Main Menu
শিরোনাম
বিশ্বনাথে স্বেচ্ছাসেবক দল নেতৃবৃন্দের মধ্যে ফরম বিতরন         বিশ্বনাথে সাইফুলের ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল         ছাতকে ১০ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল         ছাতকে প্রতিবন্ধী তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে বৃদ্ধ গ্রেপ্তার         বিশ্বনাথে দুই হত্যা মামলার প্রধান আসামী সাইফুল গ্রেপ্তার         কোম্পানীগঞ্জে বজ্রপাতে দুইজনের মৃত্যু         গোলাপগঞ্জে গৃহবধূকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেপ্তার         শান্তিগঞ্জে পানিতে ডুবে দুই চাচাতো বোনের মৃত্যু         কামাল উদ্দিন রাসেল’র উপর মামলা প্রত্যাহারের দাবি         বিশ্বনাথে ‘ব্লাকমেইল’ করে গৃহবধুকে ধর্ষণ, ধর্ষক আটক         দক্ষিণ সুরমা কলেজে শিক্ষার্থীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা         গোলাপগঞ্জে ফ্রি চক্ষু চিকিৎসা সেবা অনুষ্ঠিত        

সংবাদকর্মী হাফিজুলের বাঁচার আকুতি

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: মানুষের তরে সর্বদা নিবেদিত থাকে হৃদয়বানদের হৃদয় দুয়ার। দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হাফিজুল ইসলামের বেলায়ও এগিয়ে আসছেন হৃদয়বানরা।

অসুস্থ হাফিজুল ইসলাম কাজ করেন শ্যামল সিলেটের বিজ্ঞাপন বিভাগে। যৎসামান্য বেতনে চলে তার সংসার। সংসারে স্ত্রী এবং অবুঝ দুই সন্তান। তাদের মাঝে বাঁচার স্বপ্ন দেখেন হাফিজুল। স্বপ্ন দেখেন সন্তানদের মানুষের মতো মানুষ করার। কিন্তু দুরারোগ্য লিভার ক্যান্সারে আক্রান্ত হাফিজুলের আয়ুস্কাল যেনো ফুরাবার পথে।

এ অবস্থায় প্রয়োজন যথাযথ চিকিৎসা। কিন্তু চিকিৎসার ব্যয়ভার বহনে সামর্থহীন হাফিজুলের পরিবার। নগরের শিবগঞ্জে ভাড়া বাসায় থেকে সংসারের ব্যয়ভার মেটানোই দুস্কর। সেখানে ব্যয়বহুল এই চিকিৎসা করানো তার পক্ষে আকাশ কুসুম কল্পনা ছাড়া আর কি? চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী যত দ্রæত তার চিকিৎসা করানো যায়, ততই মঙ্গল।

তার এই দু:সময়ে প্রথমেই পাশে দাঁড়িয়েছেন শ্যামল সিলেটের সাবেক ও বর্তমান সাংবাদিকরা। চিকিৎসার জন্য বিস্তর অর্থে যোগাতে প্রাণান্তর চেষ্টায় তারা।

হাফিজুলের স্ত্রীর নামে ব্যাংক হিসাব খুলে অর্থ তহবিল গঠনের মাধ্যমে তারাও হৃদয়বানদের এগিয়ে আসার আর্তি জানাচ্ছেন। হাফিজুলের পৃথিবীতে বেঁচে থাকার স্বপ্ন একমাত্র হৃদয়বানদের চোখে।

এই দুর্দিনে হাফিজুলের চিকিৎসা সহায়তায় বিবেকবানদের অনেকে হাত বাড়িয়ে দিতে শুরু করেছেন। ‘মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য-হাফিজুলের বেলায় আবারো সত্য হোক সবার প্রচেষ্টা। সবার প্রচেষ্টায় বেঁচে থাকুক একটি প্রাণ।

স্ত্রী ফিরে পাক তার প্রিয় মানুষটি। অবুঝ সন্তানদের মাথার উপর ছায়া হয়ে থাকুক তাদের বটবৃক্ষ পিতা। দেশে-বিদেশে অবস্থানরত হৃদয়বান ব্যক্তিদের সবাই এগিয়ে আসলে তরুণ হাফিজুলের চিকিৎসা করানো অসম্ভব নয়।

