Main Menu
শিরোনাম
বিয়ানীবাজারে ২৮০০ পিস ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার ১         সিলেটে করোনায় আক্রান্ত বেড়ে ৮২৯৭, মৃত্যু ১৫১         সিলেটে দুই ল্যাবে আরো ৮৫ জনের করোনা শনাক্ত         সুনামগঞ্জে করোনায় আক্রান্ত ব্যবসায়ীর মৃত্যু         শাবির ল্যাবে আরও ৪৬ জনের করোনা শনাক্ত         নবীগঞ্জে দুলাভাই-শ্যালিকার পরকীয়ার বলী হলেন মা         শায়েস্তাগঞ্জে মোটরসাইকেল দূর্ঘটনায় নিহত ১         জাফলংয়ে আসা পর্যটকদের ফিরিয়ে দিচ্ছে প্রশাসন         বিশ্বনাথে দুই ছেলের হামলায় পিতা আহত         ধর্মপাশায় নৌকা ডুবে মা-ছেলেসহ ৩জনের মৃত্যু         ছাতকে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মাদ্রাসা ছাত্রের মৃত্যু         দলই চা বাগান খুলে দেয়ার দাবিতে মানববন্ধন        

মেঘনায় দুই লঞ্চের সংঘর্ষে মা-ছেলে নিহত

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: বরিশাল থেকে ঢাকাগামী এমভি কীর্তনখোলা-১০ লঞ্চের সঙ্গে আরেকটি লঞ্চের সংঘর্ষে দুজন নিহত ও তিনজন আহত হয়েছেন।

রোববার রাত ১২টার দিকে মাঝেরচরে মেঘনা নদীতে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় নিহত দুজন হলেন- মাহমুদা বেগম (২২) ও তার ছেলে মোমিন (৬)। মাহমুদা বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার ভান্ডাকাঠি গ্রামের মো. রুবেল মিয়ার স্ত্রী।

দুর্ঘটনায় আহত তিনজন হলেন নূরজাহান বেগম (২২), আইফুলা বেগম (৬৫) ও হযরত আলী (৭০)। তাদের মধ্যে নূরজাহানের অবস্থা গুরুতর। তাকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

চাঁদপুর নৌপুলিশ স্টেশনের পরিদর্শক মো. আবু তাহের সকালে দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কীর্তনখোলা লঞ্চ কোম্পানির কাউন্টার ব্যবস্থাপক মো. ঝন্টু জানান, ঢাকা থেকে পিরোজপুরের হুলারহাটগামী এমভি ফারহান-৯ নামের একটি লঞ্চ কুয়াশার মধ্যে কীর্তনখোলা-১০ লঞ্চের মাঝ বরাবর সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে লঞ্চের নিচতলা ও দোতলার অংশ দুমড়েমুচড়ে যায় এবং কয়েকজন যাত্রী আহত হন।

যেহেতু মাঝনদীতে ঘটনাটি ঘটেছে, তাই আহত যাত্রীদের চিকিৎসার জন্য দ্রুত ঢাকার উদ্দেশে নিয়ে যাওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

কীর্তনখোলা-১০ লঞ্চ‌টি বরিশাল নদীবন্দর থেকে রোববার রাত ৯টার দিকে ৭০০ যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দে‌শে এবং হুলারহাট থে‌কে ফারহান ৯ লঞ্চ‌টিও ঢাকার উদ্দে‌শে রওনা হয়। লঞ্চ দুটি হিজলা উপজেলা সংলগ্ন মেঘনা নদীর মাঝেরচর এলাকায় পৌঁছালে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

কীর্তনখোলা লঞ্চের ব্যবস্থাপক বেল্লাল হোসেন অভিযোগে করেন, ফারহান-৯ লঞ্চে কোনো আধুনিক যন্ত্রপাতি না থাকার কারণেই কুয়াশার মধ্যে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে কীর্তনখোলা-১০ লঞ্চের উপরিভাগের বেশ কিছু অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হলেও তলা ক্ষতিগ্রস্ত না হওয়ায় হতাহতদের নিয়ে লঞ্চটিকে নিয়ে চাঁদপুর হয়ে ঢাকায় গেছে। সকাল ৯টায় লঞ্চটি ঢাকার সদরঘাটে পৌঁছায়।

শহিদুল ইসলাম নামে কীর্তনখোলা-১০-এর এক যাত্রী জানান, রাত ১২টার দিকে মেঘনা নদীতে তাদের বহনকারী লঞ্চ পৌঁছালে আকস্মিক বিকট শব্দ আর ঝাঁকুনিতে কেঁপে ওঠেন সবাই। আতঙ্কিত যাত্রীরা ছোটাছুটি শুরু করেন। এরপর তারা নিশ্চিত হন অন্য একটি লঞ্চ হুমড়ে পড়েছে কীর্তনখোলার ওপর। এতে ডেকের দুই যাত্রী নিহত এবং বেশ কয়েকজন আহত হন।

ফারহান-৯ লঞ্চের কেরানি আল আমিন বলেন, লঞ্চের সামনের অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। দুর্ঘটনায় লঞ্চটির ৫-৬ জন যাত্রী আহত হয়েছেন।

0Shares





Related News

Comments are Closed