Main Menu
শিরোনাম
কানাইঘাটের নতুন ইউএনও সুমন্ত ব্যানার্জী         শাবির ল্যাবে ১৬ জনের করোনা শনাক্ত         সিলেটে আরো ৩৬ জনের করোনা শনাক্ত         শাবির অপহৃত দুই শিক্ষার্থী উদ্ধার, আটক ১         বিশ্বনাথে গৃহবধূকে মারধর করায় ভাসুর গ্রেপ্তার         কারাবন্দী নেতাকর্মীর বাড়িতে বিএনপি নেতৃবৃন্দ         শাবির ল্যাবে আরো ২৮ জনের করোনা শনাক্ত         কমলগঞ্জে গলায় ফাঁস দিয়ে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা         এমসি ছাত্রাবাসে ধর্ষণের প্রতিবাদে বিশ্বনাথে মানববন্ধন         ছাতকে ‘আফজল শাহ চত্বর’ বাস্তবায়নের দাবি         প্রবাসী স্ত্রীকে ভিডিও কলে রেখে স্বামীর আত্মহত্যা         শাবির ল্যাবে আরো ২০ জনের করোনা শনাক্ত        

কাশ্মীরে গণহত্যার প্রতিবাদে সিলেটে বিক্ষোভ

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: উগ্র হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকার কর্তৃক ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলুপ্তি ও কাশ্মীরে গণহত্যার প্রতিবাদে সিলেট মহানগর জমিয়তের উদ্যোগে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব জননেতা মাওলানা আব্দুল মালিক চৌধুরী বলেন, ১৯৪৭ সালে জম্মু-কাশ্মীরকে ভারত সরকার কর্তৃক প্রদত্ত সনদ এবং সংবিধানের ৩৭০ ধারা; যার মাধ্যমে তাদের একটা স্বতন্ত্র এবং স্বায়ত্তশাসন ছিল; হিন্দুত্ববাদি বিজেপি সরকার গায়ের জোরে অস্ত্রের মুখে এই সংবিধান সংশোধনের মাধ্যমে কাশ্মীরী মুসলমানের সে অধিকার কেড়ে নেয়।

তিনি আরো বলেন, ১৯৪৮ সালে জাতিসংঘের প্রস্তাবনায় স্পষ্ট বলা হয়েছে যে, কাশ্মীরের জনগণের মতামতের ভিত্তিতেই সেখানকার সমস্যার সমাধান করতে হবে। অথচ ভারত জাতিসংঘের এই প্রস্তাবকে লঙ্ঘন করে পুরো কাশ্মীরকে জুলুমের রাজ্যে পরিণত করেছে। তিনি হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, জীবনের শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে হলেও কাশ্মীরের স্বাধীনতা ফিরিয়ে আনতে বিশ্ব মুসলিম লড়াই চালিয়ে যাবে।

তিনি বলেন, অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীরকে সাংবিধানিক বিশেষ মর্যাদাদান সম্বলিত ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপ এবং প্রশাসনিক বিভক্তিকরণের মাধ্যমে মোদি সরকার কাশ্মীরি জনগণের সাথে রাষ্ট্রীয় বিশ্বাসঘাতকতা ও প্রতারণা করেছে। তিনি অনতিবিলম্বে কাশ্মীরের মুসলমানদেরকে ঘিরে সকল অন্যায় ও দমনপীড়নমূলক পদক্ষেপ থেকে বিরত হয়ে কাশ্মীরী জনগণের অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার জোর দাবী জানান।

বৃহস্পতিবার (৮ আগস্ট) বাদ আসর সিলেট মহানগর জমিয়তের উদ্যোগে আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী সিটি পয়েন্টের পথ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

মহানগর জমিয়তে ইসলামের সহ সভাপতি প্রিন্সিপাল মাহমুদুল হাসানের সভাপতিত্বে ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আবু বকর সিদ্দিক সরকারের পরিচালনায় পথ সভায় বক্তব্য রাখেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম সিলেট মহানগর শাখার সহ সভাপতি মুফতি আলতাফুর রহমান, জমিয়তে উলামা ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় নেতা ও সিলেট জেলা জমিয়তের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আব্দুস সালাম, মাও: খায়রুজ্জামান, মাও: শেখ মুজিবুর রহমান, ছাত্রনেতা এম. বেলাল আহমদ চৌধুরী, মাও: ছিফত উল­াহ, হাফিজ তামীম চৌধুরী, মাও: আলবাব চৌধুরী, মাও: হেলাল আহমদ, মাও: কায়সান মাহমুদ, মাও: আব্দুল হাই আল হাদী, মাও: জাফর ইকবাল, মাও: মাহমুদ, মীম সালমান, দেলোয়ার হোসেন ইমরান, হাফিজ ইব্রাহিম খলিল, হাফিজ আব্দুল­াহ, হাফিজ ইলিয়াছ আহমদ, হাফিজ মোয়াফিজুল ইসলাম সাকিব, হাফিজ মাহমুদ প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বলেন, স্বাধীনতা একটি ন্যায্য অধিকার। প্রতিষ্ঠিত যে কেহ স্বাধীনতা চাইতে পারে। এটা অন্যায়ের কিছু নয়। পৃথিবীর ইতিহাসে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন জাতি গোষ্ঠীকে স্বাধীনতা দেয়া হয়েছে।কিন্তু ব্যতিক্রম শুধু কাশ্মীর।স্বাধীনতা চাওয়ার দরূণ কাশ্মীরীদের উপর সূচনালগ্ন থেকেই অমানবিক নির্যাতন চালানো হয়েছে। বিশেষ করে মুসলমানের উপর। জুলুম নির্যাতনের স্টীম রোলার চালিয়ে কাশ্মীরী জনগণের ‘আজাদী’ আন্দোলনকে ভারত দীর্ঘ ৭০ বছরেও স্তিমিত করতে পারেনি। পারবেও না। বরং ভারতের নতুন এই হঠকারী সিদ্ধান্ত কাশ্মীরী জনগণের স্বাধীনতাধীকার আদায়ের আন্দোলনকে আরো বেগবান করবে, ইনশাআল­াহ। সভায় বক্তারা বাংলাদেশ সরকারকে কাশ্মীর মুসলমানদের সর্বপ্রকার সহযোগিতা পরিস্কার ঘোষণা দেওয়ার জোর দাবী জানান।

0Shares





Related News

Comments are Closed