Main Menu

ভার্চুয়াল আদালতে আবেদন করবেন যেভাবে

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবিলায় সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে আগামী ১৬ মে পর্যন্ত সব আদালতে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে নিম্ন আদালতেও ভার্চুয়াল কোর্ট পরিচালনার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। সরকার ঘোষিত ছুটির মধ্যে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এই ‘প্র্যাকটিস ডাইরেকশন’ অনুসরণ করেই দেশের সর্বোচ্চ আদালত ও অধস্তন আদালতের বিচারিক কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

রবিবার (১০ মে) সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবর তিনটি আলাদা আদেশের মাধ্যমে এই ‘প্র্যাকটিস’ নির্দেশনা সবাইকে জানিয়ে দেন। তবে নিম্ন আদালতের ভার্চুয়াল কোর্টে শুধু জামিন শুনানি করতে নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিমকোর্ট প্রশাসন।

প্রথবারের মতো ভার্চুয়াল মাধ্যমে আদালতের কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। এ কার্যক্রমে আইনজীবী, সাক্ষী, আসামির শারীরিক উপস্থিতি প্রয়োজন হচ্ছে না। এরইমধ্যে হাইকোর্টে তিনটি বেঞ্চ নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে এ ধরনের শুনানির জন্য। নিম্ন আদালত কীভাবে চলবে সে নির্দেশনাও জারি করা হয়েছে।

ভার্চুয়াল আদালতে বাদী/বিবাদীর পক্ষে মামলা পরিচালনার জন্য একজন আইনজীবীকে নিজের নাম, ছবি, ইমেইল ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর দিয়ে নিবন্ধন করতে হবে। নিবন্ধন ও অন্যান্য কাজটি হবে ভার্চুয়াল আদালতের ওয়েব পোর্টাল mycourt.judiciary.org.bd এর মাধ্যমে।

নিবন্ধিত হওয়ার পর ইউজার নেইম ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করে আইনজীবী ভার্চুয়াল কোর্ট পোর্টালে ঠুকতে পারবেন। সেখানে জামিন আবেদন ও বেইল বন্ড দাখিল সংক্রান্ত দুটি ঘর থাকবে। কোনো আইনজীবী জামিন আবেদন করতে চাইলে জামিন সংক্রান্ত ঘরে প্রবেশ করে মূল জামিন আবেদন, ওকালতনামা ও সংযুক্ত নথিপত্র পৃথক তিন ধাপে আপলোড করবেন। এ ক্ষেত্রে কোনো আবেদন ফি লাগবে না।

আবেদন দাখিলের পর সংশ্লিষ্ট বেঞ্চের কর্মকর্তা এ আবেদনটি শুনানির জন্য গ্রহণের প্রক্রিয়া শুরু করবেন। সংশ্লিষ্ট বিচারকের অনুমোদনের পর আইনজীবীর ইমেইলে শুনানির সময় জানিয়ে ভিডিও কনফারেন্সের জন্য একটি লিংক দেওয়া হবে।

নির্ধারিত সময়ে ওই লিংকে ঢুকে আইনজীবী বিচারকের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হবেন এবং নিজের আবেদনের ওপর শুনানি করবেন। জামিন মঞ্জুর হলে একই পোর্টালে বেইল বন্ড দাখিল করতে পারবেন আইনজীবী।

0Shares





Related News

Comments are Closed