Main Menu
শিরোনাম
শাবির ল্যাবে আরো ২২ জনের করোনা শনাক্ত         কমলগঞ্জে এক বৃদ্ধের মৃত্যু নিয়ে ধুম্রজাল         জৈন্তাপুরে ভারতীয় পাতার বিড়িসহ গ্রেফতার ১         গোয়াইনঘাটে ধর্ষণ চেষ্টার প্রতিবাদে মানববন্ধন         শ্রীমঙ্গলে স্ত্রীকে হত্যা করে স্বামীর আত্মহত্যা!         সিলেট এমসি কলেজের ছাত্রী পপির আত্মহত্যা         ধর্ষণ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান কারাগারে         বিশ্বনাথে বৃদ্ধ ও এক গৃহবধুর লাশ উদ্ধার          সিলেটে করোনায় আক্রান্ত বেড়ে ৮৫৮২, মৃত্যু ১৫৩          ওসমানীর ল্যাবে আরো ৬১ জনের করোনা পজিটিভ         বিশ্বম্ভরপুরে বজ্রপাতে কৃষক নিহত         শ্রীমঙ্গলে ঘরে বসে সততা পরীক্ষার আয়োজন        

আইএইচটি’র অষ্টম ব্যাচের ওরিয়েন্টেশন সম্পন্ন

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: মাত্র ৩৬ জন শিক্ষার্থী নিয়ে শুরু হওয়া সিলেট নগরীর শাহী ঈদগাহে প্রতিষ্ঠিত সরকারি মেডিকেল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ইন্সটিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি (আইএইচটি) সিলেট-এ এখন শিক্ষার্থীর সংখ্যা এক হাজারেরও বেশী।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে গত শুক্রবার সকালে আইএইচটি ক্যাম্পাসে প্রতিষ্ঠানটির অষ্টম ব্যাচের ওরিয়েন্টেশন ক্লাস অনুষ্ঠিত হয়।

ইনস্টিটিউটের ৫টি অনুষদে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীরা তিন বছরের ডিপ্লোমা কোর্স সম্পন্ন করবেন। সিলেটে চালু হওয়া অনুষদগুলো হচ্ছে ল্যাবরেটরি অনুষদ, ফার্মেসি অনুষদ, রেডিওলজি অনুষদ, ডেন্টাল অনুষদ, ফিজিওথেরাপি অনুষদ।

ইনস্টিটিউট সূত্রে জানা যায়, ২০১১ খ্রিষ্টাব্দে প্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠানটিতে সিলেট অঞ্চলের শিক্ষার্থীদের সংখ্যা বর্তমানে বেড়ে চলছে।

ইন্সটিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি (আইএইচটি)’র প্রিন্সিপাল ডা. আজিজ আহমেদ মালিক-এর সভাপতিত্বে এবং ইন্সটিটিউটের প্রভাষক ডা. স্নিগ্ধা দেবের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন আইএইচটি’র সহকারী পরিচালক ডা. মো. হেলাল উদ্দিন, ডা. প্রণয় কান্তি দাস, সিলেট সদর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আহমেদ সিরাজুম মুনির, টিচার্স ট্রেনিং কলেজের সহকারী অধ্যাপক মো. দিদার চৌধূরী, কোর্স কো-অর্ডিনেটর ডা. আব্দুল্লাহ আল আমিন, ডা. মো. রাশেদুল হক, ডা. শারমীন মাহবুবা খানম। অনুষ্ঠানে অফিস স্টাফের পক্ষে বক্তব্য রাখেন নূরুল আমিন চৌধূরী ও টেকনোলজিস্ট মো. রফিকুল ইসলাম।

সভাপতির বক্তব্যে ডা. আজিজ আহমেদ মালিক বলেন, স্বাস্থ্যখাতে টেকনোলজিস্টদের ভূমিকা অভাবনীয়। বাংলাদেশ অলরেডি মিলেনিয়াম ডেভেলপমেন্ট গোল অর্জন করেছে। আমরা আশাবাদী আমরা যদি স্বাস্থ্যখাতে আরো জোর দেই তবে ২০৩০ সালের মধ্যে আমরা আরো এগিয়ে যেতে পারবো, আমাদের অর্জন আরো বেশী হবে। শিক্ষার্থীদেরকে বলবো টেকনোলজিস্টদের কাজ মানুষকে নিয়ে। তাই তাদেরকে নৈতিকতার জায়গা ঠিক রাখতে হবে। সবসময় মনে রাখতে হবে আমরা মানুষের সেবা করবো।

অনুষ্ঠানের শুরুতে কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মাওলানা আনোয়ার হোসেন ও গীতা থেকে পাঠ করেন চাঁদ মোহন সরকার। অনুষ্ঠানে নিজেদের সাফল্যের গল্প শোনান অত্র ইন্সটিটিউটের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা। নবীন শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকেও বক্তব্য রাখেন দুজন শিক্ষার্থী। পরিচিতিমূলক অনুষ্ঠানের শুরুতে নবীন শিক্ষার্থীদেরকে লাল গোলাপ দিয়ে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানায় ইন্সটিটিউটের বর্তমান শিক্ষার্থীরা।

0Shares





Related News

Comments are Closed