Main Menu

এসএসসির ফল ঈদের পর, মোবাইলে যাবে ফল

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক : মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল ঈদুল ফিতরের পরে প্রকাশ করা হবে। ফল মোবাইলে আরো সহজভাবে পেতে করতে হবে নিবন্ধন।

মঙ্গলবার (১৯ মে) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মাহবুব হোসেন গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানান।
তিনি জানান, এবার আরো সহজে আগে আগে খুদে বার্তার মাধ্যমে ফল জানার ব্যবস্থা করেছে শিক্ষাবোর্ডগুলো।

করোনাভাইরাসের কারণে অনিশ্চয়তার মুখে পড়া এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশের প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন করেছে শিক্ষা বোর্ডগুলো। তবে ঈদের আগে ফল প্রকাশ করা হচ্ছে না। তবে করোনার প্রাদুর্ভাবে এবার গতানুগতিক প্রক্রিয়ায় ফল প্রকাশিত হবে না। শিক্ষার্থীদের স্ব স্ব স্কুলে গিয়ে ফল প্রকাশের সুযোগ নেই। প্রতিবছর বোর্ড চেয়ারম্যানদের সঙ্গে নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর কাছে ফলাফল হস্তান্তর করেন। এরপর মন্ত্রণালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন। এর কোনোকিছুই এবার হবে না। তবে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে ফলাফল হস্তান্তরের চেষ্টা চলছে বলে জানা যায়।

অন্যান্য বারের মতো এবারও এসএমএসের মাধ্যমে ফল জানার সুযোগ থাকবে। পাশাপাশি শিক্ষার্থীরা আগেভাগেই প্রি-রেজিস্ট্রেশন করলেও ফল প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গে তা মোবাইলেও পৌঁছে যাবে।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের সিনিয়র সিস্টেম এনালিস্ট মঞ্জুরুল কবীর গণমাধ্যমকে বলেন, শিক্ষার্থীরা মোবাইলে এসএমএসের মাধ্যমে ফলাফল পেলেও সবাই সাধারণত স্কুলে গিয়েই ফল সংগ্রহ করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে। কিন্তু এবার যেহেতু স্কুলে যাওয়ার সুযোগ নেই। তাই টেলিটকের সহায়তায় শিক্ষার্থীদের মোবাইলে ফল পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এজন্য ১৮ মে সোমবার থেকে প্রি-রেজিস্ট্রেশন শুরু হয়েছে।

প্রি-রেজিস্ট্রেশন করার জন্য SSC লিখে স্পেস বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস রোল নম্বর লিখে স্পেস পাসের সাল লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠিয়ে দিতে হবে।
মাদ্রাসা বোর্ডের জন্য Dakhil স্পেস Mad এবং কারিগরি বোর্ডের জন্য SSC স্পেস Tec লিখতে হবে। এতে ফলাফল প্রকাশের পরপরই যেই নম্বর থেকে এসএমএস পাঠানো হয়েছিল সেই নম্বরে ফলাফল চলে আসবে। প্রতি এসএমএসের জন্য দুই টাকা চার্জ নেয়া হবে।

জানা যায়, চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহেই এবারের এসএসসির ফল প্রকাশের কথা ছিল। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে তা সম্ভব হয়নি। তবে এবারই প্রথম পরীক্ষকদের কাছ থেকে ডাকযোগে এসএসসির ওএমআর শিট বোর্ডে এনে তা স্ক্যানিং করা হয়েছে। চলতি মাসে ফল প্রকাশিত হলে আগামী ৬ জুন থেকে অনলাইনে একাদশে ভর্তি কার্যক্রম শুরু করা হবে।

গত ফেব্রুয়ারিতে এসএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছিল। পরীক্ষার পর ৬০ দিনের মধ্যে ফল প্রকাশের কথা থাকলেও করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে দীর্ঘ ছুটির কারণে সেটা সম্ভব হয়নি। এ বছর মোট পরীক্ষার্থী ছিল ২০ লাখ ৪৭ হাজার ৭৭৯ জন।

0Shares





Related News

Comments are Closed