Main Menu

ইবি’র সাবেক প্রক্টর ড. মাহবুবের কুশপুত্তলিকা দাহ

শাহাব উদ্দীন ওয়াসিম, ইবি প্রতিনিধি: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) সাবেক প্রক্টর প্রফেসর ড. মো: মাহবুবর রহমানের কুশপত্তলিকা দাহ করেছে বিশ^বিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। মঙ্গলবার বেলা ৩ টায় বিশ^বিদ্যালয়ের ঝাল চত্বরে কুশপত্তলিকা দাহ করে তারা। এর আগে ড. মাহবুবর রহমানকে প্রশাসনিক সকল পদ থেকে অব্যাহতির দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করেছে ছাত্রলীগ।

ক্যাম্পাস সূত্রে, ইবি শাখা ছাত্রলীগের পদ বঞ্চিত নেতা-কর্মী ও বর্তমান ক্যাম্পাসে অবস্থানরত বিদ্রোহী নেতা কর্মীরা দলীয় টেন্ট থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিন করে প্রশাসন ভবনের সামনে এসে শেষ হয়। বিক্ষোভ মিছিল চলাকালে তারা ‘হোই হোই রোই রোই জামাত শিবির গেলো কই’ মাহবুব শিবির গেলো কই’ একশন একশন, ডাইরেক্ট একশন, মাহবুব শিবিরের বিরুদ্ধে ডাইরেক্ট একশন’ ইত্যাদি শ্লোগান দিতে থাকে।

পরে ক্যাম্পাসে ঝাল চত্বরে ড. মাহবুবর রহমানের কুশপত্তলিকা দাহ করেন তারা। পরবর্তীতে বিশ^বিদ্যালয় প্রশাসনের সাথে দেখা করেন ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শিশির ইসলাম বাবু, তৌকির মাহফুজ মাসুদ, সাবেক ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান লালন, সহ-সম্পাদক ফয়সাল সিদ্দিকি আরাফাতসহ বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী। এসময় তারা বলেন ড. মাহবুবর রহমানের ছাত্রজীবনের শিবির সংশ্লিষ্টতা প্রমাণিত হয়েছে। তাই তাকে সকল প্রকার প্রশাসনিক পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়ার দাবি জানায় তারা।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরে সাবেক প্রক্টর ও বর্তমান সিন্ডকেট সদস্য প্রফেসর ড. মো: মাহবুবর রহমানের ছাত্রজীবনে শিবির সংশ্লিষ্টতা ছিল বলে দাবি করে আসছে ইবি শাখা ছাত্রলীগের বর্তমান বিদ্রোহী গ্রæপের নেতা কর্মীরা। সোমবার একটি বেসকারী টেলিভিশনে (ডিবিসি) ড. মাহবুবর রহমানের শিবির সংশ্লিষ্টতা নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদনে রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের মাদার বক্স হল শাখা ছাত্রলীগের তৎকালীন সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান তার বক্তব্যে বলেন মাহবুবর রহমান বিশ^বিদ্যালয়ের ছাত্র থাকা অবস্থায় শিবির নিয়ন্ত্রিত সংবাদপত্র পাঠক ফোরমের সদস্য ছিলেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ড. মাহবুবর রহমান বলেন, ‘বরাবরের মত বলছি তাদের অভিযোগের একটিও প্রমাণিত হলে প্রশাসনিক পদ না বিশ^বিদ্যালয় ছেড়ে চলে যাবো। মাদার বক্স হল শাখা ছাত্রলীগের তৎকালীন সাধারণ সম্পাদকের বক্তব্যর বিষয়ে তিনি বলেন, ‘তিনি সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং অবান্তর বক্তব্য দিয়েছেন।’

0Shares





Related News

Comments are Closed