেলা বিএনপির কাউন্সিল সম্পন্ন         কমলগঞ্জে ঐতিহ্যবাহী চুঙ্গা পিঠা উৎসব         কমলগঞ্জে জলাশয় থেকে নারীর লাশ উদ্ধার         নবীগঞ্জে সিএনজির ধাক্কায় বৃদ্ধের মৃত্যু         শাবির ৩০০ শিক্ষার্থীকে আসামি করে পুলিশের মামলা         সিলেটে একদিনে করোনায় দুই শতাধিক রোগী শনাক্ত         রাষ্ট্রপতির কাছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ‘খোলা চিঠি’        

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সৈনিকরা পেলেন ব্রিটিশ অনুদান

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে অংশ নেয়া সিলেটের সৈনিক ও তাদের পরিবারকে আর্থিক অনুদান দিয়েছে ব্রিটিশ সাবেক সৈনিকদের সংগঠন রয়্যাল কমনওয়েলথ এক্স সার্ভিস লিগ (আরসিইএল)।

রবিবার (২৮ নভেম্বর) বিকেলে সিলেট জেলা সশস্ত্র বাহিনী বোর্ড আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে সংশ্লিষ্টদের হাতে এই আর্থিক অনুদান তুলে দেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের দু’জন জীবিত সৈনিক ও ইতোমধ্যে মারা যাওয়া আরও ৭ সৈনিকের পরিবারকে এই অনুদান দেয়া হয়। বিশ্বযুদ্ধে অংশগ্রহণের স্বীকৃতিস্বরূপ তাদেরকে এই সম্মাননা অনুদান দেয়া হয়।

সিলেটে এখনো দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের যে দুইজন সৈনিক বেঁচে আছেন তারা হলেন দক্ষিণ সুরমার পশ্চিমপাড়া গ্রামের নূর মোহাম্মদ। আগামী ৫ জানুয়ারি তার বয়স হবে ১০৭ বছর। আর অপরজন হবিগঞ্জের আবুল হোসেন। অসুস্থতার জন্য তিনি অনুষ্ঠানে অনুপস্থিত ছিলেন। এছাড়া মারা যাওয়া যে সাত সৈনিকের পরিবারকে অনুদান দেয়া হয় তারা হলেন- কর্পোরাল আবদুল গফুর চৌধুরী, সৈনিক শওকত আলী, সার্জেন্ট মো. মহিব উল্লাহ, সিগন্যালম্যান মছন মিয়া, ল্যান্স কর্পোরাল আক্রাম উল্লাহ, পিএমআর সৈয়দ এমাদ আলী ও কর্পোরাল আবদুল গণি।

অনুদান বিতরণ অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- সিলেট সশস্ত্র বাহিনী বোর্ডের ভারপ্রাপ্ত সচিব আবুল বশর চৌধুরী, কর্মকর্তা মো. আব্দুস সালাম ও ইউডিএসি মোহাম্মদ জামিল হোসেন প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, ‘যারা বিশ্বযুদ্ধে প্রত্যক্ষভাবে অংশ নিয়েছিলেন তারা আমাদের সিলেটের গর্ব। এখনো যে দু’জন সৈনিক বেঁচে আছেন তাদের সুযোগ-সুবিধার প্রতি আমাদের নজর দিতে হবে। সিটি করপোরেশনও তাদের ব্যাপারে এখন থেকে নিয়মিত খোঁজ-খবর নেবে।

0Shares





Related News

Comments are Closed