Main Menu
শিরোনাম
সিলেটে দুই কমিউনিটি সেন্টারকে জরিমানা         কমলগঞ্জে শিশু নির্যাতনের ঘটনায় ইমাম আটক         সাংবাদিক মারুফ হাসানের পিতার ইন্তেকাল         বিশ্বনাথে খাল-বিলে অবাধে পোনা নিধন         সিলেট-৩ আসনকে নান্দনিক করতে সবাইকে নিয়ে কাজ করব : হাবিব         দক্ষিণ সুরমায় অসুস্থ বৃদ্ধের জায়গা আত্মসাতের চেষ্টা         কমলগঞ্জে ফ্যানের আঘাতে চা শ্রমিকের মৃত্যু, শ্রমিকদের কর্মবিরতি         সিলেটে আইনজীবী আনোয়ারের লাশ কবর থেকে উত্তোলন         সিলেটে করোনায় আরো৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৬৮         গোয়াইনঘাটে একই পরিবারের ৩জনকে গলাকেটে হত্যা         শ্রীমঙ্গলের সীমান্ত এলাকা থেকে ভারতীয় নারী আটক         সিলেটে অটোরিকশায় যুবতিকে ‘গণধর্ষণ’, গ্রেপ্তার ২        

২২দিনে দৌঁড়ে লন্ডনে পৌঁছালেন আফরোজ মিয়া

প্রবাস ডেস্ক: রোজা রেখে ওল্ডহ্যাম থেকে ইংল্যান্ডের বিভিন্ন শহর-গ্রাম-জনপদ ঘুরে ৩১৩ কিলোমিটার দৌড়ে গত ৮ মে শবে কদরের রাতে লন্ডন এসে পৌঁছান চ্যারিটি ওয়ার্কার আফরোজ মিয়া। প্রতিদিন সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত ব্রিটেনের বিভিন্ন জনপদ দিয়ে দৌড়েছেন আফরোজ মিয়া।

ওল্ডহাম থেকে দৌড়ে ৩১৩ কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে তিনি তার এই অভিযাত্রা শেষ করেছেন চ্যানেল এস এর স্টুডিওতে। প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী লাইলাতুল কদরের রাতে চ্যানেল এস স্টুডিওতে এসে পৌঁছান তিনি। ২২ দিনে ওল্ডহ্যাম থেকে লন্ডনে পৌঁছান।

আফরোজ মিয়া জানান, এটা সম্ভব হবে বলে তিনি নিজেও কখনো ভাবতে পারেননি। কিন্তু যাত্রা শুরু করার পর কমিউনিটির মানুষের ভালোবাসা এবং সহযোগিতা তাকে প্রতিদিন নতুন প্রেরণা দিয়েছে। এ জন্যে তিনি বিভিন্ন শহরে যারা তাকে উৎসা যুগিয়েছেন, তাঁর সঙ্গে দৌঁড়ে যুগ দিয়েছেন তাদের সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান ৪৭ বছর বয়সী আফরোজ মিয়া।

গ্লোবাল রিলিফ ট্রাস্টের জন্য একশো পঞ্চাশ হাজার পাউন্ড তহবিল সংগ্রহের টার্গেট নির্ধারণ করে দৌড় শুরু করেন আফরোজ মিয়া। সংগৃহিত অর্থ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে গরীব অসহায় মানুষের মধ্যে বিতরণ করা হবে।

আর্তমানবতার সেবায় বড় এক চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেছিলেন ওল্ডহ্যামের বাসিন্দা আফরোজ মিয়া। শিক্ষকতা পেশার পাশাপাশি চ্যারিটি কাজে নিজেকে নিয়োজিত করেছিলেন অনেক আগেই। যুদ্ধ বিধ্বস্ত ইয়েমেনের অসহায় এবং বাংলাদেশে মিয়ানমার থেকে বিতাড়িত হওয়া রোহিঙ্গাদের দু:খ দুর্দশার চিত্র খুব কাছ থেকে দেখেছেন। এসব অসহায় এবং হতদরিদ্রদের পাশে দাঁড়াতেই এবার ব্যতিক্রমি উদ্যোগ নেন আফরোজ মিয়া।

ইংল্যান্ডের চ্যারিটি সংস্থা গ্লোবাল রিলিফ ট্রাস্টের জন্যে ফান্ড রেইজিংয়ের লক্ষ্য নিয়ে রোজা রেখে ওল্ডহ্যাম থেকে ৩শ ১৩ কিলোমিটার দৌঁড় শুরু করেন তিনি। প্রথম রামাদানে ওল্ডহ্যাম থেকে দৌড় শুরু করেছিলেন। ২২ দিনে ওল্ডহ্যাম থেকে লন্ডনে পৌঁছান। গত ৮ সে শনিবার বিকেলে চ্যানেল এস অফিসে পৌঁছার পর তাঁকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান চ্যানেল এস চেয়ারম্যান আহমেদ উস সামাদ চৌধুরী জেপি এবং চ্যারিটি সংস্থা গ্লোবাল রিলিফ ট্রাস্টের ফাউন্ডার শাহিদ উর রাহমান। এ সময় তাঁর হাতে চ্যানেল এসের পক্ষ থেকে একটি সার্টিফিকেটও তুলে দেন চ্যানেল এস চেয়ারম্যান আহমেদ উস সামাদ জেপি। আফরোজ মিয়াকে সহযোগিতার জন্যে কমিউনিটির সবার প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞ্যাপন করেন তিনি।

গ্লোবাল রিলিফ ট্ট্রাস্টের ফাউন্ডার শাহিদ উর রাহমান জানান, বাঙালী কমিউনিটির মধ্যে আফরোজ মিয়া এই প্রথম আর্তমানবতার সেবায় এমন চ্যালেঞ্জিং কাজটি শুরু করেছেন। এটা অব্যাহত থাকবে এবং সমর্থন দিতে সবার প্রতি আহ্বান জানান তিনি। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে গ্লোবাল রিলিফ ট্রাস্টের প্রতিনিধিরা এই দানের অর্থ সরাসরি অসহায় দরিদ্রদের হাতে তুলে দিবে বলেও জানান তিনি। আফরোজ মিয়া নিজেও আশা করছেন বাকী দিনগুলোতে তাঁর এই উদ্যোগের প্রতি একাত্মতা জানিয়ে দানশীল ব্যক্তিরা গ্লোবাল রিলিফ ট্রাস্টের প্রতি সহযোগিতা অব্যাহত রাখবেন।

0Shares





Related News

Comments are Closed