Main Menu
শিরোনাম
বিশ্বনাথে গৃহবধূকে মারধর করায় ভাসুর গ্রেপ্তার         কারাবন্দী নেতাকর্মীর বাড়িতে বিএনপি নেতৃবৃন্দ         শাবির ল্যাবে আরো ২৮ জনের করোনা শনাক্ত         কমলগঞ্জে গলায় ফাঁস দিয়ে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা         এমসি ছাত্রাবাসে ধর্ষণের প্রতিবাদে বিশ্বনাথে মানববন্ধন         ছাতকে ‘আফজল শাহ চত্বর’ বাস্তবায়নের দাবি         প্রবাসী স্ত্রীকে ভিডিও কলে রেখে স্বামীর আত্মহত্যা         শাবির ল্যাবে আরো ২০ জনের করোনা শনাক্ত         ওসমানীর ল্যাবে আরো ১৯ জনের করোনা শনাক্ত         মামাতো ভাইয়ের ‘ধর্ষণে’ মা হলো কিশোরী         সিলেটে একদিনে আরো ৫১ জন শনাক্ত, সুস্থ ৪৬         বালাগঞ্জে পাশবিকতার অভিযোগে প্রবাসী আটক        

জুড়ীতে চা শ্রমিকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

জুড়ী সংবাদদাতা: মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলায় প্রদীপ তংলা (২৪) নামের এক চা-শ্রমিকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

সোমবার (১২ আগস্ট) সকালে লাশটি উদ্ধার করে জুড়ী থানা পুলিশ।

প্রদীপ উপজেলার পশ্চিম জুড়ী ইউনিয়নের শিলঘাট ফাঁড়ি চা-বাগানের কালিটিলা এলাকার বাসিন্দা ভ্রমরা তংলার ছেলে।

তার পরিবার, স্থানীয় লোকজন ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, প্রদীপ শিলঘাট ফাঁড়ি বাগানের শ্রমিক। গতকাল রোববার সকালে সিএনজিচালিত একটি অটোরিকশায় দুই আত্মীয়কে নিয়ে কমলগঞ্জ উপজেলার আলীনগর চা-বাগানে একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে যান। সেখান থেকে বাড়ি ফেরার পর রাত নয়টার দিকে ব্যক্তিগত কাজের কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন প্রদীপ। এরপর থেকে তাঁর কোনো সন্ধান পাওয়া যাচ্ছিল না। বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও তাঁর খোঁজ মিলছিল না। সোমবার সকাল ছয়টার দিকে স্থানীয় লোকজন শিলঘাট দুর্গা মন্দিরের সামনে টিনশেড একটি ঘরে শার্ট দিয়ে ফাঁস লাগানো অবস্থায় তাঁর লাশ ঝুলে থাকতে দেখেন। পরে থানায় খবর দেওয়া হলে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

প্রদীপের বাবা ভ্রমরা তংলা বলেন, রোববার অটোরিকশার ভাড়া দেওয়া নিয়ে চালকের সঙ্গে তাঁর ছেলের ঝামেলা হয়েছিল। সোমবার স্থানীয়ভাবে বিষয়টি মিটমাট হওয়ার কথা ছিল।

দুর্বৃত্তরা প্রদীপকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে মন্দিরের সামনে লাশ ঝুলিয়ে রেখে চলে যেতে পারে বলে সন্দেহ করছেন তিনি। এ ব্যাপারে থানায় মামলা করবেন বলেও জানিয়েছেন প্রদীপের বাবা।

জুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার জানান, সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরির সময় প্রদীপের গলায় ক্ষত দেখা গেছে। প্যান্টের পকেটে মুঠোফোন ও মানিব্যাগ পাওয়া গেছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মৌলভীবাজারের ২৫০ শয্যার হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়া গেলে ঘটনাটি হত্যা না আত্মহত্যা সে বিষয়ে পরিষ্কার হওয়া যাবে। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

0Shares





Related News

Comments are Closed