Main Menu

স্বর্ণের দামে রেকর্ড, প্রতি ভরির দাম ৯০ হাজার ৭৪৬ টাকা

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম আরেক দফা বাড়ানো হয়েছে। এবার ভরিতে মূল্যবান এই ধাতুটির দাম ২ হাজার ৩৩৩ টাকা বাড়ছে। তাতে সবচেয়ে ভালো মানের অর্থাৎ ২২ ক্যারেটের এক ভরি স্বর্ণের দাম দাঁড়াবে ৯০ হাজার ৭৪৬ টাকায়। এই দাম দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ। নতুন এই দর রোববার (৮ জানুয়ারী) থেকে সারা দেশে কার্যকর হবে।

বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস) শনিবার (৭ জানুয়ারী) দাম বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে।
বাজুসের মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান এম এ হান্নান আজাদ স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, স্থানীয় বাজারে তেজাবি স্বর্ণের (পিওর গোল্ড) দাম বাড়ায় সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় নতুন দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। অন্যান্য মানের স্বর্ণের দামও প্রায় একই হারে বাড়ানো হয়েছে।

এর আগে গত ২৯ ডিসেম্বর সবশেষ দাম বাড়ানো হয়েছিল। সে সময় সব থেকে ভালো মানের স্বর্ণের দাম ভরিতে ১ হাজার ১৬৬ টাকা বাড়ানো হয়। তাতে ভালো মানের এক ভরি স্বর্ণের দাম দাঁড়ায় ৮৮ হাজার ৪১৩ টাকা। এতদিন দেশের বাজারে এটাই ছিল সর্বোচ্চ দাম। এই রেকর্ড ভেঙে রোববার থেকে ইতিহাসের সর্বোচ্চ দামে দেশের বাজারে স্বর্ণ বিক্রি হবে।

বাজুসের ঘোষণা অনুযায়ী, রোববার থেকে সবচেয়ে ভালো মানের অর্থাৎ ২২ ক্যারেট প্রতি ভরি (১১.৪৪৬ গ্রাম) স্বর্ণের দাম পড়বে ৯০ হাজার ৭৪৬ টাকা, শনিবার পর্যন্ত যা ৮৮ হাজার ৪১৩ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

এ ছাড়া ২১ ক্যারেট প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ২ হাজার ২১৬ টাকা বাড়িয়ে ৮৬ হাজার ৬০৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে, যা আগে ছিল ৮৪ হাজার ৩৮৯ টাকা। রোববার থেকে ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণ ৭৪ হাজার ২৪১ টাকায় বিক্রি হবে, যা ছিল ৭২ হাজার ৩১৭ টাকা। এ মানের স্বর্ণের দাম ভরিতে বেড়েছে ১ হাজার ৯২৪ টাকা।

সনাতন পদ্ধতির স্বর্ণের দাম ভরিতে ১ হাজার ৫৭৪ টাকা বাড়িয়ে ৬১ হাজার ৮৭৮ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে, যা আগে ছিল ৬০ হাজার ৩০৩ টাকা।

টানা তিন দফা কমানোর পর গত ১২ নভেম্বর মূল্যবান এ ধাতুর দাম ভরিতে ২ হাজার ৩৩৩ টাকা বাড়িয়েছিল বাজুস। যা ১৩ নভেম্বর থেকে কার্যকর হয়। ছয় দিনের মাথায় ১৭ নভেম্বর ভরিতে ১ হাজার ৭৫০ টাকা বাড়ানো হয়। ৪ ডিসেম্বর আরও ৩ হাজার ৩৩ টাকা বাড়ানো হয়। ২৯ ডিসেম্বর বাড়ানো হয় ১ হাজার ১৬৬ টাকা। শনিবার ভরিতে আরও ২ হাজার ৩৩৩ টাকা বাড়ানোর ঘোষণা এলো।

আন্তর্জাতিক বাজারে গত আড়াই মাস ধরে স্বর্ণের দামে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসের শুরুতে বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স (৩১.১০৩৪৭৬৮ গ্রাম) স্বর্ণের দাম ছিল প্রায় ১ হাজার ৮০০ আমেরিকান ডলার। কিন্তু রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ শুরু হলে দাম হঠাৎ বেড়ে যায়। মার্চের প্রথম সপ্তাহে দাম বেড়ে হয় ২ হাজার ৫২ ডলারে ওঠে; যা ছিল ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

এরপর কয়েক মাস টানা কমে অক্টোবর শেষে বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ১ হাজার ৬০০ ডলারে নেমে আসে। নভেম্বর থেকে তা ফের বাড়তে থাকে। ২৯ ডিসেম্বর যখন স্বর্ণের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেয়া হয় তখন প্রতি আউন্সের দাম ছিল ১ হাজার ৮১৪ ডলার ৬৯ সেন্ট।

শনিবার রাত ৮টায় প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ছিল ১ হাজার ৮৬৬ ডলার ১৩ সেন্ট।

রুপার দামও বেড়েছে

অনেকদিন পর রুপার দামও বাড়িয়েছে বাজুস। রোববার থেকে দেশের বাজারে ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি রুপা ১ হাজার ৭১৪ টাকায় বিক্রি হবে। এতদিন বিক্রি হয়েছে ১ হাজার ৫১৬ টাকায়।

২১ ক্যারেটের রুপা বিক্রি হবে ১ হাজার ৬৩৩ টাকায়। শনিবার পর্যন্ত বিক্রি হয়েছে ১ হাজার ৪৩৫ টাকায়। ১৮ ক্যারেটের রুপা বিক্রি হবে ১ হাজার ৪০০ টাকায়। এতদিন বিক্রি হয়েছে ১ হাজার ২২৫ টাকায়।

আর সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি রুপা বিক্রি হবে ১ হাজার ৫০ টাকায়। শনিবার পর্যন্ত বিক্রি হয়েছে ৯৩৩ টাকায়।

0Shares





Related News

Comments are Closed