Main Menu
শিরোনাম
দিরাই পৌর নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী ইকবাল চৌধুরী         সিলেটে আরও ৩৮ জনের করোনা শনাক্ত         বাহুবলে গৃহবধূকে ধর্ষণের পর হত্যা, শ্বশুর গ্রেপ্তার         কমলগঞ্জে কলেজ ছাত্রীর বিষপানে আত্মহত্যা         সিলেটে গত ২৪ ঘন্টায় ৪১ জনের করোনা শনাক্ত         কামালবাজার ইউপি নির্বাচনে একঝাঁক প্রার্থী মাঠে         গোয়াইনঘাটে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার, স্বামী আটক         কমলগঞ্জে গ্রেপ্তার আতংকে ঘরে ঘরে ঝুলছে তালা         সিলেট শিক্ষা বোর্ডের নতুন চেয়ারম্যান রমা বিজয় সরকার         সিলেটে একদিনে আরো ৩৬ জনের করোনা শনাক্ত         সিলেটে মাস্ক না পরায় ১০৭ জনকে জরিমানা         গোলাপগঞ্জে বিজ্ঞান মেলার উদ্বোধন        

পদ্মা সেতুর ৩৩তম স্প্যান বসেছে

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: পদ্মা সেতুর ৩৩তম স্প্যান বসানো হয়েছে। সেতুর মাওয়া প্রান্তে ৩ ও ৪ নম্বর পিয়ারের ওপর স্প্যান ১-সি বসানো হয়। এটি বসানোর পর সেতুর প্রায় ৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান হলো।

সোমবার (১৯ অক্টোবর) সেতুর উপ-সহকারী প্রকৌশলী হুমায়ুন কবীর এ তথ্য জানিয়েছেন।

সোমবার সকাল সোয়া ৯টার দিকে মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের মাওয়ায় অবস্থিত কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডের স্টিল ট্রাস জেটি থেকে স্প্যানটি বহন করে আনে ভাসমান ক্রেন তিয়ান-ই। ক্রেন নোঙর করে পিয়ারে স্প্যান উঠানোর কার্যক্রম শুরু হয়। বেলা ১২টায় পিয়ারের ওপর স্প্যান বসানো হয়। ৩২তম স্প্যান বসানোর আট দিনের মাথায় বসলো এই স্প্যানটি। এখনও ৮টি স্প্যান বসানো বাকি আছে।

জানা গেছে, ২৫ অক্টোবর পিয়ার ৭ ও ৮ নম্বরের ওপর ৩৪তম স্প্যান, ৩০ অক্টোবর পিয়ার ৮ ও ৯ নম্বরের ওপর ৩৫তম স্প্যান, ৪ নভেম্বর পিয়ার ২ ও ৩ নম্বরে ৩৬তম স্প্যান, ১১ নভেম্বর পিয়ার ৯ ও ১০ নম্বরে ৩৭তম স্প্যান, ১৬ নভেম্বর পিয়ার ১ ও ২ নম্বরে ৩৮তম স্প্যান, ২৩ নভেম্বর পিয়ার ১০ ও ১১ নম্বরে ৩৯তম স্প্যান, ২ ডিসেম্বর পিয়ার ১১ ও ১২ নম্বরে ৪০তম স্প্যান ও ১০ ডিসেম্বর সর্বশেষ ৪১ নম্বর স্প্যান বসবে ১২ ও ১৩ নম্বর পিয়ারের ওপর।

৩০ হাজার ১৯৩.৩৯ কোটি টাকা ব্যয়ে গৃহীত এই প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি ৮১. ৫০ ভাগ এবং আর্থিক অগ্রগতি ৮৭.৫৫ ভাগ। নদী শাসন কাজের বাস্তব অগ্রগতি ৭৪.৫০ ভাগ। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ পর্যন্ত মোট ব্যয় হয়েছে ২৩ হাজার ৭৯৬.২৪ কোটি টাকা।

মূল সেতু নির্মাণের কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না রেলওয়ে মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং গ্রুপ কোম্পানি লিমিটেড (এমবিইসি)। আর নদী শাসনের কাজ করছে চীনের আরেকটি প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো করপোরেশন।

0Shares





Comments are Closed