Main Menu

সাজাপ্রাপ্ত আসামির পক্ষে আদালতে প্রক্সি দিতে এসে নারী আটক

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: সিলেটে চেক ডিজওনার মামলার সাজাপ্রাপ্ত এক আসামির পক্ষে আদালতে প্রক্সি দিতে এসে জেলে যেতে হয়েছে এক নারীকে। জেসমিন বেগম নামের ওই নারী নাজনীন সুলতানা নামের সাজাপ্রাপ্ত এক আসামি সেজে আদালতে জামিন নিতে এসেছিলেন।

বুধবার (২২ নভেম্বর) সিলেটের যুগ্ম মহানগর দায়রা জজ ১ম আদালতের বিচারক মোহাম্মদ দিদার হোসাইন জামিন আবেদন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

আদালত সূত্র জানায়, চেক ডিজঅনারের অভিযোগে দায়েরকৃত একটি মামলায় (দায়রা ১৮০৫/২০১৮) নাজনীন সুলতানা নামের এক নারীর সাজা হয়। এরপর থেকে ওই আসামী পলাতক ছিলেন। রায় ঘোষণার প্রায় সাড়ে ৪ বছর পর বুধবার জেসমিন বেগম নামের এক নারী নাজনীন সুলতানা সেজে আদালতে আত্মসমর্পন করে আদালতে জামিন প্রার্থনা করেন।

শুনানী শেষে বিচারক জামিন আবেদন নাকচ করে আসামিকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। এরপর বের হয়ে আসে প্রক্সি আসামি সাজার আসল ঘটনা। তখন জেসমিন বেগম জানান তিনি নাজনীন সুলতানা নন। নাজনীন সুলতানা সেজে আদালতে প্রক্সি দিতে এসেছিলেন। পরে পুলিশ তাকে আটক করে কোতোয়ালী থানায় নিয়ে যায়। তার বিরুদ্ধে থানায় নিয়মিত মামলা হয়েছে।

সিলেট মহানগর পুলিশের প্রসিকিউশন বিভাগের পরিদর্শক মো. আলী আশরাফ মামলা দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

Share





Related News

Comments are Closed