Main Menu

বারখলা রূপালী যুব সংঘের নির্বাচন সম্পন্ন

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: সিলেট সিটি করপোরেশনের ২৫নং ওয়ার্ডের বারখলা রূপালী যুব সংঘের প্রথম দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। এতে পুনরায় সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন ইঞ্জিনিয়ার শাহজান কবির রিপন ও সাধারণ সম্পাদক দিলোয়ার হোসেন দিপু।

সোমবার (২৩ নভেম্বর) ) দিন ব্যাপি ভোট গ্রহন শেষে সন্ধ্যয় নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালনকারী বারখলা পঞ্চায়েত কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাওছার রহমান। সাথে ছিলেন প্রিজাইডিং অফিসার আলহাজ্ব সালেহ আহমদ, সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার কায়েস্থরাইল উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক মো: ফারুক আহমদ, কায়েস্থরাইল উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক মো: মুস্তাফিজুর রহমান।

প্রাপ্ত ফলাফলে শাহজান কবির রিপনের টেবিল মার্কা পেয়েছে ১৭৪ ভোট, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শাহজাহান আলম শাহিনের পদ্মফুল পেয়েছে ৫৭ ভোট। সহ-সভাপতি পদে দেয়াল ঘড়ি নিয়ে ১২৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন মিজানুর রহমান সানুর, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সোলেমান হোসেন সুমনের দোয়াত কলম পেয়েছে ১০০ ভোট ও হামিদ আহমদ জীবনের কাপ-পিরিচ পেয়েছে ৮২ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে ঘুড়ি নিয়ে বিজয়ী হওয়া দিলোয়ার হোসেন দিপু পেয়েছেন ১১৫ ভোট, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মাহদি মাহমুদের তালা চাবি পেয়েছে ৬৬ ভোট ও শমসের আলী বকুলের আনারস পেয়েছে ৪৯ ভোট। সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে গোলাপফুল নিয়ে বিজয়ী হওয়া ইজাজুর রহমান কাফি পেয়েছেন ১২২ ভোট, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জমির উদ্দিন টিটুর ছাতা পেয়েছে ১০৬ ভোট। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে বিজয়ী হওয়া রিমন মিয়ার হাতি পেয়েছে ১০২ ভোট, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মিলাদ আহমদের জিপ গাড়ি পেয়েছে ৭৩ ভোট, রাকিব আলী টিপুলের ঝুড়ি পেয়েছে ৩৮ ভোট ও সোহাগ আহমদের উড়ুজাহাজ পেয়েছে ১৪ ভোট। অর্থ সম্পাদক পদে বিজয়ী হওয়া রাহিমুর রহমানের বই পেয়েছে ১৫৯ ভোট, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী তারিকুল ইসলাম বিপ্লবের দাঁড়িপাল্লা পেয়েছে ৭০ ভোট। ক্রিড়া সম্পাদক পদে ক্রিকেট ব্যাট নিয়ে বিজয়ী হওয়া পাপ্পু আহমদ রায়হান পেয়েছেন ১২৩ ভোট ও তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মনির মিয়ার ফুটবল পেয়েছে ১০৬ ভোট।

বারখলা রূপালী যুব সংঘের প্রথম দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে ১৫ পদের বিপরীতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেণ ১৮জন ও বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন সাতজন। মোট ভোটার ছিলেন ২৩৮ জন। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে উৎসবমুখর পরিবেশে নিজেদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন ২৩১ জন ভোটার। নির্বাচন কমিশন বাতিল করে ১৩ ভোট।

এদিকে নির্বাচন পরিদর্শন করেণ সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ, ২৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তাকবির ইসলাম পিন্টু, সিলেট প্রেসক্লাবের পাঠাগার ও প্রকাশনা সম্পাদক কবির আহমদ, দক্ষিন সুরমা প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি হুমায়ুন কবির লিটন, কায়েস্থরাইল সমাজকল্যাণ সমিতির, মোছারগাঁও আদর্শ সমাজকল্যাণ সমিতি, দাউদপুর আদর্শ সমাজকল্যাণ সমিতি, খোজারখলা আদর্শ সমাজকল্যাণ সমিতি, আদর্শ সমাজকল্যাণ সমিতি (দাউদপুর, জৈনপুর, বকসিপুর, গালিমপুর), রংধনু আদর্শ সমাজকল্যাণ সমিতি জৈনপুর, ২৫নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর আশিক আহমদ, দক্ষিণ সুরমা সম্মিলিত সামাজিক সংগঠনসহ বিভিন্নজন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও সুশীল সমাজের ব্যক্তিবর্গ।

0Shares





Related News

Comments are Closed