Main Menu
শিরোনাম
বড়লেখায় ৭ প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল         বিশ্বনাথে ইউপি নির্বাচনে ৫ প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল         ওসমানীর ল্যাবে ১৬ জনের করোনা শনাক্ত         শাবির ল্যাবে আরো ১৩ জনের করোনা শনাক্ত         সিলেটে করোনায় আক্রান্ত বেড়ে ১২,৪২৩, মৃত্যু ২১২         ঘূর্ণিঝড়ে জকিগঞ্জের ৬ গ্রামের ২৫টি ঘর বিধ্বস্ত         মাধবপুরে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু         জগন্নাথপুর পৌরসভার উপনির্বাচন ১০ অক্টোবর         কমলগঞ্জে ৩টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা         জগন্নাথপুরে স্বামীর দায়ের কোপে স্ত্রীর মৃত্যু         ছাতকে নৌযানে চাঁদাবাজ মুক্ত রাখতে মাইকিং         সিলেট বিভাগে আরো ৪৮ জনের করোনা শনাক্ত        

ফুলবাড়ীতে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেপ্তার

অমর চাঁদ গুপ্ত অপু, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণসহ ধর্ষণের ধারণকৃত ভিডিও ও স্থিরচিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে সিরাজুল ইসলাম (৩০) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার (২৭ জুন) ভোরে থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে সিরাজুল ইসলামকে ফুলবাড়ী উপজেলার ৭ নং শিবনগর ইউনিয়নের লক্ষণপুর গ্রামের বাড়ী থেকে গ্রেপ্তার করেছে। সে ওই গ্রামের আফজাল মন্ডলের ছেলে এবং পেশায় একজন মুদি দোকানী।

ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে শনিবার সিরাজুল ইসলামকে আসামী করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯ (১) তৎসহ পর্ণোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনের ৮ (২) (৩) ধারায় ফুলবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। যার নং ১১।

ওই ছাত্রীর মা জানান, তার স্বামী প্রতিদিন সকালে খালবিলে মাছ ধরতে চলে যান এবং তিনি গরুর ঘাস কাটতে জমিতে সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত অবস্থান করেন। বাড়ীতে নাবালিকা মেয়ে একাই থাকার সুযোগে পাঠকপাড়া বাজারের মুদি দোকানী সিরাজুল ইসলাম প্রায়ই বাড়ীতে যাতায়াত শুরু করে। এক পর্যায়ে মেয়েকে ফুসলিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে এবং ধর্ষণের দৃশ্য ভিডিও ও স্থিতচিত্র তার মোবাইল ফোনে ধারণ করে রাখে। কয়েকদিন আগে বাড়ীতে কেউ না থাকার সুযোগে মেয়েকে আবারো ধর্ষণের চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হওয়ায় পূর্বে মোবাইলে ধারণকৃত ভিডিও ও স্থিতচিত্র দেখিয়ে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়। এরপর সে ওইসব ভিডিও ও স্থিতচিত্র এলাকার একাধিক মোবাইল ফোনসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়। বিষয়টি জানার পর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ফখরুল ইসলাম বলেন, ঘটনার বিষয়ে অভিযোগ পাওয়ার পরপরই তার (ওসি) নেতৃত্বে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সেকেন্দার আলী, উপ-পরিদর্শক (এসআই) দেবী কান্ত ও সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) হাসিবুল ইসলামসহ একদল পুলিশ লক্ষনপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত সিরাজুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সে একাধিকবার নাবালিকা মেয়েকে ধর্ষণসহ ধর্ষণের ভিডিও এবং স্থিরচিত্র ধারণ করে বিভিন্ন মাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়েছে।

0Shares





Related News

Comments are Closed