Main Menu
শিরোনাম

শায়েস্তাগঞ্জে পৌর মেয়রের বাসা লকডাউন

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার পৌর মেয়রের বাসার ভাড়াটিয়া করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুর কারণে তার বাসা লকডাউন করা হয়েছে।

সোমবার দুপুর ২ টায় শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সুমী আক্তার উপস্থিত হয়ে পৌরসভার মেয়র সালেক মিয়ার বাসা লকডাউন করেন। এসময় নিহতের সাথে বসবাসকারী ৫ জনকে ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার জন্যও নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এর আগে সোমবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সর্দি, জ্বর, কাশি, শ্বাসকষ্ট নিয়ে মারা যান সুমন মোহন্ত (২৯)। তিনি আরএফএল কোম্পানীর ইতালিয়ানো গ্রুপে সেলস অফিসার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তার কর্মস্থল ছিল শায়েস্তাগঞ্জ, চুনারুঘাট ও বাহুবল। তিনি শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডে অবস্থিত পৌর মেয়রের বাসায় ভাড়া থাকতেন। তার গ্রামের বাড়ি গাইবান্ধা জেলায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়- সুমন মোহন্ত গত কয়েকদিন যাবত করোনা উপসর্গে ভুগছিলেন। বিষয়টি গোপন রেখে বাসায় ছিলেন তিনি। তার অবস্থার অবনতি হলে খবর পেয়ে গ্রামের বাড়ি থেকে আসা স্ত্রী, স্বজনরা রোববার দিবাগত রাত ৩ টার দিকে প্রাইভেট গাড়ীতে করে তাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়।

এ ব্যাপারে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সুমী আক্তার বলেন, হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা ৫ যুবক হবিগঞ্জের বাইরের বাসিন্দা। যেহেতু তারা করোনায় উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া সুমন মোহন্তের সাথেই থাকতেন, তাই তাদের আপাতত কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সুমন মোহন্তর করোনা রিপোর্ট আসার পর তাদের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

0Shares





Comments are Closed