Main Menu
শিরোনাম
মামলা প্রত্যাহার না হলে কঠোর কর্মসূচির ঘোষণা শিক্ষার্থীদের         ওসমানীনগরে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ জনের মৃত্যু         শান্তিগঞ্জে মাস্ক পরিধান সম্পর্কে থানা পুলিশের প্রচারণা         সিলেট জেলা মহিলা দলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন         শান্তিগঞ্জে কার খাদে পড়ে চালক নিহত, আহত ৪         গোলাপগঞ্জ উপজেলা বিএনপির কাউন্সিল সম্পন্ন         কমলগঞ্জে ঐতিহ্যবাহী চুঙ্গা পিঠা উৎসব         কমলগঞ্জে জলাশয় থেকে নারীর লাশ উদ্ধার         নবীগঞ্জে সিএনজির ধাক্কায় বৃদ্ধের মৃত্যু         শাবির ৩০০ শিক্ষার্থীকে আসামি করে পুলিশের মামলা         সিলেটে একদিনে করোনায় দুই শতাধিক রোগী শনাক্ত         রাষ্ট্রপতির কাছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ‘খোলা চিঠি’        

ভাসানীর সমাধিস্থলে রেজা-নুরের উপর হামলা

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: টাঙ্গাইলের সন্তোষে মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে হামলার শিকার হয়েছেন গণঅধিকার পরিষদের আহ্বায়ক ড. রেজা কিবরিয়া এবং সংগঠনটির সদস্য সচিব ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর।

বুধবার (১৭ নভেম্বর) দুপুরে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা তাদের ওপর এ হামলা চালান বলে অভিযোগ করেন সংগঠনটির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক শাকিলুজ্জামান। তবে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের দাবি, তাদের নেতা-কর্মীদের ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়েছে গণ অধিকার পরিষদের নেতা-কর্মীরা।

হামলায় উভয় পক্ষের অন্তত ৭ জন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ৫ জন গণ অধিকার পরিষদের।

দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এ হামলার ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সরোয়ার হোসেন। আহতদের মধ্যে একজনকে টাঙ্গাঈল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের পর নিজের ফেসবুক পেজ থেকে লাইভে রেজা কিবরিয়া বলেন, ‘আমরা আজকে আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের আসল রূপ দেখলাম। একজনের মাজারে আমরা ফুল দিতে গেছি, সেখানে তারা…পুলিশ কিছু করতে পারেনি। প্রায় ১০-১৫ পুলিশ ছিল। যখন ছাত্রলীগ আমাদের আক্রমণ করেছে তারা সরে গেছে। হয়তো তারা ভয়ে সরে গেছে, না হয় তাদের কোনো ইন্সট্রাকশন আছে। আমি জানি না। তারা ঠিক প্রটেকশন দিতে পারেনি।

‘এখন আশা করি, তারা এ ব্যাপারে সক্রিয় হবে। প্রটেকশন দেবে। আমাদের অনেক ছেলে আহত হয়েছে এবং ছাত্রলীগের যারা এটার পেছনে আছে তাদের যেন দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়া হয়। এই দাবিটা আমরা করি। এখন আমরা থানায় যাচ্ছি।’

লাইভে গণ অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক রাশেদ খান বলেন, ‘আমাদের অগণিত নেতা-কর্মী মওলানা ভাসানীর মাজারে অবরুদ্ধ রয়েছেন। যাকে যেখানে পাচ্ছে সাপের মতো পেটানো হচ্ছে। আমরা যারা ওখানে ছিলাম, যারা সামনে ছিলাম প্রত্যেককে বাঁশ, লাঠিসোঁটা, ইট-পাটকেল যেভাবে পেরেছে সেভাবে পিটিয়েছে। ইট-পাথর নিক্ষেপ করেছে।

‘আমাদের আহ্বায়ককে কোনোক্রমে সেখান থেকে বের করে নিয়ে আসতে পেরেছি। কিন্তু নুরুল হক নুরসহ অনেক নেতা-কর্মী সেখানে রয়েছেন। দেশবাসীর কাছে, পুলিশ প্রশাসনের কাছে, সরকারের কাছে আমাদের উদাত্ত আহ্বান, আপনারা দ্রুত সময়ের মধ্যে ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরসহ আমাদের নেতা-কর্মীদের উদ্ধার করেন।’

হামলার বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের বিলুপ্ত কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক নিবিড় পাল বলেন, ‘গণ অধিকার পরিষদের নেতা-কর্মীরা মিছিল নিয়ে ঢোকার সময় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছোড়ে। আত্মরক্ষায় তারাও ইটপাটকেল ছুড়লে উভয় পক্ষের নেতা-কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এতে তাদের দুই কর্মী গুরুতর আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে একজনের মাথা ফেটে গেছে।

0Shares





Related News

Comments are Closed