Main Menu

করোনা : দেশে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন ৫ জন

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে পাঁচজন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। তবে দেশে করোনাভাইরাসে নতুন করে আরও তিনজন আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে একজন নারী ও দুজন পুরুষ। আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৭ জনে।

করোনাভাইরাস নিয়ে সবশেষ অবস্থা জানাতে রোববার (২২ মার্চ) জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ব্রিফিংয়ে বক্তব্য দেন আইইডিসিআরের পরিচালক ডা. সেব্রিনা ফ্লোরা। তিনি জানান, করোনায় এ পর্যন্ত ‍দু’জন মারা গেছেন।

বিশ্বজুড়ে নভেল করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর গত ৮ মার্চ প্রথম বাংলাদেশে তিনজন এ রোগে আক্রান্ত হওয়ার খবর জানায় আইইডিসিআর।

তার ১০ দিন পর গত ১৮ মার্চ সত্তরোর্ধ্ব এক ব্যক্তির মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করা হয়। যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী মেয়ের মাধ্যমে তার দেহে ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটেছিল। সেটিই ছিল বাংলাদেশে প্রথম মৃত্যু।

এর পর কয়েক দফায় ২১ মার্চ শনিবার পর্যন্ত দেশে ২৪ জন কোভিড-১৯ রোগী ধরা পড়েন। তারা কেউ বিদেশফেরত, কেউ তাদের স্বজন।

করোনাভাইরাসের ব্যাপক সংক্রমণ ঠেকাতে শনাক্ত রোগীদের সংস্পর্শে এসেছেন এমন সবাইকে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। বিদেশফেরত সবাইকে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এর আগে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, মার্চের ১ তারিখের পর বিদেশফেরতদের তালিকার তথ্য বিমানবন্দর থেকে নেয়া হয়েছে। যারা পালিয়ে আছেন, তাদের খুঁজে বের করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি বলেন, সে তালিকা সারা দেশে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। যারা বিদেশ থেকে এসেছেন, আমাদের কাছে তথ্য দেননি, আত্মগোপন করেছেন, তাদের খুঁজে বের করে কোয়ারেন্টিনে নেয়ার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

দেড় শতাধিক দেশে ছড়িয়ে পড়া কোভিড-১৯ রোগকে ইতিমধ্যে বৈশ্বিক মহামারী ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। এতে মৃত্যুর সংখ্যা ১৩ হাজার ছাড়িয়েছে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে বাংলাদেশে জনসমাগমের মতো সব অনুষ্ঠান আয়োজনে নিষেধ করা হয়েছে। বন্ধ করা হয়েছে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, বিনোদনকেন্দ্র ও প্রেক্ষাগৃহ।

করোনাভাইরাসের কোনো উপসর্গ দেখা দিলে বা সন্দেহ হলে যোগাযোগের জন্য হটলাইন (৩৩৩, ১৬২৬৩) চালু করেছে আইইডিসিআর। তাতে ফোন করলে বাড়িতে গিয়ে নমুনা সংগ্রহ করবেন আইইডিসিআরের কর্মীরা।

কেউ চাইলে iedcrcovid19@gmail.com ঠিকানায় ই-মেইল করে নিজের বক্তব্য জানাতে পারবেন। এছাড়া ফেসবুক গ্রুপ Iedcr,COVID-19 Control Room-এর ইনবক্সে সমস্যার কথা বলতে পারবেন।

0Shares





Related News

Comments are Closed