Main Menu
শিরোনাম
জুড়ীতে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা         জগন্নাথপুরে প্রতিপক্ষের হামলায় যুবক নিহত, গ্রেপ্তার ২         বড়লেখায় দেবরের হাতে ভাবী খুন, দেবর গ্রেপ্তার         গোলাপগঞ্জে মন্দিরে ধর্ষণ চেষ্টার কোনো ঘটনাই ঘটেনি         বিশ্বনাথে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১০         সিলেটে করোনায় আরও ২ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ৬২         বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান, প্রেমিকার বাড়িতে প্রেমিকের আত্মহত্যা         সিলেটে আরও ৭৯ জনের দেহে করোনা শনাক্ত         কোভিড যোদ্ধা ডা: মঈন উদ্দিনের মৃত্যুর এক বছর         বিশ্বনাথে কঠোর লকডাউন, মাঠে পুলিশ প্রশাসন         বিশ্বনাথে প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাতে মহিলা নিহত         বিশ্বনাথে ৩৬ কেজি গাঁজাসহ দুই যুবক আটক        

হাতে দু:খগাথা লিখে আসমার ‘আত্মহত্যা’

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক : মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে আসমা বেগম (৩০) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার (৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে উপজেলার আলিশারকুল এলাকার একটি বাড়ি থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। আসমা বেগমের হাতে একটি নোট লেখা রয়েছে।

আসমা উপজেলার আলিশারকুল এলাকার মতলিব মিয়ার মেয়ে বলে জানা যায়। তার পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করেছেন- আসমা বেগমকে তার স্বামী পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে।

জানা যায়, উপজেলার ভুনবীর ইউনিয়নের রাজপারা এলাকার মৃত ছোবান মিয়ার ছেলে মো. আব্দুল হালিমের (২২) সঙ্গে চার মাস পূর্বে দ্বিতীয় বিয়ে হয় আসমা বেগমের। এর পূর্বে আসমা বেগমের আরেকটি বিয়ে হয়েছিল। সেই সংসার ভেঙে যায় এবং সেই সংসারে একটি ছয় বছরের কন্যাসন্তান রয়েছে।

পেশায় আব্দুল হালিম শ্রমিকের কাজ করেন। বয়সের দিক দিয়ে স্বামী আব্দুল হালিম স্ত্রীর থেকে প্রায় আট বছরের ছোট। বিয়ের পর থেকে তাদের মধ্যে দাম্পত্য কলহ ছিল বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ব্যাপারে আসমা বেগমের স্বামী আব্দুল হালিম জানান, প্রতিদিনের মতো শনিবার রাতে তারা খাবার খেয়ে ঘুমাতে যান। রোববার সকাল সাড়ে ৬টায় ঘুম থেকে উঠে দেখেন তার স্ত্রী পাশে নেই। তিনি ঘরের মধ্যে স্ত্রীকে খোঁজে হঠাৎ দেখেন ঘরের উপরে তীরের সঙ্গে মাফলার গলায় দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে ঝুলানো অবস্থায় রয়েছে। তিনি তখন চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এসে লাশ নিচে নামান। এ সময় আসমা বেগমের হাতের মধ্যে আত্মহত্যার নোট লেখা দেখা যায় বলে তিনি জানান।

তবে নিহত আসমা বেগমের বড়বোন আলেয়া বেগম জানান, আমার বোন আত্মহত্যা করার কথা নয়। তাদের স্বামী-স্ত্রীর মাঝে পারিবারিক ঝামেলা ছিল। আমাদের ধারণা আমার বোনকে তার স্বামী পরিকল্পিতভাবে খুন করেছে।

এ ব্যাপারে শ্রীমঙ্গল থানার ওসি মো. আব্দুছ ছালেক যুগান্তরকে জানান, প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যা মনে হচ্ছে। তবে স্বামীর প্ররোচনায় আসমা বেগম আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন। হাতের লেখার ঘটনার রহস্য উদঘাটনে এক্সপার্ট দিয়ে পরীক্ষা করা হবে এবং তদন্তসাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

0Shares





Related News

Comments are Closed