Main Menu
শিরোনাম
জুড়ীতে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা         জগন্নাথপুরে প্রতিপক্ষের হামলায় যুবক নিহত, গ্রেপ্তার ২         বড়লেখায় দেবরের হাতে ভাবী খুন, দেবর গ্রেপ্তার         গোলাপগঞ্জে মন্দিরে ধর্ষণ চেষ্টার কোনো ঘটনাই ঘটেনি         বিশ্বনাথে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১০         সিলেটে করোনায় আরও ২ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ৬২         বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান, প্রেমিকার বাড়িতে প্রেমিকের আত্মহত্যা         সিলেটে আরও ৭৯ জনের দেহে করোনা শনাক্ত         কোভিড যোদ্ধা ডা: মঈন উদ্দিনের মৃত্যুর এক বছর         বিশ্বনাথে কঠোর লকডাউন, মাঠে পুলিশ প্রশাসন         বিশ্বনাথে প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাতে মহিলা নিহত         বিশ্বনাথে ৩৬ কেজি গাঁজাসহ দুই যুবক আটক        

পরকীয়ায় বাধা, স্বামীকে খুন করলো স্ত্রী ও তার প্রেমিক

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: স্ত্রীকে পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় প্রেমিকের সহায়তায় স্বামীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছেন গৃহবধূ। টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার বাঁশি গ্রামে এই ঘটনাটি ঘটেছে। নিহত ব্যক্তি এলাকার মোন্তাজ আলীর ছেলে চাঁন মিয়া (৪০)।

মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) বাড়ির পাশের সেপটিক ট্যাংক থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এর আগে ৩ এপ্রিল শনিবার রাতে তাকে হত্যা করা হয়।

এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী রাজিয়া বেগম ও তার প্রেমিক আব্দুল হালিমকে আটক করেছে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে প্রাথমিকভাবে শ্বাসরোধে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন তারা।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ৪ এপ্রিল রবিবার রাজিয়া জানায় তার স্বামী নিখোঁজ। তার পরবর্তী কার্যকলাপ ও কথার্বাতায় পরিবারের সদস্যদের সন্দেহ হয়। পরে তারা পুলিশে খবর দেন। মঙ্গলবার সকালে পুলিশ এসে রাজিয়া বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি হত্যার কথা স্বীকার করেন।

এরপর তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতেই পাশের সেপটিক ট্যাংক থেকে চাঁন মিয়ার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কালিহাতী থানার ভারপ্রপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাহেদুল ইসলাম জানান, পরকীয়ার জেরে চাঁন মিয়াকে হত্যার বিষয়টি স্বীকার করেছেন রাজিয়া বেগম। তিনি দুই সন্তানের জননী। একই গ্রামের আব্দুল হালিমের সঙ্গে তার পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিষয়টি জানতে পেরে চাঁন মিয়া বাধা দেন।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শনিবার রাতে প্রেমিক আব্দুল হালিমের সহযোগিতায় চাঁন মিয়াকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন তারা। পরে লাশ গুম করার জন্য বাড়ির পাশের সেপটিক ট্যাংকে ফেলে দেয়া হয়। রাজিয়া ও আব্দুল হালিমকে আটক করা হয়েছে। এই ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও নিশ্চিত করেছেন এই কর্মকর্তা।

0Shares





Related News

Comments are Closed