Main Menu

সুনামগঞ্জে মেয়েকে হত্যার দায়ে বাবার যাবজ্জীবন

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জে নিজ মেয়েকে হত্যার দায়ে মোস্তাক আহমদ চৌধুরী নামে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

রোববার (৫ মে) দুপুরে সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত দায়রা জজ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত মোস্তাক আহমদ চৌধুরী সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার জাল্লাবাদ গ্রামের আব্দুল মালিকের ছেলে।

সুনামগঞ্জ আদালতের অতিরিক্ত পিপি সোহেল আহমদ ছইল মিয়া জানান, দ্বিতীয় বিয়ে করার জন্য নিজের ছয় মাসের শিশু কন্যাকে হত্যার দায়ে মোস্তাককে এই দণ্ড দেওয়া হয়।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, মোস্তাক আহমদ চৌধুরী সিলেট নগরীর ঝর্ণারপাড়ের একটি বাসায় স্ত্রী ও তিন শিশু সন্তান নিয়ে ভাড়া থাকতেন। মোস্তাক একপর্যায়ে কলোনির এক নারীকে বিয়ে করতে চাইলে বাধা দেন তার স্ত্রী।

এ বিষয় নিয়ে স্ত্রী চানভানুর সঙ্গে মনোমালিন্য চলে আসছিল তার। ১৯৯৮ সালের ২৩ নভেম্বর দ্বিতীয় বিয়ে করার উদ্দেশে স্ত্রী-সন্তানকে বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে সিলেট থেকে সুনামগঞ্জের গ্রামের বাড়িতে রওনা হন মোস্তাক।

সুনামগঞ্জ সদরের টুকেরঘাট নৌকাযোগে পার হয়ে বেরাজালীর কিত্তার হাওর নামক একটি ফাঁকা স্থানে রাত ৯টার দিকে স্ত্রী চানভানু, বড় মেয়ে খোদেজা (৬) ও ছেলে সাইদুরকে (২) ছুরিকাঘাত করে আহত করেন তিনি। এর পর কোলের ছয় মাসের মেয়েশিশু রিনাকে ছুরিকাঘাত ও মাটিতে আছাড় দিয়ে হত্যা করেন মোস্তাক।

আহতদের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে পালিয়ে যান মোস্তাক। স্থানীয় লোকজন ও পুলিশের সহযোগিতায় আহতদের সদর হাসপাতালে চিকিৎসা প্রদান করা হয়।

এ ঘটনার পরের দিন মোস্তাকের স্ত্রী চানভানু বাদী হয়ে সুনামগঞ্জ সদর থানায় মামলা করেন।

0Shares





Related News

Comments are Closed