Main Menu

আজ পবিত্র হজ

বৈশাখী নিউজ ২৪ ডটকম: শুরু হচ্ছে বিশ্ব মুসলিমের মহাসম্মেলন পবিত্র হজ। আজ লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক ধ্বনিতে মুখরিত হবে আরাফাত ময়দান। ইতোমধ্যে ২০ লাখেরও বেশি মুসল্লি এসে জড়ো হয়েছেন মিনায়। রবিবার থেকেই শুরু হয়ে গেছে আনুষ্ঠানিকতা। তবে রবিবার রাত থেকে সেখানে বৃষ্টির খবর পাওয়া গেছে।

রবিবার রাতে মিনায় অবস্থান করেন হাজিরা। সোমবার (২০ আগস্ট) ফজরসহ পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায়ের পর তারা যাবেন মিনা থেকে ১০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে অবস্থিত আরাফাতের ময়দানের দিকে। আরাফাতে যাওয়ার দীর্ঘ পথ পাড়ি দিতে মুসল্লিরা পায়ে হেঁটে, হুইল চেয়ারে, বাসে; যে যেভাবে পারেন পৌঁছাবেন। সবার শরীর সাদা কাপড়ে ঢাকা থাকবে। তাদের ‘লাব্বায়েক আল্লাহুম্মা লাব্বায়েক’ ধ্বনিতে মুখরিত হবে আরাফাতের ময়দান।

আরাফাতের ময়দান থেকে মুসল্লিরা মাগরিবের নামাজ আদায় না করেই রওনা দেবেন মুজদালিফার দিকে। সেখানে পৌঁছে মাগরিব ও এশার নামাজ একসঙ্গে আদায় করবেন তারা। এখানে খোলা আকাশের নিচে রাত যাপন করবেন তারা। তারপর মিনার জামারায় (প্রতীকী) শয়তানকে নিক্ষেপের জন্য পাথর সংগ্রহ করবেন।

মঙ্গলবার (২১ আগস্ট) সকালে ফজরের নামাজ শেষে হাজিরা আবার ফিরে আসবেন মিনায়। বুধবার (২২ আগস্ট) সকালে জামারাতে পাথর নিক্ষেপ ও পশু কোরবানির পর পুরুষরা মাথা মুণ্ডন করে ইহরাম ত্যাগ করবেন। এরপর পবিত্র কাবা শরিফে বিদায়ী তাওয়াফ করে হজের পূর্ণ আনুষ্ঠানিকতা শেষ করবেন হাজিরা।

হজ ব্যবস্থাপনা সুষ্ঠু করতে সৌদি আরবের সরকার বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছে। বাদশাহ সালমানের উপদেষ্টা প্রিন্স খালিদ আল-ফয়সাল হজ ব্যবস্থাপনা তদারকি করছেন।

এবছর বাংলাদেশ থেকে ১ লাখ ২৬ জন হজ পালন করছেন। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের হজ অফিস ঢাকার পরিচালক সাইফুল ইসলাম জানিয়েছেন, সৌদি আরবের বাংলাদেশ মিশনসহ প্রায় ২৫০ জন বাংলাদেশি কর্মকর্তা হজ পালনের সময় গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে মোতায়েন থাকবেন। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের বেশিরভাগ কর্মকর্তা ইতোমধ্যেই সৌদি আরব গিয়েছেন বাংলাদেশি হজযাত্রীদের সহযোগিতা ও জরুরি সেবা দেওয়ার জন্য। জেদ্দা, মক্কা ও মদিনাতে তিনটি মেডিক্যাল স্থাপন করা হয়েছে। এসব ক্যাম্পে ৩০ জন চিকিৎসক ও নার্স হজযাত্রীদের চিকিৎসা সেবা দেবেন। একেবারে জরুরি অবস্থার ক্ষেত্রে স্থানীয় হাসপাতালে হজযাত্রীদের পাঠানোর ব্যবস্থাও গ্রহণ করা হয়েছে।

ঘরে বসে যোগ দিন হজের সমাবেশে

আল্লাহ প্রেম ও বিশ্ব মুসলিমের ভ্রাতৃত্ব বন্ধনের অন্যতম পথ হজ। মুসলিম উম্মাহর ঐক্য, সংহতি ও সাম্যের প্রতীক। ইসলামের এই পঞ্চম স্তম্ভটি বিশ্ব মুসলিমের সামাজিক, রাজনৈতিক ও আধ্যাত্মিক ঐক্যের এক অত্যুজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। আর্থিক ও কায়িক শ্রমের সমন্বিত এক ইবাদাত।

৮ যিলহজ্জ হিসেবে গতকাল ১৯ আগস্ট থেকে শুরু হয়েছে হজের আনুষ্ঠানিকতা। চলবে আগামী ১২ যিলহজ্জ বা ২৪ আগস্ট পর্যন্ত।

এই ৫ দিনে মক্কা মুকাররমা ও তার আশে পাশের কয়েকটি জায়গায় (মক্কায় তাওয়াফ, সাফা-মারওয়ায় সায়ী, মিনার তাঁবুর জীবন, আরাফাতের বিশাল প্রান্তরে অবস্থান, মুজদালিফায় রাত্রি যাপন আবার মিনাতে প্রত্যাবর্তন, জামরাগুলোতে কংকর নিক্ষেপ, মিনাতে পশু কুরবানী, আবার ক্বাবা তাওয়াফ, সাফা-মারওয়ায় সায়ী ইত্যাদি) কিছু কর্তব্য কার্য সম্পাদন করাকে ইসলামের পরিভাষায় হজ বলে।

ইতিমধ্যেই মিনা থেকে আরাফাতের ময়দানে সমবেত হয়েছেন আল্লাহর মেহমানরা। অপারগতার কারণে যারা এবার এই হজের অংশ নিতে পারেননি, মনটা যেতে চাইছে আরাফাতের ময়দানে। প্রযুক্তির কল্যাণে তারা এখন যোগ দিতে পারেন এই সম্মেলনে। সরাসরি হজের এই সমাবেশে যোগ দেয়া যাবে হারমাইন ওয়েব সাইট কিংবা ইউটিউব থেকে।

ওয়েব সাইটের ঠিকানা: https://hamariweb.com/pakistan-tv-channels/makkah_Live.aspx

ইউটিউব:https://www.youtube.com/watch?v=3o6849wnxok

আর যারা ব্রাউজার ছাড়াই অ্যান্ড্রয়েড বা আইওএস অপারেটিং সিস্টেমে অ্যাপের মাধ্যমে হজের সমাবেশে অংশ নিতে চান তাদেরকে
https://goo.gl/XFZQRe (অ্যান্ড্রয়েড) https://goo.gl/vEvRAz (আইওএস) অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিতে হবে।

0Shares





Comments are Closed