Main Menu

কবি লুৎফা আহমদ লিলি’র ৩য় কাব্যগ্রন্থ উম্মোচন

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: সিলেট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন খান বলেছেন, কবি সাহিত্যিকরা জাতিকে পথ দেখায়। আর তাদের দেখানো পথে সভ্যতা গড়ে ওঠে। কিন্তু আমাদের সাহিত্য সংস্কৃতি আজ ভিনদেশী আগ্রাসনের শিকার।

আমাদের জাতীয় সংস্কৃতি রক্ষা করতে হলে এই আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ঐক্য গড়ে তোলতে হবে। লেখক তার লেখায় একটি অবাস্তব কাহিনী উঠিয়ে এনেছে। এই উপন্যাসের নায়কের মত লোক আমরা সমাজ বিনির্মাণে চাই। কিন্তু বাস্তবে এ ধরনের লোক পাওয়া অনেক কঠিন। আমরা চাই সমাজে এ ধরনের লোক তৈরি হউক।

তিনি আরো বলেন, এই গল্পে সমাজের যে, আমলাতন্ত্রের রূপ ফুটে উঠেছে তা বাস্তব। তবে এই গল্প যদি আরো দীর্ঘ হতো তাহলে আমলাতন্ত্রের নেতিবাচক আরো দিক আমরা জানতে পারতাম। কোন জাতিকে ধ্বংস করতে হলে সেই জাতির সংস্কৃতিকে ধ্বংস করতে হয়। আমাদের সংস্কৃতি আজ বিদেশী আগ্রাসনের শিকার। সামরাজ্যবাদী শক্তিও বসে নেই। বিদেশী আগ্রাসনের হাত থেকে আমাদের এই দেশকে বাঁচাতে হলে জাতীয় ঐক্যের প্রয়োজন।

বুধবার (৩০ নভেম্বর) বিকাল ৪টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মীম প্রকাশনীর উদ্যোগে শিক্ষক (অব:), কবি ও সংগঠক লুৎফা আহমদ লিলি’র ৩য় কাব্যগ্রন্থ ‘বসন্তের হাওয়া’ প্রকাশনা ও মোড়ক উম্মোচন এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

লেখক ও নারী উদ্যোক্তা শিপারা বেগম শিপার সভাপতিত্বে ও মীম প্রকাশনী’র প্রকাশক কামাল আহমদ এবং মাজেদ আহমদ চৌধুরীর যৌথ সঞ্চালনায় প্রধান গ্রন্থ আলোচকের বক্তব্য রাখেন- কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাবেক সাহিত্য সম্পাদক এডভোকেট আব্দুল মুকিত অপি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চিকিৎসক, কবি ও সাংস্কৃতিককর্মী ডা. জহিরুল ইসলাম অচিনপুরী, ইউরোপীয় ইউনিয়ন শাখা বঙ্গবন্ধু পেশাজীবি পরিষদের সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম এবং সিলেট বিভাগের প্রধান সম্বনয়ক আনোয়ার উদ্দিন আহমদ রুনু, বিশ্বনাথ কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম, কবি ও প্রাবন্ধিক ইসমত হানিফা, আন্তর্জাতিক ম্যারাথন চ্যাম্পিয়ন নাসরিন বেগম, জাউয়া ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক গাউছুল হক নাঈম, বিশ্বনাথ কিন্ডারগার্টেন স্কুলের সাবেক প্রিন্সিপাল সুফিয়া হক, সাংবাদিক ও কবি ফারহানা বেগম হেনা, কবি ও সংগঠক মাসুদা সিদ্দিকা রুহি, কবি শাবাজ খান, কবি মাছুমা ট্রপি একা, মানবাধিকার তথ্য পর্যবেক্ষণ সোসাইটি কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সচিব এনামুল ইসলাম তালুকদার, পরিবর্তন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের এনামুল ইসলাম, আনোয়ার হোসেন রুনু, জসিম উদ্দিন, ছয়ফুল আলম পারুল, ছাতক শিক্ষক পরিবারের অনুপম কর রুনা তালুকদার, ১নং বারহাল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মনজুরুল হামিদ চৌধুরী, কানাইঘাট সরকারী কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও সহকারী অধ্যাপক আজাদ উদ্দিন, রাজনীতিবিদ ও সমাজসেবক হাবিবুল্লাহ জাবেদ, জকিগঞ্জ ঐক্য কল্যাণ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জুনেদ আহমদ রুমেল, মাহফুজ আল গালীব, রেজওয়ান আহমদ, শারমিন আক্তার মীম, সেলিনা আক্তার, সাংবাদিক আজমল আহমদ রোমন প্রমুখ।

0Shares





Related News

Comments are Closed