Main Menu
শিরোনাম
জুড়ীতে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা         জগন্নাথপুরে প্রতিপক্ষের হামলায় যুবক নিহত, গ্রেপ্তার ২         বড়লেখায় দেবরের হাতে ভাবী খুন, দেবর গ্রেপ্তার         গোলাপগঞ্জে মন্দিরে ধর্ষণ চেষ্টার কোনো ঘটনাই ঘটেনি         বিশ্বনাথে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১০         সিলেটে করোনায় আরও ২ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ৬২         বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান, প্রেমিকার বাড়িতে প্রেমিকের আত্মহত্যা         সিলেটে আরও ৭৯ জনের দেহে করোনা শনাক্ত         কোভিড যোদ্ধা ডা: মঈন উদ্দিনের মৃত্যুর এক বছর         বিশ্বনাথে কঠোর লকডাউন, মাঠে পুলিশ প্রশাসন         বিশ্বনাথে প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাতে মহিলা নিহত         বিশ্বনাথে ৩৬ কেজি গাঁজাসহ দুই যুবক আটক        

বিক্ষোভে উত্তাল নিউইয়র্ক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: এশিয়ান-আমেরিকান বিদ্বেষের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে উত্তাল নিউইয়র্ক। স্থানীয় সময় রোববার ম্যানহ্যাটন ও ব্রুকলিনে জড়ো হয় দশ হাজারের বেশি মানুষ। এসময় এশিয়ান-আমেরিকান বিদ্বেষী হামলার তীব্র নিন্দা জানান তারা। একইসাথে ঐক্যের ডাক দেন বিক্ষোভকারীরা।

স্লোগানে স্লোগানে মুখর নিউইয়র্ক শহর। এশিয়ান-আমেরিকানদের ওপর একের পর এক হামলার প্রতিবাদে স্থানীয় সময় ৪ এপ্রিল রোববার নিউইয়র্কের রাস্তায় নামেন হাজার হাজার মানুষ। ম্যানহাটন ও ব্রুকলিনের রাস্তায় বিক্ষোভ মিছিল করেন তারা। এসময় ব্যানার, প্ল্যাকার্ড ও যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় পতাকা হাতে নিয়ে এশিয়ান-আমেরিকান বিদ্বেষী হামলা বন্ধের দাবি জানান বিক্ষোভকারীরা।

চীনাদের পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত এশিয়ার বিভিন্ন দেশের নাগরিকরা এ বিক্ষোভে অংশ নেন। এসময় বর্ণবাদ ও জাতিবিদ্বেষী হামলা বন্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানানো হয়। শুধু হামলা নয়, যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিটি ক্ষেত্রেই এশিয়ানরা বৈষম্যের শিকার হন বলেও অভিযোগ করেন বিক্ষোভকারীরা।

পরে এক সমাবেশে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে পাঁচ দফা দাবি তুলে ধরেন আন্দোলনকারীরা। এসব দাবির মধ্যে রয়েছে- বর্ণবিদ্বেষী হামলা, রাজনীতিবিদদের এশিয়ানদের তুচ্ছতাচ্ছিল্য, স্থানীয় নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে হয়রানি এবং বৈষম্যকরণ বন্ধের পাশাপাশি প্রত্যেক সম্প্রদায়ের মধ্যে ভ্রাতৃত্ব স্থাপনে সরকারের যথাযথ উদ্যোগ নেয়া।

গেল ১৭ মার্চ যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের আটলান্টা শহরের একটি স্পা সেন্টারে বন্দুকধারীর হামলায় নিহত হন ৮ এশিয়ান-আমেরিকান নারী। এরপর থেকেই এশিয়ান-আমেরিকান বিদ্বেষ আলোচনায় আসে। শুরু হয় প্রতিবাদ। যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন শহরে আন্দোলনের পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতেও হ্যাশট্যাগ আন্দোলন শুরু হয়। যুক্তরাষ্ট্র বাদে বিশ্বের অন্যান্য দেশেও শুরু হয় এশিয়ান বিদ্বেষবিরোধী আন্দোলন।

0Shares





Related News

Comments are Closed