Main Menu
শিরোনাম
বিশ্বনাথে গৃহবধূকে মারধর করায় ভাসুর গ্রেপ্তার         কারাবন্দী নেতাকর্মীর বাড়িতে বিএনপি নেতৃবৃন্দ         শাবির ল্যাবে আরো ২৮ জনের করোনা শনাক্ত         কমলগঞ্জে গলায় ফাঁস দিয়ে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা         এমসি ছাত্রাবাসে ধর্ষণের প্রতিবাদে বিশ্বনাথে মানববন্ধন         ছাতকে ‘আফজল শাহ চত্বর’ বাস্তবায়নের দাবি         প্রবাসী স্ত্রীকে ভিডিও কলে রেখে স্বামীর আত্মহত্যা         শাবির ল্যাবে আরো ২০ জনের করোনা শনাক্ত         ওসমানীর ল্যাবে আরো ১৯ জনের করোনা শনাক্ত         মামাতো ভাইয়ের ‘ধর্ষণে’ মা হলো কিশোরী         সিলেটে একদিনে আরো ৫১ জন শনাক্ত, সুস্থ ৪৬         বালাগঞ্জে পাশবিকতার অভিযোগে প্রবাসী আটক        

ছাতকে পিতাকে হত্যার দায়ে ছেলের যাবজ্জীবন

সুনামগঞ্জ সংবাদদাতা: সুনামগঞ্জের ছাতকে পিতাকে হত্যার দায়ে ছেলেকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (৩১ জুলাই) সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আবদুর রশিদ ছাতক উপজেলার মঈনপুর গ্রামের শহীদ মিয়ার ছেলে।

সুনামগঞ্জের সহকারী সরকারি কৌঁসুলি (এপিপি) সৈয়দ জিয়াউল ইসলাম মামলার রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০০৯ সালের ২৩ মে সন্ধ্যায় এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ওই দিন বিকেলে আবদুর রশিদ বাড়ির একটি মোরগ ধরে নিয়ে বাজারে বিক্রি করে দেন। বাজার থেকে বাড়িতে আসার পর বাবা শহীদ মিয়া ছেলের কাছে মোরগ বিক্রির কারণ জানতে চান। এ নিয়ে কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে ছেলে বাবাকে লাঠি দিয়ে আঘাত করে। এতে গুরুতর আহত হন শহীদ মিয়া। পরে তাঁকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে এদিন রাতেই তিনি মারা যান।

ঘটনার পরের দিন শহীদ মিয়ার স্ত্রী নুরুন নেছা বাদী হয়ে ছেলের বিরুদ্ধে ছাতক থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

এই মামলায় তদন্ত শেষে পুলিশ আবদুর রশিদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়। মামলার দীর্ঘ শুনানি শেষে আজ রায় ঘোষণা করেন আদালত। রায় ঘোষণার সময় আসামি রশিদ আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পরে তাঁকে কারাগারে পাঠানো হয়।

মামলায় বাদীপক্ষে ছিলেন আইনজীবী আবু তাহের মোহাম্মদ রুহুল আমিন। আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. কামাল হোসেন।

0Shares





Related News

Comments are Closed