Main Menu
শিরোনাম
দিরাই পৌর নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী ইকবাল চৌধুরী         সিলেটে আরও ৩৮ জনের করোনা শনাক্ত         বাহুবলে গৃহবধূকে ধর্ষণের পর হত্যা, শ্বশুর গ্রেপ্তার         কমলগঞ্জে কলেজ ছাত্রীর বিষপানে আত্মহত্যা         সিলেটে গত ২৪ ঘন্টায় ৪১ জনের করোনা শনাক্ত         কামালবাজার ইউপি নির্বাচনে একঝাঁক প্রার্থী মাঠে         গোয়াইনঘাটে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার, স্বামী আটক         কমলগঞ্জে গ্রেপ্তার আতংকে ঘরে ঘরে ঝুলছে তালা         সিলেট শিক্ষা বোর্ডের নতুন চেয়ারম্যান রমা বিজয় সরকার         সিলেটে একদিনে আরো ৩৬ জনের করোনা শনাক্ত         সিলেটে মাস্ক না পরায় ১০৭ জনকে জরিমানা         গোলাপগঞ্জে বিজ্ঞান মেলার উদ্বোধন        

ক্যান্সার প্রতিরোধে কারিপাতা

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: দিন দিন ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। বিভিন্ন ধরনের ক্যান্সার দেখা দিচ্ছে অহরহ। মরণব্যাধি এ রোগের হাত থেকে নিস্তারও মেলে না সহজে। শেষ পরিণতি মৃত্যু। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নিয়মিত নানাভাবে কারি পাতা খেলে ক্যান্সারের হাত থেকে দূরে থাকা যায়। এছাড়া আরও একাধিক শারীরিক উপকারও পাওয়া যায়।

সম্প্রতি জাপানি বিজ্ঞানিদের একটি দল এক পরীক্ষা চালিয়েছিলেন। তাতে দেখা গেছে, কারি পাতায় উপস্থিত ‘কার্বাজল অ্যাসকালোয়েড’ নামক একটি উপাদান, যা শরীরে প্রবেশ করার পর একের পর এক ক্যান্সার সেল মারতে শুরু করে। ফলে এ মরণ রোগ ধারে-কাছেও ঘেঁষতে পারে না।

বিশেষ করে কলোরেকটাল, লিউকেমিয়া এবং প্রস্টেট ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা একেবারে থাকে না বললেই চলে। তবে এমন উপকার পেতে ৩০ থেকে ৪০টি কারি পাতা পরিমাণ মতো পানিতে ফুটিয়ে নিতে হবে। তারপর পাতাগুলো ছেঁকে নিন। এবার সে পানিতে এক চামচ মধু এবং অল্প লেবুর রস মিশিয়ে পান করতে হবে। প্রতিদিন যদি এমনটা করতে পারেন, তাহলে দেখবেন উপকার মিলতে সময় লাগবে না।

এছাড়াও কারি পাতার রয়েছে নানা স্বাস্থ্য উপকারিতা। জেনে রাখুন সেগুলো

চোখের স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটায়। সে সঙ্গে ড্রাই আই এবং দৃষ্টিশক্তি কমে যাওয়ার মতো সমস্যাও দূর করে। সেক্ষেত্রে পরিমাণমতো কারি পাতা নিয়ে চোখের উপর রাখতে হবে। তবে এ সময় চোখটা যেন বন্ধ থাকে। এভাবে ১০ মিনিট থাকার পর পাতাগুলো সরিয়ে ফেলতে হবে। এভাবে প্রতিদিন চোখের পরিচর্যা করুন। কারি পাতায় উপস্থিত ল্যাক্সেটিভ প্রপাটিজ হজম ক্ষমতার উন্নতি ঘটায়। যারা মাঝেমধ্যেই বদহজমের সমস্যায় ভুগে থাকেন, তারা কারি পাতাকে সঙ্গী করে নিন।

এই প্রকৃতিক উপাদানটি অক্সিডেটিভ স্ট্রেস এবং ক্ষতিকর টক্সিনের হাত থেকে লিভারকে রক্ষা করে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই শরীরের এই গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গটির কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। কারি পাতায় উপস্থিত শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি-ফাঙ্গাল প্রপাটিজ যেকোনো ধরনের স্কিন ইনফেকশন কমাতে দারুণ কাজে লাগে। -ওয়েবসাইট

0Shares





Related News

Comments are Closed