Main Menu

বিশ্বনাথে প্রস্তুত আইসোলেশন ওয়ার্ড

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি : করোনা’র প্রভাবে রোগী শূণ্য সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলা হাসপাতাল। ভর্তি হচ্ছেন না কেউ। সাধারণ রোগের চিকিৎসা নিয়ে বাসায় ফিরছেন রোগীরা।

আউটডোরেও তেমন একটা আসছে না কেউ। খুব বেশী প্রয়োজন না হলে, হাসপাতাল আসতে অনীহা প্রকাশ করছে মানুষ। এ উপজেলায় এখনও করোনা শনাক্ত না হলেও, পার্শ্ববর্তী জেলা সদরে শানাক্ত হওয়ার খবরে আতঙ্কে রয়েছেন সবাই। ইতিমধ্যে জরুরী সেবায় প্রয়োজনীয় সরঞ্জামসহ প্রস্তুত রাখা হয়েছে উপজেলা হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ড।

সরেজমিন উপজেলা হাসপাতালে গিয়ে দেখা গেছে, এক সময় হাসপাতাল জুড়ে রোগীদের ভীড় লেগে থাকলেও, এখন সুনশান নীরবতা। অলস সময় পার করছেন ডাক্তার ও স্টাফরা। খালি পড়ে আছে আবাসিক ওয়ার্ড। ‘ইমার্জেন্সি ওয়ার্ডে’ নেই ব্যস্ততা। কদাচিৎ সাধরণ রোগী আসলে দেয়া হচ্ছে চিকিৎসা সেবা। হাসপাতালের দ্বিতীয় তলায় দেয়া যায়, প্রস্তুত আছে আইসোলেশন ওয়ার্ড। রয়েছে প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম। করোনার উপসর্গ নিয়ে কেউ ভর্তি হলে নমুনা সংগ্রহ করা হবে এখান থেকেই।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, ৩১ শয্যার হাসপাতাল সম্প্রতি প্রায় ১০ কোটি টাকা ব্যয়ে ৫০ শয্যায় উন্নীত হলেও, জনবল ও সরঞ্জামের কারণে নতুন ভবনে এখনও শুরু হয়নি চিকিৎসা সেবা। ৩১ শয্যায়ই চলছে কার্যক্রম।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স-এর স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবদুর রহমান মুসা সাংবাদিকদের বলেন, আবাসিক ওয়ার্ডে আজও ভর্তি নেই। তেমন একটা আসছেন না সাধারণ রোগীও। করোনা মোকাবেলায় প্রস্তুত আছে আমাদের আইসোলেশন ওয়ার্ড। প্রাথমিক ভাবে ১৫ জন রোগীর উপযোগী করে রাখা হয়েছে আইসোলেশন ওয়ার্ডে।

0Shares





Related News

Comments are Closed