Main Menu
শিরোনাম
সিলেটে একদিনে করোনা রোগী শনাক্ত ৪২ জন         শাবির ল্যাবে ১৭ জনের করোনা শনাক্ত         সিলেটে একদিনে নতুন শনাক্ত ২৪ জন, সুস্থ ৪১         কমলগঞ্জে হামলায় সাবেক মহিলা ইউপি সদস্য আহত         জামালগঞ্জ উপজেলায় নৌকার প্রার্থী ইকবাল বিজয়ী         হবিগঞ্জে অনির্দিষ্টকালের পরিবহণ ধর্মঘট প্রত্যাহার         শ্রীমঙ্গলের ভূনবীরে নৌকা, মির্জাপুরে ধানের বিজয়         নবীগঞ্জে ‘বিকাশ’ প্রতারককে আটক করল জনতা         সাদিপুরে নৌকার প্রার্থী কবির উদ্দিন বিজয়ী         সিলেটে একদিনে সুস্থ ৬৪ জন, শনাক্ত ২১         হবিগঞ্জে চলছে অনির্দিষ্টকালের বাস ধর্মঘট         মৌলভীবাজারে ভূয়া ডাক্তার দম্পতিকে জেল-জরিমানা        

রাতারগুলের ওয়াচ টাওয়ারে উঠতে নিষেধাজ্ঞা জারি

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: সিলেটের গোয়ানাইঘাট উপজেলার জলারবন রাতারগুলের ওয়াচটাওয়ারে উঠতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। পরিবেশকর্মীদের আপত্তি উপেক্ষা করে ২০১৪ সালে এ টাওয়ার নির্মাণ করে বনবিভাগ।

তবে নির্মাণের ছয় বছরের মধ্যেই ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে বনের ভেতরে নির্মিত এই টাওয়ারটি। রোববার নিষেধাজ্ঞা জারি করে সাইনবোর্ড টানানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন বন বিভাগের কর্মকর্তারা। এরআগে সম্প্রতি এই টাওয়ারকে ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করে এক সাথে ৪/৫ জনের বেশি দর্শনার্থীদের উঠতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল বনবিভাগ।

সিলেট বন বিভাগের সারি রেঞ্জের রেঞ্জ অফিসার সাদ উদ্দিন বলেন, অনেকদিন ধরেই ওয়াচ টাওয়ারটি ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় আছে। আমরা ইতোমধ্যে একসাথে ৪/৫ জনের বেশি দর্শনার্থী এ টাওয়ারে না উঠার নির্দেশনা দিয়ে সাইনবোর্ড টানিয়েছি। কিন্তু কেউ তা মানছেন না। একসাথে শতশত মানুষও টাওয়ারে উঠে পড়েন। এতে যে কোনো সময় দুর্ঘটনা ঘটার ঝুঁকি রয়েছে। তাই আমরা এই টাওয়ারে দর্শনার্থী উঠা আপাতত নিষিদ্ধ করেছি। রোববার এ সংক্রান্ত সাইনবোর্ড টানানো হয়েছে। পরবর্তীতে প্রকৌশলীদের সাথে কথা বলে এই টাওয়ারের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

সম্প্রতি অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনা এড়াতে আপাতত টাওয়ারে চার-পাঁচজনের বেশি না উঠার জন্য নোটিশ টানানো হয়েছিল। পর্যটকবাহী নৌকার মাঝিদের বলা হয়েছিল টাওয়ারে যেন একসাথে চার-পাঁচজনের বেশী না উঠেন।

টাওয়ার ঝুঁকিপূর্ণ স্বীকার করে কয়েকজন দর্শনার্থী বলেন, এক পলকে পুরো জলারবন দেখার লোভ সামলানো দায়। তাই ঝুঁকি নিয়েই উঠছি।

জানা যায়, সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের রাতারগুল ‘জলার বন’কে ১৯৭৩ সালে সংরক্ষিত বনাঞ্চল ঘোষণা করে বন বিভাগ। নদী ও হাওরবেষ্টিত ৫০৪ দশমিক ৫০ একর আয়াতনের পুরো এলাকা প্রকৃতিপ্রেমীদের কাছে আকর্ষণীয় জায়গা।

২০১৪ সালে বনের ভেতরে ৫০ ফুট উঁচু ওয়াচ টাওয়ার নির্মাণ করে বন বিভাগ। ৯০ লাখ ৬২ হাজার টাকা ব্যয়ে এই টাওয়ার নির্মান কাজ শুরুর পর থেকেই পরিবেশকর্মীরা আপত্তি জানিয়ে আসছিলেন। টাওয়ারের কারণে বনের ভেতরে পর্যটকদের সমাগম বাড়বে এবং এতে বনের পরিবেশ ও জীববৈচিত্র নষ্ট হবে বলে সে সময় জানিয়েছিলেন তারা।

পরিবেশকর্মীদের আপত্তির মুখে দুদফা টাওয়ারের নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখলেও পরে তা সম্পন্ন করে পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়। এরপর থেকে প্রতিদিন অসংখ্য পর্যটক ওয়াচ টাওয়ারে উঠে রাতারগুণ বন দেখতে জড়ো হন।

0Shares





Related News

Comments are Closed