বিন্দু বিন্দু জলকনাতে গড়ে উঠুক সাগর মহাসাগর। হাত হাত মিলিয়ে গঠুক বিশাল বন্ধন। যে বন্ধন তথা সম্মিলিত প্রচেষ্টায় অসাধ্য সাধন হোক হাফিজুলের বেলায়। মহৎ মানুষের হৃদয়ের সম্মিলিত শক্তি এখন হাফিজুল পরিবারের একমাত্র ভরসা। হাফিজুলের সুস্থতার উপর নির্ভর করছে তার স্ত্রী-সন্তানদের মুখের হাসি। হুদয়বানদের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র সহযোগীতায় একটি প্রাণ বাঁচিয়ে আরো তিনটি মুখে হাসি ফুটাতে পারে। সন্তানদের জন্য হলেও
হাফিজুলের জন্য সকলের সাহায্যের হাত প্রসারিত হোক। সুস্থ হয়ে উঠুক একজন হাফিজুল।

হাফিজুলের চিকিৎসা সহায়তায় ইতোমধ্যে একটি তহবিল গঠন করেছেন তার সহকর্মীরা। হাফিজুলের স্ত্রী শিউলী বেগমের পূবালী ব্যাংক সিলেটের শিবগঞ্জ শাখায় একটি সঞ্চয়ী হিসাবও খোলা হয়েছে। যার একাউন্ট নম্বর-৪৯৬৯১০১০০১৪৯৯।

এছাড়া হাফিজুলের বিকাশ নাম্বারেও (০১৭১২৪০৩৫৩৩) সহযোগিতা পাঠানো যাবে। যার যার সামর্থ্য অনুযায়ী চিকিৎসা সহায়তায় এগিয়ে এলে জীবন যুদ্ধের লড়াইয়ের সাহস পাবেন হাফিজুল। ইতোমধ্যে তরুণ সংবাদপত্রকর্মী হাফিজুলের চিকিৎসা সহায়তায় এগিয়ে এসেছেন সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার মানুষ।

১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তার সহায়তা তহবিলে জমা হয়েছে ৬৪ হাজার ৫০০টাকা। নগদ অর্থদিয়ে তার চিকিৎসা সহায়তায় যারা পাশে দাঁড়িয়েছেন তাঁরা হলেন-শ্যামল সিলেট’র সম্পাদকমÐলীর সভাপতি অ্যাডভোকেট সামসুজ্জামান জামান ১০০০০ টাকা, বাংলাভিউ টিভির সম্পাদক শাহ দিদার আলম নবেল ১০০০০ টাকা, মানবজমিন ও ইটিভির ব্যুরো প্রধান ওয়েছ খছরু ৫০০০ টাকা, প্রথম আলোর ব্যুরো প্রধান উজ্জল মেহদী ৫০০০ টাকা, সমকালের ব্যুরো প্রধান চয়ন চৌধুরী ৩০০০ টাকা, সময়ের আলোর ব্যুরো প্রধান মনোয়ার জাহান চৌধুরী ২০০০টাকা, উত্তরপূর্ব পরিবারের পক্ষ থেকে বার্তা ফখরুল ইসলাম ৫০০০টাকা, বনিক বার্তার নিজস্ব প্রতিবেদক দেবাশীষ দেবু ২০০০টাকা, একাত্তরের কথার মফস্বল সম্পাদক আনন্দ সরকার ২০০০টাকা, শ্যামল সিলেট’র প্রধান প্রতিবেদক মো. নাসির উদ্দিন ২০০০ টাকা, সিনিয়র আলোকচিত্র সাংবাদিক আবু বকর ১০০০ টাকা,
নবীগঞ্জ প্রতিনিধি সলিল বরণ দাস ৫০০টাকা, দক্ষিণ সুরমার দেওয়ান নিজাম খান ১০০০ টাকা, নগরীর লামাপাড়ার সৈয়দ মিনহাজ উদ্দিন মুসা ৫০০টাকা, বালাগঞ্জের মামুনুর রশিদ সোহেল ১০০০ টাকা, রায়হাদ বকস্ ও মোস্তফা কামাল ফরহাদ ৫০০ টাকা, সিলেট রেডক্রিসেন্ট সেক্রেটারি আব্দুর রহমান জামিল ৫০০০ টাকা, হবিগঞ্জ থেকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ৪০০০ টাকা, নগরীর শিবগঞ্জ খরাদিপাড়ার একরাম হোসেন ৫০০০ টাকা।

0Shares





Related News

Comments are Closed